কাফের মালাউন এবং ধর্মান্ধ

কাফের মালাউন এবং ধর্মান্ধ

ড. মোহাম্মদ আমীন

কাফের ও মালাউন: বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানে ‘কাফের’ শব্দের দুটি অর্থ দেওয়া হয়েছে। প্রথমটি আল্লার অস্তিত্বে অবিশ্বাসী এবং দ্বিতীয়টি নাস্তিক। প্রথম অর্থ বিবেচনা করলে দেখা যায়, আল্লাহর অস্তিত্ব যারা বিশ্বাস করেন না তারা ‘কাফের’। মুসলিম ছাড়া অন্য কোনো ধর্মানুসারীগণ আল্লাহর অস্তিত্বে বিশ্বাস করেন না। তাই তারা কাফের।পৃথিবীর মোট জনসংখ্যা ৭৬০ কোটি। তন্মধ্যে মসুলিম ১৬০ কোটি (এর মধ্যে প্রায় ৭৫ লাখ নাস্তিক/ উদারপন্থী )। এই অর্থে পৃথিবীতে কাফের ৫২০ কোটি। দ্বিতীয় অর্থ বিবেচনা করলে দেখা যায়, ‘কাফের’ শব্দের অর্থ নাস্তিক বা উদারপন্থী। সোজা কথায় প্রাতিষ্ঠানিক ধর্মে যাদের কোনো আস্থা ও বিশ্বাস নেই তারাই ‘কাফের’। এরা কারো এবাদত করেন না। পৃথিবীতে বর্তমানে ঘোষিত ও অঘোষিত কাফেরের সংখ্যা ৮০ কোটি।

বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে গালি হিসেবে ব্যবহৃত আরবি ‘মালাউন’ শব্দের অর্থ যথাক্রমে (১) অভিশপ্ত, (২) কাফের ও (৩) শয়তান। অতএব কাফেরগণও মালাউন।শয়তানও মালাউন। কিন্তু কোরআন মতে ‘কাফের’ শব্দটি আরো সুনির্দিষ্ট। সূরা আল কাফিরুন- এ বলা হয়েছে, “বলুন, হে কাফেরগণ, আমি তার এবাদত করি না, তোমরা যার এবাদত কর। তোমরাও তার এবাদতকারী নও, আমি যার এবাদত করি ।আমি তার এবাদতকারী নই, যার এবাদত তোমরা কর। তোমরা তার এবাদতকারী নও, যার এবাদত আমি করি। তোমাদের ধর্ম তোমাদের জন্য এবং আমার ধর্ম আমার জন্য।” কোরআনের এই সুরায় ‘কাফের’ শব্দটি যে অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে সে অর্থ ধরে নিলে বলতে হয়, কাফের অর্থ নাস্তিক নয়, আল্লাহর অস্তিত্বে অবিশ্বাসী বা অমুসলিম। নাস্তিকেরা কোনো প্রাতিষ্ঠানিক ধর্মে বিশ্বাসী নন, তাই তাঁরা কারো এবাদত করেন না। তবে দীর্ঘ দিন থেকে শব্দটি সাধারণ্যে তার আভিধানিক অর্থ হারিয়ে ফেলেছে। এটি এখন যত না আভিধানিক অর্থ প্রকাশে ব্যবহৃত হয়, তার চেয়ে হাজার গুণ বেশি ব্যবহৃত হয় গালি হিসেবে। এরূপ অনেক শব্দ আছে যেগুলো অভিধানে গালি না হলেও সাধারণ্যে গালি বলে মনে করা হয়; যেমন : শালা, মাগি ইত্যাদি।। অতএব কাফের শব্দটি গালি না হলেও গালি হিসেবে প্রায় প্রতিষ্ঠিত। গালি না হলেও এটা যিনি প্রয়োগ করেন এবং যার উপর প্রয়োগ করা হয় উভয়ে গালি মনে করেন।

ধর্মান্ধ: ধর্মান্ধ মানে কী? বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, তৎসম ধর্মান্ধ (ধর্ম+অন্ধ) অর্থ (বিশেষণে) কোনো ধর্মীয় মতবাদের অন্ধ অনুসারী; গোঁড়া; পরধর্মবিদ্বেষী এবং (বিশেষ্যে) কোনো ধর্মীয় মতবাদের অন্ধ অনুসারী ব্যক্তি। “ধর্মান্ধরা শোনো,/ অন্যের পাপ গনিবার আগে নিজেদের পাপ গোনো।” নজরুল

Leave a Comment

You cannot copy content of this page

poodleköpek ilanlarıankara gülüş tasarımıantika alanlarPlak alanlarantika eşya alanlarAntika mobilya alanlarAntika alan yerler
Casibomataşehir escortjojobetbetturkey