প্রবন্ধ ও নিবন্ধ

ড. মোহাম্মদ আমীন

সংস্কৃত ভাষায় ‘প্রবন্ধ’ শব্দের সাধারণ অর্থ ‘উদ্দেশ্য বা পরিকল্পনা’, কিন্তু বাংলায় শব্দটির অর্থ দাঁড়িয়ে গেছে essay বা রচনা।  প্রবন্ধ শব্দের মূলানুগ অর্থ ‘প্রকৃষ্ট বন্ধন যার’, বাংলায় রচনা মাত্রই প্রবন্ধ (‘আলগোছে তফাতে থেকে সমালোচনা প্রবন্ধে একটু-আধটু ঠোকর দেয় অনেকেই – অনুকরণ না হনুকরণ’- সৈয়দ মুজতবা আলী)।সংস্কৃত ভাষায় ‘নিবন্ধ’ শব্দটি অদৃষ্ট, ভাগ্যের লিখন, নিমিত্ত এমন সব অর্থে ব্যবহৃত হতে দেখা যায়। একই অর্থে বাংলায়ও প্রয়োগ আছে। যেমন : দৌলত উজির বাহরাম খান লিখেছেন— “নিবন্ধ খণ্ডাইতে পারে শকতি কাহার”।

‘প্রবন্ধ’‘নিবন্ধ’ দুটো শব্দই অধুনা অনেকটা অভিন্ন অর্থে ব্যবহৃত হয়। তবে, উভয়ের ব্যুৎপত্তি এবং প্রায়োগিক পার্থক্য রয়েছে। প্রকৃষ্ট বন্ধন যার সেটি প্রবন্ধ। এখানে সংশ্লিষ্টতা পরম্পরায় প্রবন্ধের বিস্তৃতি ও গভীরতা অসীম, নিবন্ধে তা অনেকটা সংকুচিত। এজন্য প্রবন্ধের চেয়ে নিবন্ধ লেখা কষ্টকর। কেননা, নিবন্ধে কম পরিসরে বড়ো কিছু প্রকাশ করতে যায়। যা এত সহজসাধ্য নয়।

‘নির্দিষ্ট বন্ধন যার’ সেটি নিবন্ধ। প্রকৃষ্টতার উল্লেখ না থাকলেও ‘নিবন্ধ’ প্রকৃতপক্ষে, প্রকৃষ্ট বন্ধনমন্দ্রিত অপেক্ষাকৃত স্বল্প অবয়বের একটি প্রবন্ধ, যেখানে প্রবন্ধের চেয়ে অনেক বেশি প্রকাশিত হয়। প্রবন্ধে লেখক একটি নির্দিষ্ট গণ্ডিতে নিজের প্রকৃষ্ট বিচরণ প্রকম্পিত রাখেন এবং বেশি বিচরণ করতে পারেন না। নিবন্ধের নির্দিষ্টতা এর বন্ধন, বিস্তৃতি ও গভীরতাকে সীমাবদ্ধ রাখার প্রেরণা যোগায়, যার অবয়ব প্রবেন্ধর চেয়ে কম। যদিও এটি কেবল বিস্তারভিত্তিক নয়; বরং বিশ্লেষণ যৌক্তিকতার আদলভিত্তিক।

‘প্রবন্ধ’ একটি বিষয়কে যতটুক বিস্তৃত বিশ্লেষণে তুলে ধরে নিবন্ধ তা করে না, আসলে পরিমিত বিস্তারের জন্য করতে পারে না। ঠিক উপন্যাস আর বড়ো গল্পের মতো। নিবন্ধে নির্ধারিত বিষয়কে প্রকাশ করার জায়গা সীমিত। তাই বর্ণনাকে অল্পকথায় বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে তুলে ধরা প্রয়োজন।নইলে নিবন্ধও প্রবন্ধ হয়ে যায়।

প্রবন্ধে ‘প্র-’ উপসর্গ, নিবেন্ধে ‘নি-’ উপসর্গ বসেছে। আকারে প্রবন্ধ বড়ো হবে, নিবন্ধ ছোটো হবে। ঠিক, রচনা ও প্যারাগ্রাফ এর পার্থক্যের মতো। লেখার সময় রচনায় তথ্য প্রদান করা হবে, প্রাসঙ্গিক বিষয় আলোচনায় আনা যাবে, অপরদিকে নিবন্ধে নিজের চিন্তায় নিজেকে বিষয়ের মধ্যে আটকে রাখতে হবে। এখানে বেশি আলোচনা এবং যথেচ্ছা উদাহরণ প্রয়োগের সীমা সীমিত।

নিবন্ধের চেয়ে প্রবন্ধের গন্ডি বড়ো। নিবন্ধ প্রধানত জার্নাল নির্ভর। জার্নালটি যে বিষয় ভিত্তিক -সাধারণত জার্নালভূক্ত নিবন্ধগুলো সেই নির্দিষ্ট বিষয়েরই হয়ে থাকে। প্রবন্ধের চেয়ে নিবন্ধ সুনির্দিষ্ট, গভীর, বিশ্লেষণধর্মী । বস্তুত কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ে বিশ্লেষণ ধর্মী লেখাই নিবন্ধ। এর সঙ্গে অধিকতর বর্ণনা যোগ হলে তা হয়ে যায় প্রবন্ধ। সব নিবন্ধ প্রবন্ধ নয়, তবে সব প্রবন্ধই নিবন্ধ।নিবন্ধকে বলা যায় প্রবন্ধের সংক্ষিপ্ত সার।

শুদ্ধ বানান চর্চা ও বাংলা ভাষা বিষয়ক কিছু প্রয়োজনীয় লিংক:

শুবাচ লিংক

শুবাচ লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

জঞ্জাল দিবস 

error: Content is protected !!