Warning: Constant DISALLOW_FILE_MODS already defined in /home/draminb1/public_html/wp-config.php on line 102

Warning: Constant DISALLOW_FILE_EDIT already defined in /home/draminb1/public_html/wp-config.php on line 103
পুকুরচুরি বাগ্‌ধারার উদ্ভব – Dr. Mohammed Amin

পুকুরচুরি বাগ্‌ধারার উদ্ভব

ড. মোহাম্মদ আমীন
পুকুর চুরি কী?
অনেক অনেক দিন আগের কথা। মহারাজার এক স্থানীয় প্রতিনিধি অনুমতি নিয়ে তাঁর নতুন অধিক্ষেত্রে যোগদানের পর বিরাট এক পুকুর খনন করলেন। বাস্তবে পুকুর খনন করা হয়নি। যা করা হয়েছে সব কাগজে কলমে। খনন না-করেই প্রতিবেদন পাঠিয়ে দেওয়া হলো— পুকুর খনন করা হয়েছে। বিশাল পুকুর, নাম দেওয়া হয়েছে পদ্মপুকুর। মহারাজ মহাখুশি। খরচ আগেই পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সমাপ্তি প্রতিবেদন পাওয়ার পর পাঠালেন পুরস্কার। এত বড়ো কাজ যিনি করলেন তাঁকে পুরস্কার না দিলে কি হয়?
পুকুর, চুরি হয়ে গেল।
পাঁচ বছর পর ওই রাজ প্রতিনিধি অন্যত্র বদলি হওয়ার আদেশ পেলেন। নতুন প্র্রতিনিধি দায়িত্ব বুঝে নিতে গিয়ে দেখেন— যথাস্থানে পদ্মপুকুর নামের কোনো পুকুরের অস্তিত্ব নেই। পুকুরের জায়গায় মাঠ।
পুকুর কোথায়? জানতে চাইলেন সদ্য যোগদান-করা রাজ প্রতিনিধি।
কাগজে কলমে আছে, পুরাতন প্রতিনিধি বললেন।
নতুন প্রতিনিধি বললেন, কিন্তু বাস্তবে তো নেই। আগামী বছর মহারাজ আসবেন, তিনি যদি পদ্মপুকুর দেখতে চান? আমি পুকুর ছাড়া দায়িত্ব বুঝে নেব না। আপনার দায় আমি নিতে যাব কেন? আপনি আমাকে পুকুর দিন নতুবা “পুকুর নেই” লিখে দিন।

পুরাতন প্রতিনিধি বললেন, অসুবিধা নেই। কাগজে কলমে খনন-করা পুকুর আমি কাগজে কলমে ভরাট করে দিয়ে যাব। আপনাকে

পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

পুকুরের দায় নিতে হবে না। বরং কয়েকদিন আমার সরাইখানায় আরাম করুন। যা লাগে বলবেন— চলে যাবে সোজা।

পুরাতন প্রতিনিধি পত্র পাঠালেন মহারাজার কাছে: “মহারাজ, আমি আপনার নির্দেশে যে পুকুর খনন করেছিলাম সে পুকুর এমন জায়গায় যা আপনার আগমনের বিঘ্ন ঘটাতে পারে। পুকুরে প্রতিদিন হাজার হাজার লোক জল নিতে আসে। পুকুর পাড়ে গোরু-ছাগল চরে। গোরু-ছাগল খাওয়ার লোভে মাঝে মাঝে বাঘও হানা দেয়। এতে আপনার নিরাপত্তা হুমকিতে পড়তে পারে। আপনার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য অবিলম্বে পদ্মপুকুর ভরাট করার অনুমতি প্রার্থনা করছি। এতৎসঙ্গে পুকুর ভরাটের খরচ-বিবরণ যুক্ত করা হলো। জরুরিভিত্তিতে বর্ণিত টাকা পাঠানোরও অনুরোধ করছি।”
কাঙ্ক্ষিত অর্থ-সহ পুকুর ভরাট করার অনুমতি এসে গেল কয়েক দিনের মধ্যে।কাগজে কলমে খনন করা পুকুর মাসের মধ্যে কাগজে কলমে ভরাট করে ফেললেন । এখন বাস্তবে এবং কাগজে কলমে কোথাও পদ্মপুকুর নেই।সব আগের মতো।
পকুর, চুরি হয়ে গেল দ্বিতীয় বার।
নতুন প্রতিনিধিকে সরাইখানা থেকে ডেকে এনে পুরাতন প্রতিনিধি বললেন, আমি লিখে দিচ্ছি পুকুর নেই। দায়িত্ব বুঝে নিতে অসুবিধা আছে?
না।
তাহলে আপনি এবার দয়া করে দায়িত্বটা বুঝে নিন, পুরাতন প্রতিনিধি বললেন।
নতুন প্রতিনিধি দায়িত্ব বুঝে নিলেন। পুরাতন প্রতিনিধি দায়িত্ব অর্পণ করে নতুন কর্মস্থলে চলে গেলেন।
এই হলো পুকুরচুরি।
এই হলো পুকুর চুরি। এই ঘটনা থেকে পুকুর চুরি বাগ্‌ধারার উদ্ভব। প্রতিনিধি প্রকৃত অর্থে পুকুর খনন না করে খননের খরচ পকেটস্থ করলেন  এবং পরে না-খনন করা পুকুর ভরাট করার নামে পুরো টাকা পকেটস্থ করলেন। 
——————————————————————
শুবাচ-এর ওয়েবসাইট: www.draminbd.com