পুরুষায়ন সমাস বা সমাসের লিঙ্গায়ন

বাংলা ব্যাকরণের আলোচ্য বিষয়

আজকের বিষয় : লিঙ্গসর্বস্ব-তত্ত্ব

ড. মোহাম্মদ আমীন

পূর্বের অংশ : লিঙ্গসর্বস্বতত্ত্ব বা লিঙ্গসর্বস্ব ব্যাকরণ

পুরুষায়ন সমাস:   যে সমাসের ফলে সমস্ত পদটি  স্ত্রীজাতীয় প্রাণীর বিপরীত লিঙ্গ তথা পুংজাতীয় প্রাণীও প্রজনন ক্ষমতা বা বাচ্চা প্রসব কিংবা ডিম পাড়ার সনদ, ঘোষণা ও কৃতিত্ব লাভ করে, তাকে ‘পুরুষায়ন সমাস’ বা ‘সমাসের পুরুষায়ন’ বলা হয়। যেমন : ছাগীর দুগ্ধ = ছাগদুগ্ধ। দুধ দিল ছাগী, কৃতিত্ব নিয়ে গেল ছাগল।   এ কেমন কথা? এ অবস্থায় দুগ্ধ-হারা ছাগী ম্যা ম্যা না করে কী করবে?

হংসীর ডিম্ব = হংসডিম্ব। কী কষ্ট করে হংসী ডিমটা দিল, কিন্তু ব্যাকরণের পুরুষসর্বস্ব-তত্ত্বে এসে সমাসের পুরুষায়নের খপ্পরে পড়ে  বেচারা হংসীর ডিমটা পর্যন্ত হাঁসের হয়ে গেল। ডিম হারিয়ে হাঁসি, বলে — নদীর জলে ভাসি। 

পুরুষায়ন সমাসের উপকারিতা:  এই সমাসের মাধ্যমে পুরুষ বা পুংজাতীয় প্রাণীদল উপযুক্তমতে বাচ্চা প্রসব কিংবা ডিম্ব পাড়ার কৃতিত্ব ভোগ করে।

 


বাংলাদেশ : স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : কোনটি সেরা ভাষা না ব্যাকরণ?

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : বানানে দ্বিত্ব

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : বর্গীয়-ব ও অন্তঃস্থ-ব

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : হ কাহন

আজব ব্যাকরণ গজব কার্যকরণ

 

 

 

error: Content is protected !!