আমার সোনার বাংলা গান ও জাতীয় সংগীত

আমার সোনার বাংলা গান রচনা
১৯০৫ খ্রিষ্টাব্দের বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে বঙ্গভঙ্গ আন্দোলন রদ করার লক্ষ্যে “আমার সোনার বাংলা” গানটি রচিত হয়েছিল। গানটির পাণ্ডুলিপি পাওয়া যায়নি, তাই এর সঠিক রচনাকাল জানা যায় না।

আমার সোনার বাংলা গান প্রথম গীত
সত্যেন রায়ের মতে, ১৯০৫ খ্রিষ্টাব্দের ৭ই অগাস্ট কলকাতার টাউন হলে আয়োজিত একটি প্রতিবাদ সভায় এই গানটি প্রথম গাওয়া হয়। বিশিষ্ট রবীন্দ্রজীবনীকার প্রশান্তকুমার পালের মতে, আমার সোনার বাংলা ১৯০৫ খ্রিষ্টাব্দের ২৫ শে অগাস্ট কলকাতার টাউন হলে ‘অবস্থা ও ব্যবস্থা’ প্রবন্ধ পাঠের আসরে প্রথম গীত হয়েছিল।
আমার সোনার বাংলা গানের প্রথম প্রকাশ
১৯০৫ খ্রিষ্টাব্দের ৭ই সেপ্টেম্বর (১৩১২ বঙ্গাব্দের ২২ ভাদ্র) সঞ্জীবনী পত্রিকায় রবীন্দ্রনাথের স্বাক্ষরে গানটি মুদ্রিত হয়। একই বছর ১৯০৫ খ্রিষ্টাব্দ মোতাবেক ১৩১২ বঙ্গাব্দের ‘বঙ্গদর্শন’ পত্রিকার আশ্বিন সংখ্যাতেও গানটি মুদ্রিত হয়েছিল।
আমার সোনার বাংলার সুর
আমার সোনার বাংলা গানটি রচিত হয়েছিল শিলাইদহের ডাক-পিয়ন গগন হরকরা রচিত আমি কোথায় পাব তারে আমার মনের মানুষ যে রে গানটির সুরের অনুষঙ্গে।

জাতীয় পতাকা

জাতীয় পতাকা বিধিমালা

জাতীয় সংগীত

জাতীয় সংগীত

Language
error: Content is protected !!