জল ও পানি; জল বনাম পানি; জল ও পানির পার্থক্য

জল ও পানি; জল বনাম পানি; জল ও পানির পার্থক্য

সংযোগ: https://draminbd.com/জল-ও-পানি-জল-বনাম-পানি-জল-ও-প/

জল ও পানি দুটোই সংস্কৃতজাত শব্দ। তবু দুটোর মধ্যে পার্থক্য আছে, যেমন পার্থক্য থাকে একই দম্পতির ভিন্ন সন্তানের মধ্যে। যেমন :
(১) পানি শব্দের চেয়ে জল শব্দটি তাড়াতাড়ি লেখা যায়। যেমন : পানি= প + আ + ই + ন, কিন্তু জল খুব সহজ সরল, (জ+ল= জল)।
(২) বৃষ্টিপাত হয়, কিন্তু পানিপাত হয় না। কাব্যে জলতরঙ্গ পাওয়া যায়, কিন্তু পানিতরঙ্গ পাই না। জলেভাসা পদ্ম গান শুনেছি, কিন্তু পানিতেভাসা পদ্ম গান শুনিনি।
(৩) পানিপথে যুদ্ধ করতে হলে ভারতে যেতে হয়, কারণ ভারত ছাড়া আর কোথাও পানিপথ নেই, কিন্তু জলপথে যুদ্ধ করতে হলে ভারত না- গেলেও চলে। যেখানে সেখানে জলপথ পাওয়া যায়। জলপথে জলযান চলে, কিন্তু পানিপথে জলযান চলে না। পানিযান কেউ বলে না, সবাই বলে জলযান।
(৪) কালাপানি হয়, কিন্তু কালাজল হয় না।
(৫) জলযোগ হয়, জলবিয়োগও কিন্তু পানির যোগ বিয়োগ নেই। জলখাবার হয়, কিন্তু পানিখাবার হয় না।
(৬) মেধাবী শিক্ষার্থীদের জলপানি দেওয়া হয়, কিন্তু তাদের কখনো পানিপানি দেওয়া হয় না।
(৭) রবীন্দ্রনাথ ‘জল পড়ে পাতা নড়ে’ ছড়া লিখেছেন কিন্তু ‘পানি পড়ে পাতা নড়ে’ ছড়া লিখেননি। নজরুল লিখেছেন: এত জল ও কাজল চোখে পাষাণী আনলে বলো কে- – -।
(৮) হিন্দু-বৌদ্ধরা ‘জল’ পান করেন, কিন্তু মুসলিমরা পান করেন ‘পানি’। তবে মালপানির ক্ষেত্রে উভয়ের জবান অভিন্ন। টাকা কী আর জাত চেনে!
(৯) জলযান বললে বোঝায় জলে চলে এমন যান, কিন্তু পানিযান বলতে পানিকে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করা বোঝায়।
(১০) লালপানি, হালে পানি, দানাপানি, মালপানি, জাপানি, চাপানি, হাঁপানি, দাপানি কত কিছু আছে, কিন্তু জল নিয়ে এমন কিছু নেই।
(১১) জলাতঙ্ক রোগ আপনার হতে পারে, কিন্তু পানি-আতঙ্ক রোগ হবার কোনো সুযোগ নেই। চিকিৎসকের খাতায় ওই নামের কোনো রোগ নেই।
(১২) জল যোগ হয়, যেমন জলযোগ (হালকা খাবার) কিন্তু পানি বিয়োগ হয় না।
(১৩) জলবায়ু বললে যা বুঝায়, পানিবায়ু বলে তা বুঝানো যায় না।
(১৪) জল+আশয় = জলাশয়, কিন্তু পানিশয় হয় না। ব্যাকরণ মানবে না। তাই ধর্মনির্বিশেষে সবাই জলাশয় বলে।
(১৫) অভিধানে জল আগে। তারপর পানি। অভিধানের বাইরেও অধিকাংশ ক্ষেত্রে জল আগে থাকে। যেমন: জলখাবার, জলপানি, জলাশয়, জলাতঙ্ক। তবে ব্যতিক্রমও আছে, যেমন: পানীয়জল। পানি সাধারণত পিছে থাকে, যেমন: মালপানি, চাপানি, কাঁপানি। ব্যতিক্রমও আছে। যেমন: পানিপথ, পানিফল ইত্যাদি।
(১৬) জলঢাকা বাংলাদেশের নীলফামারী জেলার একটি উপজেলা, কিন্তু পানিঢাকা নামের কোনো উপজেলা আপনি পাবেন না।জলঢাকা নামের একটি নদীও আছে, কিন্তু পানিঢাকা নামের কোনো নদী নেই।
(১৭) জলবসন্ত, জলদস্যু, জলদেবতা, জলদোষ, জলধর, জলপট্টি, জলপাই, জলপ্রপাত, জলসাৎ,জলহস্তী, জলোচ্ছ্বাস এবং আরও কতকিছু হয়, কিন্তু পানি দিয়ে এতকিছু হয় না। তাই পানি কলসির জল, জল হচ্ছে সাগরের পানি।
(১৮) কেউ জলদূষণ বলে, পানিদূষণ বলে। পানিবাহিত রোগ, জলবাহিত রোগের চেয়ে প্রিয়।
(১৮) পানিফল খেতে পারেন কিন্তু জলফল খেতে পারবেন না।
মন্তব্য : তাহলে ‘জল’ ভালো না ‘পানি’ ভালো তো আপনারাই বলুন।
Language
error: Content is protected !!