আমিন আমিনি ঘুসকি গুপ্তবেশ্যা চেরনদাঁতি চিরনদাঁতি বগল কাঁখতলি

ড. মোহাম্মদ আমীন
সংযোগ: https://draminbd.com/আমিন-আমিনি-ঘুসকি-গুপ্তবে/
আমিন আমিনি: আমিন আরবি উৎসের শব্দে। এর অর্থ (বিশেষ্যে): যে ব্যক্তি জমি জরিপ ও পরিমাপ করে, তত্ত্বাবধায়ক; বিশেষণে আমিন শব্দের অর্থ: সত্যবাদী; অব্যয়ে আমিন শব্দের অর্থ: “প্রার্থনা পূর্ণ হোক” এমন উক্তি। আমিনি ফারসি উৎসের শব্দে। এর অর্থ (বিশেষ্যে) জমি জরিপের কাজ। আমিন ও আমিনি অতৎসম শব্দ। তাই বানানে ই-কার। অতৎসম শব্দের বানানে সাধারণত ঈ-কার হয় না। প্রশ্ন করতে পারেন, আমার নামে কেন ঈ-কার? এটি ব্যক্তিনাম। ব্যক্তিনামের আভিধানিক অর্থ গ্রাহ্য নয়। তাই এর কোনো অনুবাদ হয় না। ব্যক্তিকে অদ্বিতীয়ভাবে চিহ্নিত করাই নামের উদ্দেশ্য। https://draminbd.com/আমিন-আমিনি-ঘুসকি-গুপ্তবে/
ঘুসকি: গুপ্তবেশ্যা: নিজের বাড়িতে থেকে গোপনে পর পুরুষগামিনী নারীকে ‘ঘুসকি’ বলা হয়। মনে করা হয় ‘ঘুস’ থেকে ঘুসকি। ঘুসকি শব্দের প্রতিশব্দ ‘গুপ্তবেশ্যা’।
“খানকি ঘুসকি ও গেরস্ত মেয়েদের ম্যালা লেগে গ্যালো।” হুতোম প্যাঁচার নকশা, কালীপ্রসন্ন সিংহ।
চেরনদাঁতি ও চিরনদাঁতি: চিরুনি থেকে চেরন এবং তার সঙ্গে দাঁতি (দাঁত+ই) যুক্ত হয়ে গঠিত হয়েছে চেরনদাঁতি (চেরন+দাঁতি)। বিশ্বনাথ জোয়ারদারের অচলন্তিকা মতে, যে নারীর দাঁত চিরুনির দাড়ার মতো মতো ফাঁক ফাঁক তাকে চেরনদাঁতি বলা হয়। ওই অভিধান মতে, চেরনদাঁতি বিশেষ্য। 
“মাগী যে টেরাচোকী, খাঁদানাকী, চেরনদাঁতি, উঁচকপালী. . .।”— বুড়ো বাঁদর, অতুলচন্দ্র মিত্র
বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধান মতে, বাংলা বা দেশি চিরনদাঁতি অর্থ— চিরুনির মতো ফাঁক ফাঁক সরু দাঁতবিশিষ্ট। এই অভিধান মতে,  চিরনদাঁতি এটি বিশেষণ।
উচকপালী চিরুণদাঁতির কথা প্রকাশ হয়ে পড়েব— কাজী নজরুল ইসলাম
বগল: কাঁখতলি:বগল কী খাঁটি বাংলা বা দেশি শব্দ? না। বগল খাঁটি বাংলা শব্দও নয়, দেশি শব্দও নয়। বগল ফারসি উৎসের শব্দ। এর অর্থ (বিশেষ্যে) বাহুমূলের নিম্নদেশ, বক্ষতল, armpit। বগল শব্দের বাংলা বা দেশি রূপ হলো ‘কাঁখতলি’।
জানা অজানা অনেক মজার বিষয়: https://draminbd.com/?s=অজানা+অনেক+মজার+বিষয়
শুবাচ গ্রুপের সংযোগ: www.draminbd.com
শুবাচ যযাতি/পোস্ট সংযোগ: http://subachbd.com/
আমি শুবাচ থেকে বলছি
Language
error: Content is protected !!