আমজনতার আম বঁধু বধূ: স্বদেশি না কি স্বদেশী

ড. মোহাম্মদ আমীন

স্বদেশি না কি স্বদেশী

“কোন বানানটি ঠিক: দেশি, না দেশী।
স্বদেশী বানানে ‘ ী’ কার। আর বিদেশি বানানে ‘শি’ কেন?
উত্তর: বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, দেশি বানানই একমাত্র প্রমিত। স্বদেশি বানানে শী নয়, শি। যদি কেউ স্বদেশী বানান লিখে থাকেন তা ভুল। বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, এই প্রসঙ্গে একমাত্র শুদ্ধ বানান স্বদেশি। তবে ঈয় প্রত্যয় যুক্ত হলে স্বদেশীয় (স্বদেশ+ঈয়) হয়ে যায়।

বঁধু বধূ অর্থ কী?

‘বঁধু‘ আর ‘বধূ’ দুটি ভিন্ন শব্দ। যেমন: বানানে তেমন উচ্চারণে। নাসিক্য-ধ্বনি বাদ দিলে উভয় শব্দের উচ্চারণে কোনো পার্থক্য থাকে না। তাই অনেকে শব্দদ্বয়ের অর্থ ও ব্যবহার গুলিয়ে ফেলেন।
বঁধু: সংস্কৃত বন্ধু থেকে উদ্ভূত খাঁটি বাংলা শব্দ বঁধু। এর অর্থ বন্ধু, প্রণয়ী, প্রেমিকা, প্রিয়।
বধূ: তৎসম বধূ অর্থ পত্নী, নতুন বউ, কনে, নববিবাহিতা পত্নী, কুলবালা (কুলবধূ), পুত্রবধূ, পুত্রবধূস্থানীয়া নারী, নারী। বধূ কোন আলো লাগলো চোখে– রবীন্দ্রনাথ।
আইন, ধর্মীয় বা সামাজিক রীতি-নীতি মোতাবেক বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত
‘বঁধু’ কিন্তু ‘বধূ’ হয় না।
প্রয়োগ: বঁধু আমার বধূ হলো এক জনমের প্রেমে
সুখ-শান্তি, হাসি-আহ্লাদ সবই গেল থেমে।

আমজনতার আম

আরবি আম অর্থ সাধারণ এবং সংস্কৃত জনতা অর্থ জনগণ, জনসাধারণ। সুতরাং, আমজনতা অর্থ সাধারণ জনগণ। আমজনতার আম সংস্কৃত আম্র থেকে উদ্ভূত খাঁটি বাংলা আম; আম্র বা চূত (mango) নয়। তবু ‘আমজনতা’ শব্দটিকে অনেকে রসিকতা করে বলেন ‘ম্যাঙ্গো পিপল’। আমজনতার মূল শব্দ ‘জনতা’ এবং ‘আম’ হচ্ছে উপসর্গ।
‘আম’ বিদেশি উপসর্গ; আরও পরিষ্কার করে বললে আরবি উপসর্গ। ‘জনতা’ শব্দের পূর্বে ‘আম’ উপসর্গ যুক্ত হয়ে যে অর্থ প্রকাশ করে তা হচ্ছে, সাধারণ জনতা। এরূপ: আমদরবার, আমমোক্তার, আমআদমি, আমচাহিদা, আমদাবি, আমনেতা, আমদল প্রভৃতি।
‘আম’ বাংলায় উপসর্গ হলেও আরবিতে মূল শব্দ হিসাবে ব্যবহৃত হয়। عام অর্থ সাধারণ। বহুবচনে ‘আওয়াম’। ইয়া প্রত্যয় যুক্ত হয়ে এটি শব্দের অর্থকে আরও সুনির্দিষ্ট করে। ইয়া, ‘আমি’ অর্থে ব্যবহৃত হয়। কখনো জাতি অর্থেও ব্যবহৃত হয়। যেমন: ‘সাউদিয়া’ শব্দ দিয়ে একটি জাতি বুঝায়, এখানে ‘সাউদ’ শব্দের সঙ্গে ‘ইয়া’ যুক্ত হয়েছে। তেমনি ইয়েমেনি, আওয়ামি প্রভৃতি আওয়াম শব্দকে জনতার সঙ্গে আরও নিবিড় করেছে।
————————————

All Link : শুবাচে প্রকাশিতগুরুত্বপূর্ণ লেখা

উপর বনাম ওপর

বিসিএস প্রিলি থেকে ভাইভা কৃতকার্য কৌশল

ড. মোহাম্মদ আমীনের লেখা বইয়ের তালিকা

বাংলা সাহিত্যবিষয়ক লিংক

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/২

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন /৩

কীভাবে হলো দেশের নাম

ইউরোপ মহাদেশ : ইতিহাস ও নামকরণ লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

দৈনন্দিন বিজ্ঞান লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

কীভাবে হলো দেশের নাম

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

বাংলাদেশের তারিখ

ব্যাবহারিক বাংলা বানান সমগ্র, ড. মোহাম্মদ আমীন, পাঞ্জেরী পবিলেকশন্স লি.

শুদ্ধ বানান চর্চা প্রমিত বাংলা বানান বিধি : বানান শেখার বই

কি না  বনাম কিনা এবং না কি বনাম নাকি

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

ভূ ভূমি ভূগোল ভূতল ভূলোক কিন্তু ত্রিভুবন : ত্রিভুবনের প্রিয় মোহাম্মদ

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

প্রশাসনিক প্রাশাসনিক  ও সমসাময়িক ও সামসময়িক

বিবিধ এবং হযবরল : জ্ঞান কোষ

সেবা কিন্তু পরিষেবা কেন

ভাষা নদীর মতো নয় প্রকৃতির মতো

এককথায় প্রকাশ

শব্দের বানানে অভিধানের ভূমিকা

আফসোস নিয়ে আফসোস

লক্ষ বনাম লক্ষ্য : বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন

error: Content is protected !!