পূর্ব বাংলার চতুর্থ গভর্নর

ড. মোহাম্মদ আমীন
পূর্ব বাংলার চতুর্থ গভর্নর
পাকিস্তানের পূর্ববাংলা প্রদেশের যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিসভা ভেঙে দিয়ে গভর্নর- জেনারেল গোলাম মোহাম্মদ পূর্ব বাংলায় গভর্নরের শাসন প্রবর্তনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দের মে মাসে মেজর জেনারেল ইস্কান্দার মির্জাকে গভর্নর নিয়োগ করা হয়। জেনারেল মির্জা ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দের ২৯ শে মে গভর্নর হিসেবে নিয়োগ পান এবং পরদিন অর্থাৎ ৩০ শে মে গভর্নর হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করে একই বছর সেপ্টেম্বর মাসে পদত্যাগ করেন। তিনি চার মাসেরও কম সময় প্রদেশের গভর্নর ছিলেন। জনাব মির্জা ১৮৯৯ খ্রিষ্টাব্দের ১৩ মে মুর্শিদাবাদের নবাব পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। গভর্নর পদ থেকে পদত্যাগের পর ইস্কান্দার মির্জা ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দের অক্টোবর থেকে ১৯৫৫ খ্রিষ্টাব্দের অগাস্ট পর্যন্ত পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। অতঃপর প্রধানমন্ত্রী বগুড়ার মোহাম্মদ আলীর মন্ত্রিসভায় ক্ষুদ্র রাজ্য ও সীমানা এলাকাবিষয়ক মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।
 
স্যার থমাস হোবার্ট এলিস
১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দের ২১ শে সেপ্টেম্বর বিচারপতি স্যার থমাস হোবার্ট এলিস (Sir Thomas Hobart Ellis ) পুর্ববাংলার অস্থায়ী গভর্নর নিযুক্ত হন। ইস্কান্দার মির্জা কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় মন্ত্রিত্ব গ্রহণ করলে তিনি ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দের ২৫ অক্টোবর অস্থায়ী গভর্নর হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন। তিনি ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দের ২২ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত পূর্ব বাংলার গভর্নরের দায়িত্ব পালন করেন। প্রাতিষ্ঠানিক অধ্যয়ন সমাপ্ত করার পর ১৯১৯ খ্রিষ্টাব্দে তিনি ভারতীয় সিভিল সার্ভিসে যোগদানের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন।
একনজরে বঙ্গবন্ধু, ড. মোহাম্মদ আমীন, আগামী প্রকাশনী, বাংলাবাজার, ঢাকা।
error: Content is protected !!