জিবুতি (Djibouti) : ইতিহাস ও নামকরণ

ড. মোহাম্মদ আমীন

জিবুতি (Djibouti)

তাজোউরা উপসাগরের তলদেশেল নামানুসারে জিবিুতি নাম রাখা হয়। আফার ভাষার শব্দ জাবোউতি (gabouti) হতে জিবুতি নামের উৎপত্তি। জাবোউতি এক ধরণের বিশেষ পাপোষ, যা তালের আঁশ হতে প্রস্তুত করা হয়। আবার অনেকে মনে করেন, জিবুতি নামের উদ্ভবের সঙ্গে মিশরীয় পৌরাণিক কাহিনির সম্পর্ক রয়েছে। তদের মতে, প্রাচীন মিশরের চন্দ্র দেবতার নাম ছিল তেহুতি (Tehuti) বা থুথ( Thoth। এ প্রসঙ্গে তাদের ব্যাখ্যা, Djibouti অর্থ তেহুতির জমি (Land of Tehuti) বা থুথ এর জমি ( Land of Thoth)। তখন মিশর সাম্রাজ্যের প্রভাব সারা আফ্রিকাব্যাপি বিস্তৃত ছিল। সংগতকারণে তাদের দেবতারও প্রভাব ছিল প্রবল। উষ্ণ এলাকা বলে জিবুতি অঞ্চলে সূর্য দেবতার চেয়ে চন্দ্র দেবতা ছিল অতি প্রিয়। সে বিবেচনায় এ কিংবদন্তিটি একদম ফেলে দেওয়া যায় না।

জিবুতির সরকারি নাম রিপাবলিক অব জিবুতি। এর উত্তরে ইরিত্রিয়া, পশ্চিম ও দক্ষিণে ইথিওপিয়া, দক্ষিণ-পূর্বে সোমালিয়া এবং পূর্বের বাকি সীমান্ত লোহিত সাগর ও এডেন উপসাগর দিয়ে ঘেরা। জিবুতির মোট আয়তন ২৩,২০০ বর্গকিলোমিটার বা ৮,৯৫৮ বর্গমাইল। তন্মধ্যে জলীয় ভাগের পরিমাণ ০.০৯%। ২০১৪ খ্রিস্টাব্দের হিসাবমতে, বতসোয়ানার জনসংখ্যা ৮,১০,১৭৮ এবং প্রতি বর্গকিলোমিটার লোকসংখ্যা ৩৭.২ জন । আয়তন বিবেচনায় জিবুতি পৃথিবীর ১৫০-তম বৃহত্তম দেশ এবং জনসংখ্যার ঘনত্ব বিবেচনায় পৃথিবীর ১৬৮-তম জনবহুল দেশ।

২০১৪ খ্রিস্টাব্দের হিসাবমতে, জিবুতির জিডিপি (পিপিপি) ২.৭০০ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং মাথাপিছু আয় ২,৮৪৭ ইউএস ডলার। অন্যদিকে, জিডিপি (নমিনাল) ১.৫৮৩ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং মাথাপিছু আয় ১,৬৮৫ ইউএস ডলার। মুদ্রার নাম ফ্রাঙ্ক। রাজধানী জিবুতি সিটি। সরকারিভাবে জিবুতির অধিবাসীকে জিবুতিয়ান বলা হয়। ১৯৭৭ খ্রিস্টাব্দের ২৭ জুন ফ্রান্স হতে স্বাধীনতা লাভ করে। ওই দিনই জিবুতির বর্তমান পতাকা গৃহীত হয়। জিবুতির সরকারি ভাষা ফ্রেঞ্চ ও আরবি। অধিবাসীর ৯৪% অধিবাসী মুসলিম এবং ৬% খ্রিস্টান।

জিবুতির আসাল হ্রদ বিশ্বখ্যাত। অ্যান্টার্কটিকার বাইরে আসাল হ্রদ (Lac Assal) সবচেয়ে লবণাক্ত। এটি মৃতসাগরের (Dead Sea) চেয়েও অধিক লবণাক্ত। তবে এ হ্রদের লবণ স্থানীয়রা ব্যবহার করে এবং বিক্রিও করে। এ হ্রদের পানি বাস্পীভূত হওয়া ছাড়া অন্যকোনোভাবে কমে না। আসাল হ্রদ আফ্রিকা মহাদেশের সবচেয়ে নিম্নবিন্দু। ইসরাইলে অবস্থিত সি গ্যালিলি ও মৃতসাগরের পর এটি পৃথিবীর তৃতীয় নিম্নতম বিন্দু। অ্যাবে হ্রদও (Lake Abbe) এখানে অবস্থিত। 

সূর্যাস্তের পর এখানে টেক্সিভাড়া ৫০% বাড়িয়ে নেওয়া হয়। সুতরাং জিবুতি গেলে সূর্য অস্তের পূর্বে হোটেলে ফিরে আসা বুদ্ধিমানের কাজ। 

কোট ডি আইভরি কোস্ট

error: Content is protected !!