পৃথিবীর ইতিহাস ও নামকরণ : চৌম্বকক্ষেত্র অভিকর্ষজাত ত্বরণ

পৃথিবীর ইতিবৃত্ত

ড. মোহাম্মদ আমীন

চৌম্বক ক্ষেত্র

পৃথিবীর চৌম্বকীয় ক্ষেত্রের মূল অংশটি উৎপন্ন হয় এর ভূ-কেন্দ্রে। ডাইপোলের মেরুগুলোর অবস্থান পৃথিবীর ভৌগোলিক মেরুর কাছাকাছি। ভূ-পৃষ্ঠের উপর নিরক্ষরেখা বরাবর, চৌম্বক ক্ষেত্রটির চৌম্বক শক্তির পরিমাণ হলো ৩.০৫ X ১০−৫ টেসলা, একই সঙ্গে বৈশ্বিক চৌম্বকীয় ডাইপোল মোমেন্ট হল ৭.৯১ X ১০১৫ টেসলা মিটার৩।

 অভিকর্ষজ ত্বরণ

অভিকর্ষজ ত্বরণ হচ্ছে ওপর থেকে পড়ন্ত বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হার। অভিকর্ষের কারণে ওপর থেকে ছেড়ে দেওয়া বস্তু ভূপৃষ্ঠের দিকে ধাবিত হয় এবং যতই ভূপৃষ্ঠ বা ভূ-কেন্দ্রের নিকটবর্তী হয় এর পতনের বেগ তত বৃদ্ধি পেতে থাকে। পতনকালে প্রতি সেকেন্ডে বেগ যতটুকু বৃদ্ধি লাভ করে তা-ই ‘অভিকর্ষজ ত্বরণ’। পৃথিবী ও অন্য যে কোন বস্তু মধ্যে যে আকর্ষণ বল তাকে অভিকর্ষ বল বলা হয়। নিউটনের ২য় সূত্র অনুযায়ী বল প্রয়োগে বস্তুর ত্বরণ হয়। অভিকর্ষ বলের প্রভাবে ভূপৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়ন্ত বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হারকে অভিকর্ষজ ত্বরণ (Gravitational acceleration) বলে। একে ম দ্বারা প্রকাশ করা হয়। ভূ-পৃষ্ঠের উপর, অভিকর্ষজ ত্বরণ হল প্রায় ৯.৮ মি/সে২ (৩২ ফুট/সে২)।


পৃথিবীর ইতিহাস ও নামকরণ : চাঁদ চন্দ্রকলা জোয়ারভাটা চান্দ্রমাস

পৃথিবীর ইতিহাস ও নামকরণ : আহ্নিক গতি বার্ষিক গতি : ছায়বৃত্ত উষা গোধুলি : সৌরদিবস সৌর বছর লিপইয়ার

পৃথিবীর ইতিহাস ও নামকরণ : মহাসাগর : মহাসাগরের ভর গভীরতা আয়তন লবণাক্ততা : পানির পরিমাণ

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

 

 

error: Content is protected !!