পুলিশের গু খেয়ে মৃত্যু : কয়েকটি বানান কৌতুক

বাঙালির বাংলা হাসি

ড. মোহাম্মদ আমীন

বিখ্যাত একটি পত্রিকার হেডলাইন : “পুলিশের গু খেয়ে ডাকাতের মৃত্যু”
শিরোনাম দেখে জনগণ হুমড়ি খেয়ে পড়ল। অবিশ্বাস্য, রীতিমতো শিহরন জাগানো একটি সংবাদ। পাঠক এমন খবরই পড়তে চায়। তবে পুরো ঘটনা পড়ে সবাই হতাশ। পত্রিকা ভুল করেছে।

পরদিন পত্রিকা খবরটির সংশুদ্ধি দিল : “পুলিশের গুলি খেয়ে ডাকাতের মৃত্যু। গু খেয়ে কেউ মরেনি। আমরা দুঃখিত, গতকাল আমাদের পাছায় কিছু চুল ছিল।” আবার হুমড়ি খেয়ে পড়ে পাঠক। এ তো আরও মজার খবর! সংশুদ্ধিটি পুরো পড়ে পাঠক বুঝতে পারল আসল বিষয়। পত্রিকা আবারও ভুল করেছে।

পরদিন পত্রিকা পুনরায় সংশুদ্ধি দিল : “আসলে গতকাল আমাদের কারো পাছায় কোনো চুল ছিল না। ছাপায় কিছু ভুল ছিল।”

 

কাকতালীয় কৌতুক
ছাত্র : কাকতালীয় মানে কী স্যার?
শিক্ষক : কার্যকারণহীন দুটি ঘটনা আকস্মিকভাবে ঘটে যাওয়া। এটি একটি বাগধারা। কাক ও তাল থেকে এটির উৎপত্তি।
ছাত্র : কাক ও তাল কেন স্যার?
শিক্ষক : একটি কাক তাল গাছে বসল এবং বসামাত্র টুপ করে একটা তাল মাটিতে পড়ে গেল। কাকটি না-বসলেও তালটি পড়ত, হয়তো তালটি না-পড়লেও কাকটি বসত। কাকের মতো ছোট একটা পাখির তাল গাছে বসার সঙ্গে তাল-পড়ার কোনও যোগসূত্র ছিল না। কিন্তু ঘটনাচক্রে তালের পতন ও কাকের বসা দুটো একসঙ্গে ঘটে গেল। এটাই কাকতালীয়। এবার তুমি কাকতালীয় ঘটনার একটা উদাহরণ দাও।
ছাত্র : আমার বাবার বিয়ে হল, সঙ্গে সঙ্গে আমার মায়ের বিয়েও! এমন কাকতালীয় আর দেখিনি স্যার, আপনি দেখেছেন?
শিক্ষক : দেখেছি।
ছাত্র : কোথায়?
শিক্ষক : তুমি জন্মগ্রহণ করার সঙ্গে সঙ্গে একজন পুরুষ বাবা এবং একজন নারী মা হয়ে গেল।

সূত্র : বাঙালির বাংলা হাসি, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

সূত্র: বাংলা কথায় বাংলা কৌতুক,পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন

কীভাবে হলো দেশের নাম

শুদ্ধ বানান চর্চা প্রমিত বাংলা বানান বিধি : বানান শেখার বই

বাংলা ভাষার মজা, ড. মোহাম্মদ আমীন, পাঞ্জেরী পাবিলিকেশন্স লি.।

error: Content is protected !!