//

//

সিলেটের আঞ্চলিক ভাষার শব্দ

সিলেটের কিছু আঞ্চলিক ভাষার আদি শব্দ

Sharman Muhsin 

মা-বাবা= মা-বাফ।
শ্বশুর-শ্বাশুড়ি= হউর-হরি।
ছেলের বউ= ফুয়ার বউ।
মেয়ের জামাই= ফূড়ি জামাই।
কাঁঠাল = খাঠল।
কাঁচা কাঁঠাল= ঘাঁটি।
কলা= খলা।
কলা গাছের ফুল= তুর।

Sharman Muhsin

কলা গাছের ভিতরের অংশ= ডেখ।
কচুরি পানা= জারমনি, দলি।
ছোট বাচ্চা = ফিচ্চি, হুরুতা।
পাকের ঘর = উন্দাল, ফাজ্ঞর।
একটা = এখটা, এগু।
টাকা= টেখা।
কাদা= ফেখ।
পেপে= কফল।
পেয়ারা= ছফরি।
ঝাড়ু= খরখরা।
কেরোসিন তেল= খেরেছতেল।
সরিষার তেল = মিটা তেল।
বাড়ির মূল ফটক = বাড়ির সামনা।
আমের আঠা= আমর খস।
চাচা= ছাছা, খাকু।
পুকুর= ফুকুইর, ফুশকুনি।
ফকির= হকির।

তেতুল= তেঁতই।
কালো জাম = খালা জাম।
কাঁথা= খাতা।
বাটি= খট্টা।
পা= ফাও।
হাত= আঁত।
কপাল= খফাল।
ঘাড়= গরধনা।
মাথা= খল্লা।
হাটূ= আঁটু।
আদর= মায়া, হোয়াগ।
আসকারা= উসলানি।
পুর্বের বাড়ি= ফুরান বাড়ি।
সীমানা= হদ।
বাছুর= বাইচ্চা।
আপনে= আফনে।
তিনি= তাইন।
ভোরে = বিয়ানে, সখালে।
পাখি = ফাকি।
বড়শি= ব’রি।
লাকড়ি= দারু, ছেলি।
কুপি = লেম।

মৃগেল মাছ= মিরগা মাছ।
পুঁটি মাছ= ফুটি মাছ।
রুই মাছ= রউ মাছ।
শোল মাছ= হউল মাছ।
বড় পাতিল = বড় ডেগ।
কলসি = খলস।

কোথায় যাচ্ছেন?= খই যাইতরায়?
কী ভাবছেন?= কিতা চিন্তা খরো?

এমন আরও অসংখ্য শব্দ আছে! যা আর লিখে শেষ করা যাবে না। তাই আজ এ-পর্যন্তই থাকুক! যারা সিলেটি ভাষা জানেন না বা জানতে আগ্রহী তাদের জন্য দুইটা জিনিষ সহজ করে দিচ্ছি- ‘ক’ এবং ‘প’ এই দুইটা শব্দ সিলেটি ভাষায় বেশীরভাগ ক্ষেত্রে ‘খ’ এবং ‘ফ’ বলে উচ্চারিত হয়।

সূত্র:  সিলেটের কিছু আঞ্চলিক ভাষার আদি শব্দ, Sharman Muhsin, শুদ্ধ বানান চর্চা (শুবাচ)


বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

Share This
Language
error: Content is protected !!