অভিধানে বর্ণানুক্রম: অভিধানে বর্ণমালার ক্রম

ড. মোহাম্মদ আমীন
বাংলা বর্ণমালা পরপর যেভাবে সজ্জিত থাকে তাকে সাধারণ বর্ণানুক্রম বা বর্ণমালাক্রম বা শুধু বর্ণক্রম বলা হয়। এই বর্ণক্রম নিম্নরূপ:
 
অ আ ই ঈ
উ ঊ ঋ
এ ঐ ও ঔ
ক খ গ ঘ ঙ
চ ছ জ ঝ ঞ
ট ঠ ড ঢ ণ
ত থ দ ধ ন
প ফ ব ভ ম
য র ল শ ষ
স হ ড় ঢ় য়
ৎ ং ঃ ঁ
অভিধানের বর্ণনুক্রম সাধারণ বর্ণানুক্রমের চেয়ে কিছুটা ভিন্ন। অভিধানে যেভাবে বর্ণমালার ক্রম বিন্যস্ত করা হয় তাকে আভিধানিক বর্ণক্রম বলা হয়। যেসব শব্দের বানান ‘অ’ দিয়ে শুরু অভিধানে সে শব্দগুলো সাধারণ বর্ণক্রমের মতো আগে থাকে। এরপর ক্রমান্বয়ে আসে ‘আ ই ঈ উ ঊ ঋ এ ঐ ও ঔ।ব্যঞ্জনধ্বনির ক্ষেত্রে প্রতিটি ব্যঞ্জনের সঙ্গে া ি ী ু ূ ৃ ে ৈ ো ৌ প্রভৃতি চিহ্ন সাধারণ বর্ণক্রম অনুসারে যুক্ত হয়ে পরপর  সাজানো থাকে। তবে আভিধানিক বর্ণানুক্রম বা আভিধানিক বর্ণক্রম সাধারণ বর্ণানুক্রমের চেয়ে কিছুটা ভিন্ন। নিম্নে অভিধানে অন্তর্ভুক্ত শব্দের বর্ণানুক্রম দেওয়া হলো:
অ আ ই ঈ
উ ঊ ঋ
এ ঐ ও ঔ ( ং ঃ ঁ)
ক (ক্ষ) খ গ ঘ ঙ
চ ছ জ ঝ ঞ
ট ঠ ড (ড়) ঢ (ঢ়) ণ
ত (ৎ) থ দ ধ ন
প ফ ব ভ ম
য (য়) র ল শ ষ স হ
——————

All Link

বিসিএস প্রিলি থেকে ভাইভা কৃতকার্য কৌশল

ড. মোহাম্মদ আমীনের লেখা বইয়ের তালিকা

বাংলা সাহিত্যবিষয়ক লিংক

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/২

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন /৩

কীভাবে হলো দেশের নাম

ইউরোপ মহাদেশ : ইতিহাস ও নামকরণ লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

দৈনন্দিন বিজ্ঞান লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

কীভাবে হলো দেশের নাম

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

বাংলাদেশের তারিখ

ব্যাবহারিক বাংলা বানান সমগ্র : পাঞ্জেরী পবিলেকশন্স লি.

শুদ্ধ বানান চর্চা প্রমিত বাংলা বানান বিধি : বানান শেখার বই

কি না  বনাম কিনা এবং না কি বনাম নাকি

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

ভূ ভূমি ভূগোল ভূতল ভূলোক কিন্তু ত্রিভুবন : ত্রিভুবনের প্রিয় মোহাম্মদ

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

প্রশাসনিক প্রাশাসনিক  ও সমসাময়িক ও সামসময়িক

বিবিধ এবং হযবরল : জ্ঞান কোষ

error: Content is protected !!