এবি ছিদ্দিক-এর শুবাচ পোস্ট সমগ্র যযাতি সমগ্র শুদ্ধ বানান চর্চা শুবাচ ব্যাকরণ বিবিধি

 
খারাপে খারাপ সময় পার ৭৮
 
মানুষ যখন খারাপ হয়, তখন ‘খারাপ’ হয়ে যায় ‘মন্দ’। সে খারাপ মানুষকে ছেড়ে ঘড়ির আগে বসে ‘খারাপ ঘড়ি’ বানাতে পারলে এক ঝটকায় মন্দ রূপটি ছেড়ে ‘অকেজো’-তে বদলে যায়। একই ‘খারাপ’ ঘড়ির সামনে থেকে ঘড়ির সময়ের আগে গিয়ে ‘খারাপ সময়’-এ রূপ নিতে পারলে খারাপ হয়ে যায় ‘অশুভ’। খারাপ সময় লোকের ‘খারাপ অবস্থা’ সৃষ্টি করলে ‘খারাপ’ মশাইয়ের ঘাড়ে ‘দুর্দশাগ্রস্ত’ অর্থ চড়ে বসে। খারাপ অবস্থায় ‘চেহারা খারাপ’ হতে সময় নেয় না। চেহারার আগে কিংবা পিছে নিজের জায়গা খুঁজে পেলে খারাপ হয়ে যায় ‘শ্রীহীন’। চেহারার আশপাশে যুক্ত হতে পারলে শরীরের আগে যুক্ত হওয়ার লোভ থেকে খারাপকে রুখা মুশকিল হয়ে যায়। আর, শরীরের আগে কিংবা পরে যুক্ত হয়ে শরীরকে খারাপ করতে পারলেই খারাপ হয়ে যায় ‘ভঙ্গুর’ কিংবা ‘রোগা’। রোগাক্রান্ত মানুষ প্রায়ই ‘মন খারাপ’ করে বসে থাকে। মনের এই খারাপ হচ্ছে ‘বিষণ্ন’। খারাপ মহাশয় মনের বগলে নিজের জায়গা বানিয়ে নিতে পারলে দেখতে-না-দেখতে মেজাজের ডানে-বামেও বানিয়ে নেয়। তখন মেজাজকে পাশে পেয়ে খারাপ হয়ে যায় ‘রুক্ষ’। খারাপ মেজাজের মানুষ মানেই খারাপ ব্যবহারের পাত্র। ফলে খারাপবাবু মুহূর্তেই তার ‘রুক্ষ’ ভূষণটি ছেড়ে ‘অমার্জিত’ রূপে ব্যবহারের আগে জুড়ে বসে গিয়ে। খারাপ ব্যবহারের আধারই খারাপ ব্যক্তি। খারাপ ব্যক্তির অস্তিত্ব বর্তমান হলে খারাপ পথও দৃশ্যমান হয়ে যায়। তখন পথের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে খারাপের গায়ে ‘নিষিদ্ধ’ তকমা লেগে যায়। ওই খারাপ পথ ধরে চলতে শুরু করলে খারাপসব জিনিসের সঙ্গে সখ্য গড়ে উঠতে দের লাগে না। ওসব জিনিস বা দ্রব্যের আগে খারাপের জায়গা মিললে ‘সস্তা’, ‘ক্ষতিকারক’ প্রভৃতি অর্থও তার ভান্ডারে যুক্ত হয়ে যায়। খারাপ জিনিসের প্রতি আসক্তির কারণে শরীরের ‘রক্ত খারাপ’ হয়ে যায়, ‘মাথা খারাপ’ হওয়ার পালা চলে আসে। ‘খারাপ’ সাহেব ‘দূষিত’ বেশে রক্তের পাশে গেড়ে বসে কারোর মাথা খারাপ করতে পারলে তার ‘বিকৃত’ রূপটি বেরিয়ে আসে। মাথা-খারাপ ব্যক্তির কাছে ভালো-খারাপ কোনো মাইনে রাখে না— খারাপের ‘বৈরী’ অর্থকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে খারাপ আবহাওয়ায়ও সে দিব্যি পথে-বিলে গান গেয়ে বেড়ায়, রাস্তা-বিলের ময়লা পানি কিংবা কাদাতে গায়ের ‘কাপড় খারাপ’ হয়ে গেলেও ‘কাপড় নোংরা’ হয়ে যাওয়াটা তার কাছে বেমালুম রয়ে যায়। (৫ই সেপ্টেম্বর, ২০২০)
 
 
ক্রমশ
দ্রৌতিক: একটি আলংকারিক শব্দ

Language
error: Content is protected !!