জনক : আইজাক নিউটন : বলবিদ্যার জনক : পদার্থবিদ্যার জনক

আইজাক নিউটন : বলবিদ্যার জনক , পদার্থ বিদ্যার জনক
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ এবং সবচেয়ে প্রভাবশালী বিজ্ঞানী হিসেবে খ্যাত ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী, গণিতবিদ, জ্যোতির্বিজ্ঞানী, প্রাকৃতিক দার্শনিক এবং আলকেমিস্ট স্যার আইজ্যাক নিউটন (Sir Isaac Newton)  ১৬৪৩ খ্রিষ্টাব্দের ৪ঠা জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। ১৬৮৭ খ্রিষ্টাব্দে তার বিশ্বনন্দিত গ্রন্থ “ফিলসফিয় ন্যাচারালিস প্রিন্সিপিয় ম্যাথামেটিকা” প্রকাশিত হয়। এই গ্রন্থে তিনি মহাকর্ষ এবং গতির তিনটি সূত্র বিধৃত করেন। তাঁর গবেষণার ফলে সৌরকেন্দ্রিক বিশ্ব ধারণার সব সন্দেহ দূরীভূত হয়। রৈখিক এবং কৌণিক ভরবেগের সংরক্ষণ সূত্রের মাধ্যমে তিনি বলবিজ্ঞানের ভিত্তিভূমি রচনা করেন। তাই তাঁকে বলবিদ্যার জনক বলা হয়। আলোর প্রতিফলন ও বর্ণালির আবিষ্কারে হিসেবেও তিনি খ্যাত। শব্দের দ্রুতি এবং শীতলীকরণ প্রক্রিয়া নিয়েও তিনি গবেষণা করেন। যা থেকে নিউটনের শীতলীকরণ সূত্র প্রতিষ্ঠিত হয়। নিউটন এবং লাইবনিজ প্রায় একই সঙ্গে ক্যালকুলাস নামের পরিচিত গণিতের একটি নতুন শাখার উন্নয়ন ঘটিয়েছিলেন। অবশ্য ক্যালকুলাসের প্রকৃত উদ্ভাবক কে তা নিয়ে সংশয় ও বিরোধ রয়েছে। বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং তার আ ব্রিফ হিস্টরি অফ টাইম গ্রন্থে নিউটনকে ধুরন্ধর ও মিথ্যাবাদী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। ১৭২৭ খ্রিষ্টাব্দের ২০ শে মার্চ ৮৫ বছর বয়সে তিনি মারা যান। তাকে লন্ডনের ওয়েস্টমিনিস্টার অ্যাবে-তে সমাধিস্থ করা হয়। বিজ্ঞানের ইতিহাসে কার প্রভাব সবচেয়ে বেশি এ প্রশ্ন নিয়ে ২০০৫ খ্রিষ্টাব্দে রয়েল সোসাইটি আয়োজিত এক ভোটাভুটিতে দেখা যায়, নিউটন আইনস্টাইনের চেয়ে প্রভাবশালী।
ড. মোহাম্মদ আমীন
error: Content is protected !!