কাঁক কাঁক কাক: কা-কা কাকা

ড. মোহাম্মদ আমীন
কাঁক কাঁক কাক: কা-কা কাকা
১.কাঁক: সংস্কৃত কঙ্ক থেকে উদ্ভূত কাঁক অর্থ (বিশেষ্যে)— লম্বা পা ও গলাবিশিষ্ট সাদাকালো বা ফিঁকে লাল রঙের বকজাতীয় বৃহদাকার পাখি। কাঁক তদ্ভব বা খাঁটি বাংলা শব্দ।
২. কাঁক: সংস্কৃত কক্ষ থেকে উদ্ভূত কাঁক অর্থ (বিশেষ্যে)— মানবদেহের পাঁজর ও নিতম্বের মধ্যবর্তী অংশ, কটিদেশ, কোমর, কোল, কাঁকাল; বগল। কাঁক তদ্ভব বা খাঁটি বাংলা শব্দ।
৩. কাক: তৎসম/সংস্কৃত কাক (√কৈ+ক) অর্থ (বিশেষ্যে)— লম্বা চঞ্চু ও কর্কশস্বরবিশিষ্ট কালো রঙের বড়ো পাখিবিশেষ। নিজের ডিম ভেবে কোকিলের ডিমে তা দেয় বলে এই পাখিটাকে পরভৃৎ ও পরপোষকও বলা হয়; বায়স। ইংরেজি নাম crow.
৪. কা-কা: ধ্বন্যাত্বক কা-কা অর্থ কাকের ডাক। কাক এমন স্বরে ডাকে। 
৫. কাকা: কাকা ফারসি উৎসের শব্দ। অর্থ (বিশেষ্যে) পিতার ছোটো ভাই বা তৎস্থানীয় ব্যক্তি, চাচা, পিতৃব্য।

কাকা চাচা

কাকা:বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, কাকা ফারসি শব্দ। এর অর্থ (বিশেষ্যে) পিতার ছোটো ভাই বা তৎস্থানীয় ব্যক্তি, চাচা, পিতৃব্য। স্ত্রীবাচক: কাকি। অমুসলিম সম্প্রদায়ে কাকা সম্বোধন অধিক প্রচলিত। হিন্দু সম্প্রদায় শব্দটি অধিক ব্যবহার করেন। তাই অনেকে মনে করেন, এটি সংস্কৃত শব্দ। দেখবেন, এখানেও অনেকে মন্তব্য করে বসবেন: কাকা ফারসি শব্দ নয়। ফারসি কাকা ছাড়া আমাদের আর একটি ধ্বন্যাত্মক কাকা আছে। এটি কাকের ডাক। কাকা থেকে পৃথক করার জন্য মাঝখানে হাইফেন দিয়ে লেখা হয়: কা-কা
কালো কাকটা কা-কা করে কাকার কান কানা কানা করে দিল।
চাচা: চাচা বাংলায় এসেছে সংস্কৃত হতে। সংস্কৃত তাত থেকে উদ্ভূত চাচা অর্থ (বিশেষ্যে) পিতার ছোটো ভাই, কাকা, খুড়া, পিতৃব্য, খুল্লতাত প্রভৃতি। স্ত্রীবাচক: চাচি। চাঁচা, চাচা-র আঞ্চলিক বিকৃত রূপ। মুসলিম সম্প্রদায়ে চাচা সম্বোধন অধিক প্রচলিত।
চেয়ারম্যানের চামচা চালেক চাচা চামুণ্ডার মতো চা চা করে চ্যাঁচায়।
error: Content is protected !!