উপকরণ ও উপাদান

ড. মোহাম্মদ আমীন

বাংলা একাডেমি ব্যবহারিক বাংলা অভিধানে শব্দ দুটোর অর্থ অভিন্ন দেখালেও ‘উপকরণ’ ও ‘উপাদান’ শব্দের প্রায়োগিক অর্থ কিছুটা ভিন্ন। সাধারণত যৌগিক পদার্থের জন্য উপাদান এবং মিশ্রনের জন্য উপকরণ ব্যবহার করা হয়। যে সকল পদার্থ দিয়ে কোন মিশ্রণ, খাদ্য-দ্রব্য বা মিশ্রণজাতীয় কিছু প্রস্তুত করা হয়, সে সকল দ্রব্য ঐ নির্দিষ্ট মিশ্রণের উপকরণ। কোনও মিশ্রণ যে সকল বস্তুর সংযোগে গঠিত হয় সেগুলোকে ঐ মিশ্রনের উপকরণ বলা হয়। যেমন : পানি, চিনি, গুড়, লেবুররস দিয়ে মা শরবত বানালেন। এখানে পানি, চিনি, গুড় ও লেবুর রস শরবতের উপকরণ। এ উপকরণের পরিমাণ ব্যক্তি, সময় ও প্রয়োজনবিশেষে ভিন্ন হতে পারে। আর একটা উদাহরণ দেখুন : পিঁয়াজ, রসুন, হলুদ, আদা, মরিচ, লবণ, আলু, ডাল প্রভৃতি দিয়ে মা একটি মজার রেসিপি রান্না করেছেন। এ উপকরণসমূহ সবসময় অভিন্ন না-থাকলেও চলে। কোনও অভিন্ন মিশ্রণ, রেসিপি বা মিশ্রণজাতীয় কিছু তৈরিতে উপকরণাদির সংখ্যা ও পরিমাণ কম-বেশি হয়।

যৌগিক পদার্থ যে সকল বস্তু দিয়ে গঠিত তা ঐ বস্তুর উপাদান। যেমন – পানির উপাদান হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন। পানি যে-ই বা যেখানে এবং যেভাবে প্রস্তুত করা হোক না কেন যে সকল বস্তু দিয়ে যৌগটি গঠিত সে সকল ব্স্তুর মান, সংখ্যা ও পরিমাণে সর্বদা সমান থাকে।

শাহজাহান চাকলাদারের মন্তব্য : উপাদান’ ও ‘উপকরণ’> প্রায় সমোচ্চারিত শব্দের অর্থ-ভিন্নতায় আমরা কৈশোরে পড়েছি ‘উপাদান’-উপকরণ, ‘উপাধান’-বালিশ। তবে বুঝতে পারছি এই সরল অর্থের বাইরেও ‘উপাদান’ ও ‘উপকরণ’-এর আরও ব্যঞ্জনা রয়েছে। কিন্তু উদাহরণ টেনে ‘শরবত’ ও ‘পানি’র গঠনকাঠামোতে মিশ্রণশৈলীর যে রূপতাত্ত্বিক বর্ণনা দেখছি, তাতে শব্ধার্থের দ্যূতি ও তার ব্যবহারের নানা কৌশলকে আবার ভাবতে হচ্ছে।

ইংরেজিতে component এবং element বলে দুটো শব্দ পাই। আপাতঃদৃষ্টিতে এই শব্দ দুটো আমাদের আলোচ্য দুটো বাংলা শব্দের মতোই জ্ঞাতি কিংবা সমার্থক। আরও একটি শব্দ আছে ingredient। এরা একই ঘরের ত্রিরত্ন।

জানবার কৌতূহল, বাংলা একাডেমির অভিধান (ইংরেজি-বাংলা)বলছে ingredient মানে উপাদান, উপকরণ নয়। উদাহরণ দিয়েছে the ingredients of an ice-cream এবং the ingredients of man’s character (পৃ:-৩৯৮)। এখেত্রে এগেুলো ‘উপাদান’, ‘উপকরণ’ নয়। যদিও শরবতের প্রশ্নে ‘উপকরণ’ বলেছেন লেখক, মাত্রার হিসেব দিয়ে। আরও একটি উদাহরণ- components of the camera lens(প্রাগুক্ত,পৃ:-১৫২)।

তাহলে, component আর ingredient–এর সাধারণ পরিচিতি পাওয়া গেল।আরও একটু ব্যাখ্যার জন্য ক’কদম এগোই। দেয়াল তৈরির জন্য ইট, বালি ও সিমেন্ট দরকার হয়। এসবকে আমরা বাড়ি তৈরির উপকরণ বলি। মিশ্রণমাত্রা সেখানে কিন্তু সুনির্দিষ্টভাবে নির্দেশিত থাকে। যেমন, ৩টা বালি, ১টা সিমেন্ট (কথ্য)। এটি খাবার নয়।

W.Geddie–এর Chambers’s Twentieth Century Dictionary প্রায় একই ইঙ্গিত করছে। element–এর অর্থ করেছে আমাদের আলোচ্য শব্দদুটোর অর্থ-ব্যঞ্জনা রক্ষা করেই। উদাহরণ- one of the essential parts of anything, ingredient and rudiments of learning, the bread and wine used in the Eucharist. (পৃ:-৩৪০-৩৪১)। এখানে element–কে ‘উপাদান’ বললেও মাঝের বাক্যটিতে ‘শিক্ষার উপকরণ’ কথাটি পাই।

সবশেষে, Penguine–এর Dictionary of Science কী বলে? element(chem.) -A substance consisting entirely of atoms of the same atomic number আর component(chem.) -কে বলছে a term in the phase rule; each of the phases ice, water, water vapour in equilibrium is composed of one component (প্রাগুক্ত পৃ:-৮৮)।

সরলার্থে তাই ‘উপাদান’ মাত্রা-নির্ভর আর ‘উপকরণ’ ঐচ্ছিক- তা তো মনে হচ্ছে না। ওই যে বললাম দেয়াল তৈরির ‘উপকরণ’ সেখানে তো ইটের সাথে বালি-সিমেন্ট ৩টা-১টাই!


গবেষণা, প্রাতিষ্ঠানিক অধ্যয়ন, মাতৃভাষা জ্ঞান, প্রাত্যহিক প্রয়োজন, শুদ্ধ বানান চর্চা এবং বিসিএস-সহ যে-কোনো প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার জন্য অতি প্রয়োজনীয় কয়েকটি লিংক :

শুবাচ লিংক

শুবাচ লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

Language
error: Content is protected !!