তো: তো শব্দের তেলেসমাতি: তো শব্দের অর্থ ও প্রয়োগ

ড. মোহাম্মদ আমীন
ড. মোহাম্মদ আমীন
সংযোগ:https://draminbd.com/তো-তো-শব্দের-তেলেসমাতি-তো/
অভিধানে পৃথক ভুক্তিতে তিনটি ‘তো’ দেখা যায়। এই তিনটি ‘তো’ বাক্যে স্বাধীনভাবে প্রয়োগযোগ্য। প্রথমটি খাঁটি বাংলা ‘তো’। দ্বিতীয়টি প্রাচীন বাংলা প্রাকৃত ও ব্রজবুলি ভাষায় সর্বনাম হিসেবে ব্যবহৃত ‘তো/ তোঁ’। তৃতীয়টি ফারসি উৎসের  ‘তো’। নিচে তিন ‘তো’-এর অর্থ প্রয়োগ ও ব্যবহার দেখানো হলো:
সর্বনাম তো: সর্বনাম তো প্রাচীন বাংলা এবং প্রাকৃত ও ব্রজবুলি ভাষায়  সর্বনাম হিসেবে ব্যবহৃত হতো। এই ‘তো’ শব্দের অর্থ: তোমা, তোর, তোমার, তোমাদিগের, তুমি, তুই এবং তব (সংস্কৃত)।  আধুনিক বাংলায় এর ব্যবহার দেখা যায় না। তবে প্রাচীন বাংলা সাহিত্যে এর বহুল ব্যবহার ছিল।  এটি তোঁ বানানেও ব্যবহৃত হতো। নিচে এর প্রয়োগ দেখানো হলো: 
তোমা অর্থে:তো বিনে উনমত কান।”—  বিদাপতি। “. . . . ইহাতে তোদিগকে মানুষ না বলিয়া পশু বলিতে হইবে?”—  কলিকতূহল, নারায়ণ চট্টরাজ
তোর অর্থে: তো সেবা নাহি জানি।”—  চণ্ডীদাস
তোই তোঁই (সর্বনামে) তোমাকে তব:  “কত পরবধব তোই”, বিদ্যাপতি
তোমাদিগের অর্থে:তো সবারে কে আর করিবে নিজ কোরে।” বৈষ্ণব পাদবরী, গোবিন্দ ঘোষ।
তো: বাক্যে অব্যয় হিসেবে ব্যবহৃত এবং সংস্কৃত তব (মতান্তরে ‘তাবৎ’) হতে উদ্ভূত খাঁটি বাংলা ‘তো’ শব্দের বৈচিত্র্যময় প্রয়োগ রয়েছে। শব্দটি বাক্যে নানা অর্থে ব্যবহৃত হয়। নিচে তার কয়েকটি অর্থ প্রয়োগ-সহ দেওয়া হলো।
১. অনুররোধসূচক, অনুরোধজ্ঞাপক, অনুরোধ অর্থে : একবার এদিক আসো তো।  দেখুন তো আমার ছেলেটা কেমন জানি করছে।
২. প্রশ্নসূচক বা প্রশ্নজ্ঞাপক: কাল আসবে তো? কথা দিলে তো? তুমি আমাদের সঙ্গে যাবে তো?
৩. দৃঢ়তা নিশ্চয়তা ও অভয়জ্ঞাপক: এটাই তো আমার সে হারানো বই।  ডাক্তার তো বলে দিয়েছে ভালো  হয়ে যাবে।
৪. কিন্তু অর্থবোধক: আমরা তো কাল যাচ্ছি না। ওরা তো কেউ আসেনি।
৫. সত্ত্বেও  যদিও প্রভৃতি অর্থবোধক: তুমি তো চাইলেও সে দেবে না। আমি তো বলিনি।
৬. তাহলে তবে প্রভৃতি অর্থবোধক: যদি বাঁচতে চাও তো আমার কথা শোনো।   ইচ্ছে হয় তো  চলে যাও।
৭. অনিশ্চয়তাসূচক: আবার হবে তো দেখা, এ দেখায় শেষ দেখা  নয় তো. . .। আগে তো শুরু করি, তারপর যা হবার তাই হবে।  চেষ্টা করে দেখে তো, কিছু করা যায় কি না।
৮. সন্দেহসূচক: কাজটা ঠিক হচ্ছে তো! আমরা সঠিক পথে যাচ্ছি তো!
৯. অঘটন, ঘটনা, পরিণতি ইত্যাদি ব্যঞ্জক: আবেদন তো করে দিলাম, কিন্তু বড়ো সাহেব অনুমোদন করবে বলে তো মনে হয় না।
১০. সংশয়সূচক:  হয় তো কিছুই নাহি পাব, তবুও তোমায় আমি দূর থেকে ভালোবেসে যাব।  সে আসবে বলে তো মনে হচ্ছে না।
১১. অবধারণ: আমি তো এসব কিছু জানি না।
১২. অন্তত অর্থবাচক: আজ তো যাওয়া হবে না।
১২. পদপূরণ বা কথার মাত্রায়: তো তুমি কী কারতে চাও এখন? তো তুমি  কবে এলে?
১৩. বিস্ময়সূচক: তুমি তো দেখি  মারাত্মক ধূর্ত!
১৪. অনুরোধাত্মক আদেশ: আলনায় তো করে রাখো  কাপড়গুলো আনো তো।
১৫. আফসোস, অভিমান প্রভৃতি অর্থে: ওগো আর কিছু তো নাই/ বিদায় নেবার আগে তাই/ তোমারি নয়নে পাওয়া/ তোমারি সুরে গাওয়া/ এ গানখানি রেখে যাই
 তো: বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত এবং ফারসি তহ্‌ হতে উদ্ভূত তো অর্থ জামা কাপড়ের ভাঁজ বা পাট।
ঘরের দক্ষিণ কোণে আলনায় সযত্নে তো করে জামাকাপড় রাখা।
ওই তোথেকে  নীল জামাটা  নিয়ে নাও।
আলনায় তো করে রাখো  কাপড়গুলো তো
সূত্র: বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন: প্রয়োগ ও অপপ্রয়োগ, ড. মোহাম্মদ আমীন, পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.
error: Content is protected !!