চকলেট: চকলেট শব্দের উদ্ভব তাই বনাম তা-ই

ড. মোহাম্মদ আমীন
এই পোস্টের সংযোগ: https://draminbd.com/চকলেট-চকলেট-শব্দের-উদ্ভব/ 
 
 
 
 
চকলেট
 
কোনো বিকল্প না দিয়ে প্রশ্ন করা হলো— চকলেট কোন ভাষা থেকে এসেছে? কিংবা চকলেট কোন ভাষার শব্দ?
সঠিক উত্তর— ফরাসি।
কারণ?
চকলেট শব্দটি ফরাসি  মূলে সৃষ্ট এবং  ফরাসি প্রভাবিত লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা শোকোলাটল(xocolatl) হতে উদ্ভূত।
এই বক্তব্যের উৎস কী?
বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধান।
আচ্ছা, যদি  চারটি বিকল্পের মধ্যে ফরাসি ও মেক্সিকান রেখে প্রশ্ন করা হয়— চকলেট নিচে বর্ণিত কোন উৎসের শব্দ?
সঠিক ‍উত্তর—  ফরাসি।
বিকল্প চারটি উত্তরে যদি ফরাসিকে বাদ দিয়ে বাকি তিনটির মধ্যে একটি মেক্সিকান  রেখে প্রশ্ন করা হয়— চকলেট নিচে বর্ণিত কোন উৎসের শব্দ? 
উত্তর— হবে মেক্সিকান। (সঠিক বলব না, উত্তর দিতে হবে তাই দেওয়া। এসব ক্ষেত্রে নাই মামার চেয়ে কানা মামা ভালো।)
কারণ?
শব্দটি ফরাসি মূলে ফরাসি ভাষা প্রভাবিত হলেও  জন্ম হয়েছে লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা হিসেবে বর্তমান মেক্সিকোর, তৎকালীন অ্যাজটেক সাম্রাজ্যে  নাহুয়ান  (Nahuan) বা অ্যাজটেনা (Aztecan)-ভাষীর মুখে।
 
 
১৫৫০ খ্রিষ্টাব্দের ৭ই জুলাই চকলেট প্রথম বাজারে আসে। তাই এ দিনটি চকলেট দিবস হিসেবে পালন করা হয়। তবে খ্রিষ্টপূর্ব ২০০০ অব্দ থেকে অ্যাজটেক সভ্যতা-সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের উচ্চমহলে কোকো বীজ হতে উৎপাদিত দ্রব্য  খুবই সুস্বাদু এবং নেশাজাতীয় পানি হিসেবে অভিজাত মহলের বারিত হতো। তখন এর নাম চকলেট ছিল না।
 
চকলটেন নামটির  উদ্ভব ষোড়শ শতকে মূল ফরসি হিসেবে লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কার অভ্যন্তরে। বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত চকলেট (Chocolate) ফরাসি উৎসের শব্দ।  এটি বিশেষ ধরনের সুস্বাদু তক্তি বা পানীয়। দগ্ধ বা ভুনিত (roasted) কোকো বা cacao বীজের গুঁড়োর সঙ্গে দুধ চিনি প্রভৃতি মিশিয়ে এই তক্তি বা পানীয় তৈরি করা হয়। ষোড়শ শতকে  লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা শোকালাটল (xocolatl) হতে চকলেট শব্দটির উদ্ভব। তাই বাংলা একাডেমি মতে চকলেট ফারসি উৎসের শব্দ। ইংরেজিতেও চকলেট (chocolate/Chocolate) শব্দটি ব্যবহৃত হয়।  ইংরেজরা  লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা শব্দ শোকুলাটল ( xocolatl) পেয়েছেস্প্যানিশ থেকে।  শব্দটির আদি উৎস লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা হিসেবে অ্যাজটেক সাম্রাজ্যের  বর্তমান মেক্সিকোর নাহুয়ান  (Nahuan) বা অ্যাজটেনা (Aztecan)-ভাষীর মুখে। কথাটি  ষোড়শ শতকে হতে  বলা শুরু হয়।  তাই অনেকে মনে করেন শব্দটি মেক্সিকান।  ষোড়শ শতকে স্পেন অ্যাজটেক সাম্রাজ্য দখল করে নেয়। তখন লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কার (xocolatl) শব্দটি তাদের ভাষায় যুক্ত হয়। ইংরেজিতে  এই শব্দটি চকলেট নামে পরিচিত। ইংরেজিতে  এই শব্দটি চকলেট নামে পরিচিত। ফরাসি চকলেট শব্দের মামার বাড়ি হচ্ছে মেক্সিকান।
 
 
 
তাই বনাম তা-ই
বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানে ‘তাই’ শব্দের তিনটি পৃথক ভুক্তি দেখা যায়। প্রথম ভুক্তিমতে, সংস্কৃত ‘তদ্‌’ থেকে উদ্ভূত ও বাক্যে সর্বনাম হিসেবে ব্যবহৃত ‘তাই’ শব্দের অর্থ— সেই বস্তুই, সেই কাজই এবং তাহাই শব্দের চলিত রূপ। যেমন: রাতে বিড়াল দেখল ছেলেটি, তাই দেখে ভয়ে সে অজ্ঞান। যা চাইছি তাই দিতে হবে। আমার তাই প্রয়োজন। তাই যদি না পাই তো আমার যা-ইচ্ছে তাই করব।
দ্বিতীয় ভুক্তিমতে, সংস্কৃত ‘তস্মাৎ’ থেক উদ্ভূত ও বাক্যে অব্যয় হিসেবে ব্যবহৃত ‘তাই’ শব্দের অর্থ— সুতরাং, সে জন্য। যেমন: ক্লাস ছিল, তাই যেতে পারিনি। তাই তোমারে দেখতে এলেন অনেক দিনের পর।
তৃতীয় ভুক্তিমতে, তাই শব্দের অর্থ শিশুর করতালি, হাত তালি প্রভৃতি। যেমন: তাই তাই তাই, মামার বাড়ি যাই/ মামি করছে দুভাত নাক ডুবিয়ে খাই।
তা-ই: অভিধানে তা-ই বানানের কোনো শব্দ নেই। অনেকে ‘তা-ই’ শব্দটি ‘তাহাই’ শব্দের সমার্থক হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন। আবশ্যকতা কিংবা বাধ্যবাধকতা বা জেদ, গুরুত্ব ইত্যাদি প্রকাশে ‘তাই’ এর স্থলে ‘তা-ই’ ব্যবহার করা হয়। যারা এটি ব্যবহার করেন তাদের অভিমত— জোর দেওয়ার জন্য ‘তা-ই’ ব্যবহার করা হয়। কিন্তু তা-ই শব্দটি অনাবশ্যক। তাহাই শব্দের চলিত রূপ তাই। সুতরাং, তা-ই শব্দটি নির্থক এবং অপ্রয়োজনীয়।
উদহারণ: যা চাইছি তাই (তা-ই) দিতে হবে। আমার তাই (তা-ই) প্রয়োজন। তাই যদি না পাই তো আমার যা-ইচ্ছে তাই (তা-ই )করব। এখানে তাই-এর স্থলে তা-ই লেখা সমীচীন নয়।
অতএব, লিখুন তাই।
 
 
 
শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

 

error: Content is protected !!