অপারেশন রুম: অপারেশন থিয়েটার কেন

ড. মোহাম্মদ আমীন
অপারেশন রুম: অপারেশন থিয়েটার কেন
সংযোগ: https://draminbd.com/অপারেশন-রুম-অপারেশন-থিয়ে/

ইংরেজি অপারেশন (operation) এবং ফরাসি থিয়েটার (theatre) মিলে ‘অপারেশন থিয়েটার’। এর শাব্দিক অর্থ এমন একটি থিয়েটার যেখানে অপারেশন করা হয় এবং তা থিয়েটার নামের কক্ষের আদলে সজ্জিত ও বিন্যস্ত আসনে বসে নাটক পালা প্রভৃতির মতো উপভোগ করা যায়। আলোচ্য ‘অপারেশন থিয়েটার’ কথায় বর্ণিত অপারেশন অর্থ (বিশেষ্যে)— শল্যচিকিৎসা বা অস্ত্রোপচার। তবে বিশেষ অভিযান বা তৎপরতা ও ক্রিয়াকলাপ অর্থেও শব্দটির প্রয়োগ আছে। এটি আমাদের আলোচ্য বিষয় নয়।  অন্যদিকে, ‘অপারেশন থিয়েটার’ কথায় বর্ণিত থিয়েটার অর্থ (বিশেষ্যে)— যে গৃহে নাটক পালা প্রভৃতি অভিনয় করে উপস্থাপন করা হয়; নাট্যশালা, রঙ্গালয়, অভিনয় গৃহ প্রভৃতি।
অর্থাৎ, থিয়েটার এমন একটি গৃহ যেখানে দর্শকবৃন্দ সাধারণত অর্ধবৃত্তাকারে বা প্রায় বৃত্তাকারে বা উপযুক্ত উপায়ে  নির্মিত, সজ্জিত ও বিন্যস্ত চেয়ারে বসে মাঝখানে স্থাপিত মঞ্চে পরিবেশিত নাটক পালা প্রভৃতি উপভোগ করে। থিয়েটারে বসার আসনসমূহ এমনভাবে সাজানো থাকে যাতে মঞ্চে পরিবেশিত নাটক পালা প্রভৃতি উপস্থিত দর্শকগণ কোনোরূপ প্রতিবন্ধকতা ছাড়া  সহজে ভালোভাবে দেখতে পায়।
খ্রিষ্টপূর্বকালে যখন অপারেশন বা শল্যচিকিৎসা শুরু হয় তখন থেকে বিংশ শতকের মাঝামাঝি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পর্যন্ত পৃথিবীর বিভিন্ন চিকিৎসাকেন্দ্রে স্থাপিত অপারেশন রুমের আসনসমূহকে অবিকল থিয়েটারের মতো সজ্জিত করা হতো যাতে ডাক্তারও নার্সরা নিরাপদ দূরত্বে বসে সম্পাদনীয় অপারেশন দেখে জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারে। চিকিৎসক ছাড়াও বিশেষ ব্যক্তিবর্গ বা আগ্রহী সাধারণ জনগণ অর্থের বিনিময়ে বা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের অনুমতিসাপেক্ষে অপারেশন করার জন্য থিয়েটারের মতো করে নির্মিত কক্ষে নাটক দেখার মতো অপারেশন উপভোগ করার সুযোগ পেত। 
গ্রিক সার্জনগণ প্রথম শল্যচিকিৎসা-বিষয়ক প্রশিক্ষণের জন্য আধা-প্রশিক্ষণালয় চালু করে। এর নাম ছিল অ্যাসকালপিয়া (Asklpieia)।  রোমান সাম্রজ্যের প্রথম সম্রাট আউগুস্তুস (২৩শে সেপ্টেম্বর, ৬৩ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ – ১৯শে আগস্ট, ১৪ খ্রিষ্টাব্দ) সর্বপ্রথম তার সেনাবাহিনীতে পূর্ণাঙ্গ আধুনিক পদ্ধতির মেডিক্যাল কোর গঠন করে শল্যবিদ্যসংক্রান্ত প্রশিক্ষণের জন্য পূর্ণাঙ্গ স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। শল্যচিকিৎসার প্রতিষ্ঠানসমূহে শিক্ষার্থীদের বসার জন্য  থিয়েটারের মতো আসন বিন্যাস করা হয়। অপারেশন হতো মাঝখানে।  শিক্ষার্থীগণ অনতিদূরে অর্ধবৃত্তাকার বা প্রায় বৃত্তাকার কিংবা উপযুক্ত উপায়ে বিন্যস্ত আসনসমূহে বসে তা পর্যবেক্ষণ করত। সামরিক প্রশাসনের আওতায় পরিচালিত এসব শল্যচিকিৎসার রুমে চিকিৎসক, নার্স এবং বিশেষ মর্যাদাসম্পন্ন ব্যক্তিবর্গ ছাড়া আর কাউকে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হতো না।
কয়েক বছর পর শল্যবিদ্যালয় বেসামরিক ক্ষেত্রেও চালু হয়ে যায়।  পৃথিবীর সর্বত্র শল্যচিকিৎসা দ্রুত  ছড়িয়ে পড়ে। অপারেশন কক্ষগুলো রোমান আদলে অবিকল থিয়েটার রুমের মতো সজ্জিত করা হতো যাতে ডাক্তার ও নার্সগণ নিরাপদ দূরত্বে বসে  অপারেশন দেখে জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারে। পরবর্তীকালে  চিকিৎসক, নার্স ও  বিশেষ ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও অর্থের বিনিময়ে কিংবা বিনামূল্যে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে সীমিত সংখ্যক আগ্রহী সাধারণ জনগণকেও থিয়েটারের মতো করে নির্মিত কক্ষে নাটক দেখার মতো অপারেশন দেখার সুযোগ প্রদানের রেওয়াজ চালু হয়।  অপারেশন উপভোগ করা ছিল একদিকে রোমাঞ্চ এবং অন্যদিকে মর্যাদার প্রতীক। যারা এ সুযোগ পেত তারা বলত, অপারেশন থিয়েটারে যাচ্ছে। এই সুবাদে অপারেশন কক্ষের নাম হয়ে যায় অপারেশন থিয়েটার।
খ্রিষ্টপূর্ব ১২০০ অব্দে নিউলিথিক যুগে প্রথম অপারেশন চিকিৎসা অনুষ্ঠিত হওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়।  দক্ষিণ আফ্রিকায় খ্রিষ্টপূর্ব ২০০০ অব্দে, ফ্রান্সে খ্রিষ্টপূর্ব ৫১০০ অব্দে এবং মিশরে খ্রিষ্টপূর্ব ৮০০০ অব্দে শল্যচিকিৎসা হতো- প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণায় এমন প্রমাণ পাওয়া গেছে। বাল্মিকী রচিত রামায়ণ মহাকাব্যেও খ্রিষ্টপূর্ব ৪০০ অব্দে শল্যচিকিৎসার বর্ণনা রয়েছে। বৌদ্ধগ্রন্থ ধম্মপাদও শল্যচিকিৎসার সাক্ষ্য বিদ্যমান। প্রসঙ্গত, চায়না শল্যচিকিৎসক (Hua Tuo) খ্রিষ্টপূর্ব ১৯০ অব্দে প্রথম অ্যানেসথেসিয়া ব্যবহার করেন।  মুসলিম চিকিৎস   আল রাজি  (865-925 AD) সর্বপ্রথম তখনকার বিবেচনায় অত্যাধুনিক শল্যচিকিৎসা ব্যবস্থার প্রবর্তক হিসেবে খ্যাত।  তার এই  চিকিৎসা ব্যবস্থা ছিল রোমান উদ্ভাবিত ব্যবস্থার চেয়ে অনেক উন্নত। তিনিই শল্যচিকিৎসার জন্য সুবৃহৎ পরিসরে সর্বপ্রথম রাজকীয় হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেন।
জানা অজানা অনেক মজার বিষয়: https://draminbd.com/…
শুবাচ গ্রুপের সংযোগ: www.draminbd.com
শুবাচ যযাতি/পোস্ট সংযোগ: http://subachbd.com/
error: Content is protected !!