একুশের প্রথম সংকলন উপন্যাস আলোকচিত্র

একুশের প্রথম সংকলন
১৯৫৩ খ্রিষ্টাব্দের ২১ শে ফেব্রুয়ারি ঢাকা কলেজ ছাত্রাবাস কর্তৃক ১/৪ ডিমাই সাইজের ৪ পৃষ্ঠায় প্রকাশিত প্রচারপত্রটি একুশের প্রথম সংকলন। সংকলনটিতে আবদুল গাফফার চৌধুরীর ‘আমার ভাইয়ের রক্ত রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানটি ‘একুশের গান’ শিরোনামে প্রথম প্রকাশিত হয়। ১৯৫৩ খ্রিষ্টাব্দের মার্চ মাসে হাসান হাফিজুর রহমান স¤পাদিত ‘একুশে ফেব্রুয়ারি’ সংকলনটি একটি পূর্ণাঙ্গ সংকলন। তাই এটিকে অনেকে একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম সংকলন বলে থাকেন। ‘আমার ভাইয়ের রক্ত রাঙানো গানটি‘ এ সংকলনে দ্বিতীয়বারের মতো মুদ্রিত হয়। হাসান হাফিজুর রহমান স¤পাদিত একুশে সংকলনটি প্রকাশ করেছিলেন ‘পুথিপত্র প্রকাশনী’র পক্ষে মোহাম্মদ সুলতান। পচ্ছদ শিল্পী আমিনুল ইসলাম, রেখাঙ্কনে শিল্পী মর্তুজা বশীর। সংকলনটি প্রকাশিত হবার ২১ দিন পর সরকার বাজেয়াপ্ত করে।

পূর্ববাংলা পত্রিকার একুশে সংকলন ও দুটি বিখ্যাত কবিতা
১৯৫৩ খ্রিষ্টাব্দের ২১ শে ফেব্রুয়ার শহিদ দিবস পালন উপলক্ষ্যে প্রকাশিত ‘পূর্ব বাংলা’ পত্রিকায় প্রকাশিত ‘একুশে ফেব্রুয়ারি সংকলনে’ আবু জাফর ওবায়দুল্লাহর নামহীন ‘কুমড়ো ফুলে ফুলে নুয়ে পড়েছে লতাটা’ কবিতাটি এবং বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীরের ‘বাতাসের সোহাগে রাত এল বুনো’ কবিতাটি ‘স্মৃতি’ নামে প্রকাশিত হয়।

স্বাধীনতা আন্দোলন ও ভাষা দিবসের আলেখ্যে লেখা ব্যতিক্রমী উপন্যাস
স্বাধীনতা আন্দোলন ও ভাষা দিবসের আলেখ্যে লেখা যুগপৎ ব্যতিক্রমী উপন্যাস আহমদ ছফার ‘ওঙ্কার’। ভাষা আন্দোলন ও স্বাধীনতা দিবসের উপর এ যাবত যত উপন্যাস লেখা হয়েছে তৎমধ্যে উপমা ও গভীরতা বিবেচনায় এটি শ্রেষ্ঠতম উপন্যাস।

একুশের প্রথম আলোকচিত্র প্রদর্শন
১৯৮৬ খ্রিষ্টাব্দের ফেব্রুয়ারি মাসে শিল্পকলা একাডেমিতে আলোকচিত্র শিল্পী মনোয়ার আহমদের একক আলোকচিত্র প্রদর্শন হয়। ভাষা সৈনিক ও রাজনীতিবিদ মওলানা আবদুর রশীদ তর্কবাগীশ এ প্রদর্শন উদ্বোধন করেন।

জাতিসংঘে প্রথম বাংলা ভাষণ

error: Content is protected !!