প্রাত্যহিক প্রায়োগিক প্রমিত আধুনিক বাংলা বানান অভিধান সমগ্র

আরও কিছু শুদ্ধ ও সংগততর বানান
অঙ্ক, উদ্‌বোধন, উদ্‌বেগ।
ইদ (সংগততর বানান, তবে বহুল প্রচলিত ঈদ)।

গো (Cow); যেমন: গোসম্পদ, গোশালা, গোবর, গোরূপ, গোয়ালা।

ইগল (কারণ এটি ইংরেজি শব্দ)। ঈগল লিখবেন না, বিদেশি শব্দে ঈ-কার বিধেয় নয়।
ইতোমধ্যে, ইতঃপূর্বে।
উল্লিখিত, উপর্যুক্ত।  
এতদ্দ্বারা (এতদ্‌+দ্বারা); এতদ্বারা একটি হাস্যকর শব্দ।
ওসিলা।
ভিডিয়ো, অডিয়ো, রেডিয়ো
গোরু (গোরূপ থেকে শব্দটির উদ্ভব)।
 
রানি (অতৎসম শব্দে ণত্ববিধি কার্যকর হয় না)।
 
ঘুস (অতৎসম শব্দ। তাই ষ হবে না)।
সাথি [(সঙ্গী, সহচর) এটি বাংলা শব্দ। তাই ঈ-কার নেই।]
ফরসা, ফারসি, ফরাসি।
পটোল (সবজি অর্থে)।
পির (বিদেশি শব্দ, তাই ই-কার।)
ব্যাং (বিভক্তিহীন দুই অক্ষরের শব্দে সাধারণ অনুস্বার হয়।)
বিদায়ি; সবজি, তদবির।
পাদরি (এটি বিদেশি শব্দ। তাই ঈ-কার হবে না।)
 
ইতঃ + পূর্বে = ইতপূর্বে/ ইতঃপূর্বে
স-জাত বিসর্গযুক্ত অ-কারের পর |ক| ও |প| বর্গের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ণ কিংবা শ/ষ/স থাকলে সন্ধির পর বিসর্গযুক্ত অ-কার অপরিবর্তিত থাকে [ইতঃ+পূর্বে=ইতপূর্বে / ইতঃপূর্বে]। কিন্তু বিসর্গযুক্ত অ-কারের পর |ক| ও |প| বর্গের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম বর্ণ কিংবা য/র/ল/হ থাকলে সন্ধির ফলে /অঃ/ স্থানে /ও/ হয় [ইতঃ+মধ্যে=ইতোমধ্যে]।
ক্রমশ:

Language
error: Content is protected !!