জাম্বিয়া (Zambia)

ড. মোহাম্মদ আমীন
স্থল বেষ্ঠিত জাম্বিয়া, আফ্রিকা মহাদেশের পূর্বাঞ্চলের একটি রাষ্ট্র। এর উত্তরে কঙ্গো ও তানজানিয়া, পূর্বে মালাউয়ি, দক্ষিণ-পূর্বে মোজাম্বিক, দক্ষিণে জিম্বাবুয়ে, বতসোয়ানা ও নামিবিয়ার এবং পশ্চিমে অ্যাঙ্গোলা। জাম্বিয়ার প্রাচীন নাম নর্দান রোডেশিয়া। ১৯১১ খ্রিষ্টাব্দ থেকে দেশটি এ নামে পরিচিত হয়ে আসছিল। এর অর্থ রোডস-এর দেশ (Land of Rhodes)। সিসিল রোডস নামক কুখ্যাত এক সাউথ-আফ্রিকান ব্যবসায়ী ব্রিটিশ সরকারের রাজকীয় আদেশ নিয়ে এটি নিজের সম্পত্তির ন্যায় দখল করেছিল। ১৯৬৪ খ্রিস্টাব্দে স্বাধীনতা অর্জনের প্রাক্কালে দেশটির নাম পরিবর্তন করে জাম্বিয়া রাখা হয়। ভূখ-টির দিয়ে প্রবাহিত জাম্বেজি নদী হতে দেশটির নাম হয় জাম্বিয়া। জাম্বেজি নদী মানে ঈশ্বরের নদী।

জাম্বিয়ার মোট আয়তন ৭,৫২,৬১৮ বর্গকিলোমিটার। ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দের হিসাবমতে, মোট জনসংখ্যা ১,৬২,১২,০০০ এবং প্রতি বর্গকিলোমিটার ১৭.২ জন। আয়তন বিবেচনায় জাম্বিয়া পৃথিবীর ৩৯-তম এবং জনসংখ্যা বিবেচনায় ৬৯-তম, কিন্তু জনসংখ্যার ঘনত্ব বিবেচনায় ১৯১-তম বৃহত্তম দেশ।২০১২ খ্রিষ্টাব্দের হিসাবমতে, জাম্বিয়ার জিডিপি (পিপিপি) ৬১.৭৮৬ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং মাথাপিছু আয় ৪,১৩৩ ইউএস ডলার। মুদ্রার নাম কোয়াচা (শধিপযধ)। রাজধানী লুসাকা। সরকারিভাবে জাম্বিয়ার নাগরিকদের জাম্বিয়ান বলা হয়।

১৯৬৪ খ্রিষ্টাব্দের ২৪ অক্টোবর যুক্তরাজ্য হতে স্বাধীনতা লাভ করে। সরকারি ভাষা ইংরেজি। জাম্বিয়ার জনগণের ৮৭% খ্রিষ্টান এবং মুসলমান ১%। ভিক্টোরিয়ার জলপ্রপাতের কারণে এর আশেপাশের বন চব্বিশ ঘণ্টা বৃষ্টিপাত থাকে। লিভিংস্টোন ছিল জাম্বিয়ার প্রথম রাজধানী। পৃথিবীর এক-পঞ্চমাংশ কপার জাম্বিয়ায় উৎপাদিত হয়। এইডস আক্রান্ত মারাত্মক দেশসমূহের মধ্যে জাম্বিয়া অন্যতম। এ দেশের ৮৫% লোক দরিদ্র সীমার নিচে বাস করে।

ক্লিক করুন: বিসিএস সাধারণ জ্ঞান

জিম্বাবুয়ে

error: Content is protected !!