অঞ্জলি শব্দের ব্যুৎপত্তি

ড. মোহাম্মদ আমীন

‘অঞ্জলি’ শব্দের আভিধানিক অর্থ করপুট, যুক্তকর, হাতজোর করে নৈবেদ্য প্রদান প্রভৃতি। এক সময় গ্লাস বা জলপানের পাত্রাদির এত প্রচলন ছিল না। নদী বা পুকরের পানি বিশুদ্ধ ছিল। তখন অধিকাংশ মানুষ নদী বা পুকুর হতে বা বালতির পানি দুই হাত জড়ো করে তুলে পান করতেন। এভাবে জলপান করার সময় দুই হাতের পাঞ্জা সামান্য বেঁকে গিয়ে একটা বিশেষ আধারের আকৃতি ধারণ করে। মূলত এ আকৃতিটাই হচ্ছে অঞ্জলি। অঞ্জলি সাধু ভাষায় ব্যবহৃত শব্দ। এর চলিত রূপ হচ্ছে আঁজলা। অঞ্জলির ব্যবহার শুধু হাত জড়ো করে জলপানে নয়। এটি বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে রূপকার্থে বহুল ব্যবহৃত একটি মাধুর্যময় শব্দ। যেমন : শ্রদ্ধাঞ্জলি, পুষ্পাঞ্জলি, গীতাঞ্জলি, বর্ণাঞ্জলি প্রভৃতি। অঞ্জলি শব্দটি মূলত প্রায়োগিক ভাবনার চেয়েও আলঙ্করিক অর্থে অধিক ব্যবহৃত হয়।


গবেষণা, প্রাতিষ্ঠানিক অধ্যয়ন, মাতৃভাষা জ্ঞান, প্রাত্যহিক প্রয়োজন, শুদ্ধ বানান চর্চা এবং বিসিএস-সহ যে-কোনো প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার জন্য অতি প্রয়োজনীয় কয়েকটি লিংক :

শুবাচ লিংক

শুবাচ লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

error: Content is protected !!