ঝিঁকে মারা, ঝিকে মারা, টয়েবাঁধা বা টয়ে বাঁধা; টেনা,  টেনাপোঁদা

 ড. মোহাম্মদ আমীন
সংযোগ: https://draminbd.com/ঝিঁকে-মারা-ঝিকে-মারা-টয়েব/
ঝিঁকে মারা: ঝিঁকে মারা অর্থ নৌকার হাল ধরে হ্যাঁচকা টান দেওয়া যাতে উজানে অর্থাৎ স্রোতের বিপরীতে যাওয়া যায়।  অভিধান মতে, ঝিঁকা বা ঝিঁকে দেশি শব্দ। এর অর্থ (বিশেষ্যে) নৌকার হাল ধরে আকস্মিক সজোরে ধাক্কা বা টান; নৌকা চালাবার জন্য জোরে হালের ধাক্কা; বেগে আঘাত, সজোরে ধাক্কা। “একদিকে, মঞ্জনিকে, মারে ঝিঁকে ধেয়ে” রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়।
মাঝি হাল বাগিয়ে ধরে সজোরে দেদার ঝিঁকে মাত্তে লাগল।”  হুতোম প্যাঁচার নকশা, কালীপ্রসন্ন সিংহ।
দাঁড় টানতে ও ঝিঁকে মারতে মাঝিদের কালঘাম ছুটবে কারণ বৈদ্যবাটী থেকে বালী যেতে জোয়ারের উজানে যেতে হবে” আলালের ঘরের দুলাল, টেকচাঁদ ঠাকুর।

ঝিকে মারা: তৎসম দুহিতা থেকে উদ্ভূত ঝি অর্থ দুহিতা, কন্যা, পরিচারিকা। ঝিকে মারা অর্থ কন্যাকে মারা, পরিচারিকাকে মারা। বাংলায় ‘ঝিকে মেরে বউকে শেখানো’ কথার একটি বাগ্‌ধারা আছে। এর অর্থ যাকে সহজে শিক্ষা দেওয়া যায় তাকে শিখিয়ে অন্যকে শোধরানোর চেষ্টা। ঝিকে যত 

ড. মোহাম্মদ আমীন

সহজে শেখানো যায় বউকে তত সহজে শেখানো যায় না। বরং বউকে শেখাতে গেলে উলটো করে বসে। তাই ঝিকে শেখানোর ছলে বউকে শেখানোর কৌশলটি প্রয়োগের সূত্রে বাগ্‌ধারাটির উদ্ভব।

টয়েবাঁধা বা টয়ে বাঁধা:  টয়েবাঁধা বা টয়ে বাঁধা কথার অর্থ অতি দরিদ্র। বাক্যে এ বাগ্ভঙ্গিটি বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এখানে অর্থ টংকা।  টংকা বানানে তিনটা বর্ণ এবং একটি আ-কার রয়েছে। বর্ণটি টংকা বানানের  সামান্য অংশ মাত্র। বাকি অংশ ছাড়া এককভাবে অতি সামান্য গুরুত্ব বহন করে। সামান্য টাকা দিয়ে যাদের বেঁধে ফেলা যায় তারা সাধারণত অতি দরিদ্র হয়। অথবা অতি দরিদ্ররা অল্প টাকাতে তুষ্ট হয়ে যায়। তাই টয়েবাঁধা বা টয়ে বাধা কথার অর্থ করা হয়েছে অতি দরিদ্র।
আমার দেখতা কত টেঁপাগোঁজা,
নাড়েভোলা, টয়েবাঁধা, বালতিপোতা
কারবারের হেপায় আণ্ডিল হইয়া গেল. . .। আলালের ঘরের দুলা, টেকচাঁদ ঠাকুর।
কোথাও কয়েকজন টয়ে বাঁধা  ইংরেজিওয়ালা দরখাস্ত লিখছে. . .।” আলালের ঘরের দুলা, টেকচাঁদ ঠাকুর।
 টেনাপোঁদা: টেনা ও পোঁদা মিলে টেনাপোঁদা। টেনা দেশি শব্দ। অর্থ (বিশেষ্যে) মলিন ও ছিন্ন বস্ত্রখণ্ড বা বস্ত্র, কানি। মনসামঙ্গল কাব্যে ক্ষেমানন্দ লিখেছেন, “সাত গেঁটে টেনা তার হয় জ্ঞানহারা।” পোাঁদ মানে পাছা, নিতম্বদেশ। দেশি  টেনাপোঁদা অর্থ (বিশেষ্যে) ছিন্ন বসন পরিহিতা, পরনে যার মলিন ও ছিন্ন বসন।  এসময় নিতম্ব দেশ ঢাকার কাপড়ই ছিল মানুষের সাধারণ পরিধান। এটুকু পেলে তারা সন্তুষ্ট থাকত। কিন্তু, অধিকাংশ মানুষ তাও কিনতে পারত না।  পুরানো ও মলিন টেনা দিয়ে পোঁদ বা নিতম্বদেশ ঢাকতে বাধ্য হতো। এদের টেনা দেখলে বোঝা যেত এরা গরিব, নিরীহ।  কেউ তাদের পাত্তা দিত না।
“দেখে এই টেনাপোঁদা,
ঠোঁট কাটা পা গোদা, আমাদের সমাদর নাই।। ”সপত্নী নাটক, তারকচন্দ্র  চূড়ামণি।
শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com
error: Content is protected !!