নাটোর জেলার নামকরণ

আত্রাই, গুড়, গুড়হানি, নন্দকুজা, বারনই, বড়াল, খালসা, ডিঙ্গি, গঙ্গা, নাগর ও গুমানী নদী বিধৌত নাটোর কিংবদন্তিময় একটি চমৎকার ভূখণ্ড। এ জেলার নামকরণ নিয়ে বিভিন্ন প্রবাদ প্রচলিত আছে। অনেকে মনে করেন, নাতর শব্দ হতে নাটোর শব্দের উদ্ভব। না অর্থ সম্ভব নয়, আর তর অর্থ গমন। আলোচ্য ভূখণ্ডটি ছিল নিচু এলাকা।

অধিকাংশ সময় পানিতে ডুবে থাকতো। তাই পায়ে হেটে চলাচল করা যেতো না। পায়ে হেটে গমন করা সম্ভব ছিল না বলে এলাকাটির নাম হয় না-তর। যার অপভ্রংশ নাটোর। আবার অনেকে মনে করেন, এ এলাকার পাশ দিয়ে এককালে নারদ নদী প্রবাহমান ছিল। নারদ নদীর পাশে লোকালয়টি গড়ে উঠেছিল। তাই এর নাম হয় নারদ। পরবর্তীকালে আঞ্চলিক উচ্চারণ, বিকৃতি, আড়ষ্ঠতা ও প্রায়াগিক ভিন্নতার কারণে নারদ শব্দ নাদর রূপে উচ্চারিত হতে থাকে। এরপর নাদর হতে নাতর, নাতর হতে নাটোর নামে স্থিতি পায়। 

কারও কারও মতে নৃত্য হতে নাটোর। একবার একটা সাপ ব্যাঙকে খেয়ে ফেলছিলো। ব্যাঙের কষ্ট আর সাপের কসরত দেখে কয়েকজন বালিকা খুশি মনে নৃত্য করছিলো। বালিকাদের এ নৃত্যকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন উৎসবে নৃত্য পরিবেশিত হতো। ক্রমশ এ নৃত্য বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করে। একটি বিশেষ লোকালয়ে এ নৃত্য উপস্থাপনে দক্ষ বালিকাদের নিবাস ছিল। নৃত্যপটিয়সীদের নিবাসের জন্য এলাকাটির নাম হয় নাট্যপুর। যার অপভ্রংশ নাটোর। আবার অনেকে বলেন, এ এলাকায় এক সময় নাটা নামক এক প্রকার কাঁটাগুল্ম জন্মাতো। তদেও মতে, কাঁটাগুল্ম নাটা হতে এলাকার নাম হয় নাটার; যার অপভ্রংশ নাটোর। কেউ কেউ মনে করেন, নটিপাড়া হতে নাটোর। এখানে একটি নটিপাড়া ছিল। নটিপাড়া গ্রামটি রাজা ও জমিদারগণের আমোদ-ফুতির জন্য গড়ে তোলা হয়েছিলো। রাজা ও ধনীরা এখানে এসে নৃত্য, গান এবং অন্যান্য আমোদপ্রমোদে লিপ্ত থাকতো। কথিত হয়, এ নটিপাড়া হতে এলাকাটির নাম হয় নটিপাড়া বা নটিপুর। নটিপাড়া বা নটিপুর শব্দটি ক্রমশ পরিবর্তিত হয়ে নাটোর নামে স্থিতি পায়। 

নাটোর নামকরণ নিয়ে আর একটি কিংবদন্তি প্রচলিত আছে। কিংবদন্তি অনুসারে ‘না ঠাইরো’ শব্দ হতে নাটোর নামের উৎপত্তি। ‘না’ শব্দের অর্থ নৌকা এবং ঠাইরো শব্দের অর্থ থামাও। সুতরাং না ঠাইরো বাক্যের অর্থ নৌকা থামাও। এক সময় আত্রাই নদীর তীরে ছোট একটি ঘাট ছিলো। লোকজন বেশি থাকতো না বলে  সব নৌকা এখানে থামতো না। যাবার মতো যাত্রী থাকলে মাঝি নৌকা থামাতো। কোন ব্যক্তি নৌকায় উঠতে চাইলে থামানোর জন্য চিৎকার দিতো: না-ঠাইরো। কথিত হয়, এ না-ঠাইরো শব্দ হতে এলাকার নাম হয় নাইঠোর। যার অপভ্রংশ নাটোর। অনেকের কাছে নাটোর নামের আর একটি প্রবাদ শুনা যায়। সেটি হচ্ছে অড়হর সংক্রান্ত প্রবাদ। অড়হরকে স্থানীয় ভাষায় আটোর বলা হয়। এক সময় এখানে প্রচুর অড়হর হতো। পথের দুপাশ ভরে থাকতো আটোর গাছে। কথিত হয়, এ আটোর হতে এলাকার নাম হয় নাটোর।

সূত্র : বাংলাদেশের জেলা উপজেলা ও নদনদীর নামকরণের ইতিহাস, ড. মোহাম্মদ আমীন।

বিসিএস, যে-কোনো প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা, শুদ্ধ বাংলা শেখা, প্রাতিষ্ঠানিক অধ্যয়ন এবং গবেষণার জন্য প্রয়োজনীয় কয়েকটি লিংক:

শুবাচ লিংক

শুবাচ লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

বাংলা বানান

জঞ্জাল দিবস 

————————————————-

শব্দকল্পদ্রুম/২

শব্দকল্পদ্রুম/৩

শব্দকল্পদ্রুম/৪

শব্দকল্পদ্রুম/৫

শব্দকল্পদ্রুম/৬

শব্দকল্পদ্রুম/৭

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস/২

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস/৩

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস/৪

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস/৫

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস/৬

দুষ্ট শব্দ দুষ্ট বানান বিসিএস/৭

error: Content is protected !!