অতিরিক্ত দায়িত্ব বনাম চলিত দায়িত্ব ও ভারপ্রাপ্ত : সংজ্ঞার্থ বিধিবাধান ও পরিপত্র

ড. মোহাম্মদ আমীন

চলতি দায়িত্ব: কোনো সরকারি কর্মচারী বর্তমানে যে পদমর্যাদায় অধিষ্ঠিত, সে পদ থেকে উচ্চতর পদে বদলি করাকে চলতি দায়িত্ব  প্রদান বলা হয়। এ অবস্থায় ওই কর্মচারী যে দায়িত্ব পালন করেন সেটি চলতি দায়িত্ব। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্মচারীকে তার বর্তমান মূল পদের দায়িত্ব সম্পূর্ণ পরিত্যাগ করে  বদলিকৃত উচ্চপদের দায়িত্ব গ্রহণ করতে হয়। চলতি দায়িত্ব নতুন পদে স্বাভাবিক বদলির মতো। এই দায়িত্ব অনেকটা পদোন্নতির তুল্য। কারণ, চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারীকে সাধারণ অবস্থায় পুনরায় নিম্নপদে ফেরত যেতে হয় না। চলতি দায়িত্ব থেকে পদোন্নতি প্রদান করা হয়। তবে কোনো বিশেষ কারণে সরকার যে-কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারে। এটি অন্য বিষয়। যেমন: করিম সাহেব অতিরিক্ত সচিব। তাকে একটি মন্ত্রণালয়ে সচিব পদে চলতি দায়িত্ব প্রদান করা হলো। তার মানে তাকে আর অতিরিক্ত সচিব পদে ফিরে যেতে হবে না।   চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারীদের পাশে চ.দা লেখা দেখা যায়। যমন:
 
সচিব
আবদুল করিম (চ.দা)
 
 
ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব:  কোনো সরকারি কর্মচারী যে পদে অধিষ্ঠিত সে পদের চেয়ে উঁচুমর্যাদার পদে দয়িত্ব পালনের নির্দেশ পেলে তাকে ওই পদের জন্য ভারপ্রাপ্ত বলা হয়। ভারপ্রাপ্ত ও চলতি দায়িত্বের পার্থক্য আছে। যেমন: ভারপ্রাপ্ত কর্মচারী উচ্চপদের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাওয়ার পর  মূল  পদে ফিরে যাবে। কিন্তু চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারী পূর্বতন নিম্নপদে ফেরত যাবে না। যেমন: স্বপ্নপুর সরকারি কলেজের  অধ্যক্ষ রজব আলী মারা যাওয়ার পর নির্ধারিত বিধিমতে ওই কলেজের উপাধ্যক্ষ  তুষার বাবু ষোলো দিন অধ্যক্ষের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করলেন। এরপর সরকার তুষার বাবুকে  ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগ করল। চার মাস পর জনাব মামুন আলী অধ্যক্ষ পদে যোগদানের পর তুষার বাবু পুনরায় তার পূর্বতন উপাধ্যক্ষ পদে ফিরে গেলেন। ভারপ্রাপ্তদের পাশে ভা.প্রা লেখা দেখা যায়। যেমন:
 
অধ্যক্ষ
তুষার কান্তি ঘোষ (ভা.প্রা) 

অতিরিক্ত দায়িত্ব:  কোনো সরকারি কর্মচারী বর্তমানে যে পদে অধিষ্ঠিত সেই পদে অধিষ্ঠিত রেখে সাময়িকভাবে অন্যকোনো পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদান করা হলে হলে সেটি অতিরিক্ত দায়িত্ব। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্মচারী বর্তমান পদে বা দায়িত্বে বহাল থেকে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করেন। অতিরিক্ত দায়িত্ব সমপদর্যাদা কিংবা নিম্ন বা উচ্চ পদমর্যাদা যে-কোনো একটি হতে পারে। যেমন: করিম সাহেব পরিচালক। তিনি ছুটিতে যাওয়ায় মহাপরিচালক আলম সাহেব নিজ পদে অধিষ্ঠিত থেকে পরিচালকের দায়িত্ব পেলেন। এই দায়িত্ব অতিরিক্ত দায়িত্ব। কিছুদিন পর মহাপরিচালক আলম সাহেব ছুটিতে গেলেন। পরিচালক করিম সাহেব তার নিজ দায়িত্বে অধিষ্ঠিত থেকে মহাপরিচালকের দায়িত্ব পেলেন। এটি অতিরিক্ত দায়িত্ব। অশোক দেবনাথ চৌগাছার এবং নাজমুল ঝিকরগাছার উপজেলা নির্বাহী অফিসার। অশোক ছুটিতে যাওয়ায় ঝিকরগাছার উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুলকে ওই উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদে বহাল রেখে চৌগাছা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্ব প্রদান করা হলো।  এটি তার অতিরিক্ত দায়িত্ব।  উঁচুপদে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারীর নামের পাশে অ.দা দেখা যায়। তবে নিচু বা সমপদের ক্ষেত্রে তা সাধারণত দেখা যায় না। যেমন:
 
মহাপরিচালক
আবদুল করিম (অ.দা)

অতিরিক্ত দায়িত্ব বনাম চলিত দায়িত্ব ও ভারপ্রাপ্ত : সংজ্ঞার্থ বিধিবিধান ও পরিপত্র

সরকারি কর্মচারীদের অতিরিক্ত বা চলতি দায়িত্ব পালনের জন্য কার্যভার প্রদান সংক্রান্ত পরিপত্রে বলা হয়েছে, ‘মন্ত্রণালয়, বিভাগ, দপ্তর বা অধীনস্থ অফিসমূহে প্রায়শ কিছু পদ শূন্য থাকতে দেখা যায়। শূন্য পদসমূহ নতুন নিয়োগ পর্যন্ত শূন্য রাখা জনস্বার্থে সমীচীন নয়। এজন্য সরকারি কর্মচারীকে নিজস্ব পদের পাশাপাশি অন্য পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব/চলতি দায়িত্ব প্রদানের বিধান রয়েছে। এ জন্য অর্থ বিভাগ থেকে কার্যভার ভাতাও প্রদান করা হয়। এই কার্যভার প্রদানের ক্ষেত্রে ১০টি শর্ত মেনে চলতে হবে। প্রসঙ্গত,  এই  পরিপত্রের মাধ্যমে একইসঙ্গে অর্থ বিভাগ জারিকৃত কার্যভার ভাতা প্রদান সম্পর্কিত অন্যান্য অফিস স্মারক/পরিপত্র/প্রজ্ঞাপন এই পরিপত্র জারির পর বাতিল করা হয়েছে।

আরোপিত শর্তের মধ্যে রয়েছে, কার্যভার ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত বা চলতি দায়িত্ব প্রদানের তারিখ উল্লেখপূর্বক উপযুক্ত কর্তৃপক্ষকে অফিস আদেশ জারি করতে হবে। একজন কর্মচারী যে পদে কর্মরত তার সমপদে অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদান করা যাবে। তবে, নিজ পদের চেয়ে নিম্ন -পদে অথবা তৃতীয় কোনো পদের দায়িত্ব প্রদান করা হলে কোনো কার্যভার ভাতা প্রাপ্য হবে না। একজন কর্মচারিকে নিম্নপদের চেয়ে উচ্চতর পদে চলতি দায়িত্ব প্রদান করা হলে তিনি কার্যভার ভাতা প্রাপ্য হবেন।

পরিপত্রে আরো বলা হয়েছে, কোনো কর্মচারীকে নিজ পদের চেয়ে নিম্নপদে অথবা একসঙ্গে একাধিক পদে চলতি দায়িত্ব প্রদান করা যাবে না। নতুন সৃষ্ট পদে কোনো কর্মচারীকে পদায়ন না করে ওই পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব বা চলতি দায়িত্ব প্রদান করা হলে তিনি কার্যভার ভাতা প্রাপ্য হবেন না। অতিরিক্ত বা চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত পদে তিন সপ্তাহের কম সময়ের জন্য দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্মচারী কেনো কার্যভার ভাতা প্রাপ্য হবে না।

অতিরিক্ত দায়িত্বের স্থায়িত্ব ছয় মাসের অধিক হলে ছয় মাস অতিক্রমের পূর্বে অর্থ বিভাগে সম্মতির জন্য প্রেরণ করতে হবে। চলতি দায়িত্ব পালনকালীন পুরো সময়ের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মচারী কার্যভার ভাতা প্রাপ্য হবেন। অতিরিক্ত বা চলতি দায়িত্ব পালনের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারী চাকরি (বেতন ও ভাতাদি) আদেশ, ২০১৫ এর অনুচ্ছেদ ২২ অনুযায়ী কার্যভার ভাতা পাবেন।

অতিরিক্ত দায়িত্ব বনাম চলিত দায়িত্ব ও ভারপ্রাপ্ত : সংজ্ঞার্থ বিধিবাধান ও পরিপত্র

শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com

 

error: Content is protected !!