//

//

ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র : পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র

অধ্যাপক হায়াৎ মামুদ

‘ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র’ বাংলা ভাষার খ্যাতিমান গবেষক, লেখক, ইতিহাসবেত্ত, বৈয়াকরণ এবং বিশ্বব্যাপী সুপরিচিত শুদ্ধ বানান চর্চা (শুবাচ) গোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা ড. মোহাম্মদ আমীনের লেখা একটি অসাধারণ গ্রন্থ। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন — ধ্রুব এষ।  বাংলা বানান শেখার জন্য লেখা এই বইটি পর্যবেক্ষণ ও পরিশীলনকালে বইটির অবয়ব আমাকে একই সঙ্গে মুগ্ধ এবং অভিভূত মাত্রায় নতুন অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ করেছে। সহজে বাংলা শেখার জন্য ব্যাকরণের কঠিন সূত্রের বাইরে গিয়ে ড. মোহাম্মদ আমীন যেসব অভিনব কৌশল এখানে দিয়েছেন, তা যেমন হৃদয়গ্রাহী তেমনি কার্যকর। এসব কৌশল একবার পড়লে যে-কেউ মুখস্থ ছাড়াই বাংলার যেকোনো জটিল শব্দ এবং কঠিন বিধি চির জীবনের জন্য স্মরণের আয়ত্তে নিয়ে আসতে সক্ষম হবেন—এটি আমি নিশ্চিত বলতে পারি।

‘ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র’ নামের বইটি পর্যবেক্ষণ ও পরিশীলন করতে গিয়ে মনে হয়েছে— বাংলা বানান নিয়ে এমন একটি সমৃদ্ধ অথচ সহজবোধ্য ও সর্বজনীন বই আরও আগে লেখা হওয়া উচিত ছিল। অধুনা চারিদিকে বাংলা বানানের যে হতদশা দেখছি তাতে বাংলার ভূতপূর্ব শিক্ষক হিসেবে লজ্জা হয়— আমরা কি তাহলে এতদিন শিক্ষক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারিনি? নইলে স্বাধীনতার এত বছর পরও বাংলা বানানের এত দুরবস্থা কেন? নিবিড় পরিচর্যা, কার্যকর পদক্ষেপ, পর্যাপ্ত প্রচার এবং প্রয়োজনীয় গ্রন্থাদির অভাবে সাধারণ বাংলাভাষী মাতৃভাষার ব্যবহারে ক্রমশ দুর্বল থেকে দুর্বলতর হয়ে পড়ছে। মনে হচ্ছে— শুদ্ধ বাংলাচর্চা কেবল গবেষণা আর গবেষক পর্যায়ে সীমাবদ্ধ বিষয় হয়ে আছে। অধিকাংশ বাংলাভাষীর মাতৃভাষা নিয়ে কোনো আগ্রহ এবং দায়বোধ আছে বলে মনে হয় না। অথচ মাতৃভাষা ব্যক্তির দেশপ্রেম, মূল্যবোধ, ঐতিহ্য আর চেতনার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। এতদিন বিশুদ্ধ বাংলাচর্চার উপযুক্ত প্রতিষ্ঠান ও গ্রন্থের প্রচণ্ড অভাব ছিল। ‘শুদ্ধ বাংলা বানান চর্চা (শুবাচ)’ গোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা ড. মোহাম্মদ আমীন শুদ্ধ বানান চর্চার জন্য শুবাচ গোষ্ঠী প্রতিষ্ঠা এবং বাংলাচর্চার অনেক গ্রন্থ লিখে বাংলাচর্চার শূন্যতা বহুলাংশে পূরণ করতে সক্ষম হয়েছেন।

‘ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র’ বইটি সামগ্রিক বিবেচনায় আমার কাছে অত্যন্ত সমৃদ্ধ, কার্যকর এবং বাংলাজ্ঞানে বিশুদ্ধতা অর্জনে একটি কার্যকর বই মনে হয়েছে। আমি মনে করি, সাধারণ শিক্ষিত থেকে শুরু করে উচ্চশিক্ষিত, শিশু শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে গবেষক; অধিকন্তু, বাংলা শেখায় আগ্রহী বিদেশি— সবার ক্ষেত্রে বিশুদ্ধ বাংলাচর্চায় ‘ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র’ বইটি স্বয়ংসম্পূর্ণ আকর গ্রন্থ হিসেবে কার্যকর ভূমিকা পালন করে যেতে সক্ষম হবে। ‘ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র’ গ্রন্থের ‘সমগ্র’ অর্থ এ নয় যে, সব বাংলা বানান ও বানান-কৌশল এখানে পাওয়া যাবে— তবে প্রাত্যহিক বিবিধ কাজে যেসব বানান আপনার-আমার এবং সর্বশ্রেণির মানুষের প্রয়োজন হয়, কিংবা হতে পারে সেরকম প্রায় সব বানান ও বানান কৌশল এই একটি গ্রন্থে পাওয়া যাবে। বাংলা ভাষায় প্রায়োগিক বিষয়ে কেবল বাংলা বানানের প্রমিত কৌশল নিয়ে রচিত এত সমৃদ্ধ এবং স্বয়ংসম্পূর্ণ বই ইতঃপূর্বে আমার চোখে পড়েনি। আমি মনে করি, বইটি আপনার হাতে থাকলে বাংলা বানানে ঋদ্ধতা অর্জনের জন্য আর কোনো বই প্রয়োজন নাও হতে পারে। আমি লেখকের সঙ্গে সঙ্গে বইটির প্রকাশক পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি. এর সবাইকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র

Share This
Language
error: Content is protected !!