ছড়া: চিরায়ত ছড়া: প্রিয় ছড়া: পুরানো দিনের ছড়া, প্রাচীন কালের ছড়া: বিখ্যাত ছড়া

সংগ্রহে: মিনহা সিদ্দিকা
 
এই পেজের সংযোগ: https://draminbd.com/ছড়া-চিরায়ত-ছড়া-প্রিয়-ছড়া-প/
 
 
 
 
 
হাট্টিমা টিম টিম
সুকুমার রায় 
 
হাট্টিমা টিম টিম—
তারা মাঠে পাড়ে ডিম
তাদের খাড়া দুটো শিং
তারা হাট্টিমা টিম টিম। 
 
 
                         মজার দেশ
                    যোগীন্দ্রনাথ সরকার
 
এক যে আছে মজার দেশ, সব রকমে ভালো,
রাত্তিরেতে বেজায় রোদ, দিনে চাঁদের আলো!
       আকাশ সেথা সবুজবরণ, গাছের পাতা নীল;
       ডাঙ্গায় চরে রুই কাতলা, জলের মাঝে চিল !
 
সেই দেশেতে বেড়াল পালায়, নেংটি-ইঁদুর দেখে,
ছেলেরা খায় ক্যাস্টর-অয়েল, রসগোল্লা রেখে!
       মণ্ডা-মিঠাই তেতো সেথা, ওষুধ লাগে ভালো;
       অন্ধকারটা সাদা দেখায়, সাদা জিনিস কালো!
 
ছেলেরা সব খেলা ফেলে, বই নে বসে পড়ে;
মুখে লাগাম দিয়ে ঘোড়া, লোকের পিঠে চড়ে!
       ঘুড়ির হাতে বাঁশের লাটাই, উড়তে থাকে ছেলে;
       বড়শি দিয়ে মানুষ গাঁথে, মাছেরা ছিপ ফেলে!
 
জিলিপি সে তেড়ে এসে, কামড় দিতে চায়,
কচুরি আর রসগোল্লা ছেলে ধরে খায়!
     পায়ে ছাতি, দিয়ে লোকে হাতে হেঁটে চলে;
    ডাঙায় ভাসে নৌকা-জাহাজ, গাড়ি ছোটে জলে!
 
মজার দেশের মজার কথা বলব কত আর;
চোখ খুললে যায় না দেখা, মুদলে পরিষ্কার!
 
 
 
 
চাঁদ মামা
 
আয় আয় চাঁদ মামা, টিপ দিয়ে যা
চাঁদের কপালে চাঁদ, টিপ দিয়ে যা।
 
ধান ভানলে কুঁড়ো দেব
মাছ কাটলে মুড়ো দেব
কাল গাইয়ের দুধ দেব
দুধ খাবার বাটি দেব
চাঁদের কপালে চাঁদ, টিপ দিয়ে যা।
 
 
 
আয়রে আয় টিয়ে
 
আয়রে আয় টিয়ে
নায়ে ভরা দিয়ে,
 
না’ নিয়ে গেল বোয়াল মাছে
তাই না দেখে ভোদড় নাচে;
 
ওরে ভোদড় ফিরে চা
খোকার নাচন দেখে যা।
 
 
 
 
নোটন নোটন পায়রাগুলি
 
নোটন নোটন পায়রাগুলি
ঝোটন বেঁধেছে
ওপারেতে ছেলেমেয়ে
নাইতে নেমেছে।
 
দুই ধারে দুই রুই কাতলা
ভেসে উঠেছে
কে দেখেছে কে দেখেছে
দাদা দেখেছে
দাদার হাতে কলম ছিল
ছুঁড়ে মেরেছে
উঃ বড্ড লেগেছে!
 
 
কে মেরেছে কে ধরেছে
কে দিয়েছে গাল?
তাই তো খোকন রাগ করেছে
ভাত খায়নি কাল।
 
 
 
 
 
 
 
            খোকা ঘুমাল 
 
খোকা ঘুমাল পাড়া জুড়াল বর্গি এল দেশে
বুলবুলিতে ধান খেয়েছে, খাজনা দেব কীসে?
ধান ফুরাল, পান ফুরাল, খাজনার উপায় কী?
আর কটা দিন সবুর কর, রসুন বুনেছি।
 
 
 
 
ব্যাঙের বাসা
 
তাঁতির বাড়ি
ব্যাঙের বাসা,
কোলা ব্যাঙের ছা।
খায় দায়
গান গায়
তাই রে নাই রে না।
 
 
 
 
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর
 
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদে এল বান,
শিব ঠাকুরের বিয়ে হলো তিন কন্যা দান।
এক কন্যা রাঁধেন বাড়েন এক কন্যা খান,
এক কন্যা রাগ করে বাপের বাড়ি যান।
 
 
 
 
খোকন খোকন ডাক পাড়ি
 
খোকন খোকন ডাক পাড়ি
খোকন মোদের কার বাড়ি?
আয়রে খোকন ঘরে আয়,
দুধমাখা ভাত কাকে খায়।
 
 
 
 
 
 
বাক্ বাক্‌ কুম পায়রা
রোকনুজ্জামান খান
 
বাক্ বাক্ কুম পায়রা
মাথায় দিয়ে টায়রা
বউ সাজবে কাল কি?
চড়বে সোনার পালকি।
পালকি চলে ভিন গাঁ-
ছয় বেহারার তিন পা।
 
পায়রা ডাকে বাকুম বাক্
তিন বেহারার মাথায় টাক।
বাক্ বাকুম কুম্ বাক্ বাকুম
ছয় বেহারার নামলো ঘুম।
 
থামলো তাদের হুকুম হাঁক
পায়রা ডাকে বাকুম্ বাক্।
ছয় বেহারা হুমড়ি খায়
পায়রা উড়ে কোথায় যায়?
 
 
 
আতা গাছে তোতা পাখি
যোগীন্দ্রনাথ সরকার
 
আতা গাছে তোতা পাখি
ডালিম গাছে মউ,
এত ডাকি তবু কথা
কও না কেন বউ ?
কথা কব কী ছলে,
কথা কইতে গা জ্বলে !
 
 
 
 
 
         
 
    আম পাতা জোড়া জোড়া
 
ম পাতা জোড়া জোড়া
মারবো চাবুক চড়বো ঘোড়া
ওরে বুবু সরে দাড়া
আসছে আমার পাগলা ঘোড়া
পাগলা ঘোড়া খেপেছে
চাবুক ছুড়ে মেরেছে।
 
 
 
 
ঝুমকো জবা
ফররুখ আহমদ
ঝুমকো জবা বনের দুল
উঠল ফুটে বনের ফুল।
সবুজ পাতা ঘোমটা খোলে
ঝুমকো জবা হাওয়ায় দোলে।
সেই দুলনির তালে তালে
মন উড়ে যায় ডালে ডালে।
 
 
 
 
ইচ্ছা
আহসান হাবিব
 
মনারে মনা কোথায় যাস?
বিলের ধারে কাটব ঘাস।
ঘাস কি হবে?
বেচব কাল,
চিকন সুতোর কিনব জাল।
জাল কি হবে?
নদীর বাঁকে
মাছ ধরব ঝাঁকে ঝাঁকে।
মাছ কি হবে?
বেচব হাটে,
কিনব শাড়ি পাটে পাটে।
বোনকে দেব পাটের শাড়ি,
মাকে দেব রঙ্গিন হাঁড়ি।
 
 
 
 
 
 
 
 
হাসি
রোকনুজ্জামান খান (দাদা ভাই)
 
হাসতে না কি জানে না কেউ
কে বলেছে ভাই?
এই শোনো না কত হাসির
খবর বলে যাই।
 
খোকন হাসে ফোঁকলা দাঁতে
চাঁদ হাসে তার সাথে সাথে
কাজল বিলে শাপলা হাসে
হাসে সবুজ ঘাস।
খলসে মাছের হাসি দেখে
হাসে পাতিহাঁস।
 
টিয়ে হাসে, রাঙ্গা ঠোঁটে,
ফিঙের মুখেও হাসি ফোটে
দোয়েল কোয়েল ময়না শ্যামা
হাসতে সবাই চায়।
বোয়াল মাছের দেখলে হাসি
পিলে চমকে যায়।
 
এত হাসি দেখেও যারা
গোমড়া মুখে চায়,
তাদের দেখে প্যাঁচার মুখেও
কেবল হাসি পায়।
 
শুবাচ গ্রুপের সংযোগ: www.draminbd.com
শুবাচ যযাতি/পোস্ট সংযোগ: http://subachbd.com/
আমি শুবাচ থেকে বলছি
— — — — — — — — — — — — — — — — —
প্রতিদিন খসড়া
আমাদের টেপাভুল: অনবধানতায়
— — — — — — — — — — — — — — — — —
 
 
 
 
 
 
error: Content is protected !!