ফুলের শুভেচ্ছা ও ফুলেল শুভেচ্ছা: ফোঁটা ফোটা, দেখতে হবে না মেয়েটি কার!

ড. মোহাম্মদ আমীন

ফুলের শুভেচ্ছা ও ফুলেল শুভেচ্ছা: ফোঁটা ফোটা, দেখতে হবে না মেয়েটি কার!

ফুলের শুভেচ্ছা ও ফুলেল শুভেচ্ছা

সংস্কৃত ‘ফুল্ল’ শব্দ থেকে উদ্ভূত এবং বিশেষণ পদ হিসেবে ব্যবহৃত তদ্ভব ‘ফুল’ শব্দের অর্থ- পুষ্প বা কুসুম প্রভৃতি। ফুলের অর্থ- পুষ্পের, পুষ্পের তৈরি প্রভৃতি।  যেমন : ফুলের গন্ধে ঘুম আসে না। ফুলের মতো সুন্দর। ফুলের মালা। বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত হিন্দি ‘ফুলেল’ শব্দের অর্থ- পুষ্পময়, কুসুমিত, ফুলের মতো মোহনীয়, ফুলের গন্ধযুক্ত প্রভৃতি। যেমন : শিক্ষার্থীরা প্রধান অতিথিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাল।
 
“ফুলের শুভেচ্ছায় প্রধান অতিথি আপ্লুত হলেন”- বাক্যটি হবে হাস্যকর। কারণ, ফুল কাউকে নিজ থেকে শুভেচ্ছা দিতে পারে না।তাই, “ফুলেল শুভেচ্ছায় প্রধান অতিথি আপ্লুত হলেন”- লেখাই যৌক্তিক হবে। “জাফরের শুভেচ্ছায় প্রধান অতিথি আপ্লুত হলেন” বাক্যের অর্থ : জাফর নামের ব্যক্তির দেওয়া শুভেচ্ছায় প্রধান অতিথি আপ্লুত হলেন, কিন্তু “ফুলের শুভেচ্ছায় প্রধান অতিথি আপ্লুত হলেন”- বাক্যের অর্থ হবে, ‘ফুল কর্তৃক প্রদত্ত শুভেচ্ছায় প্রধান অতিথি আপ্লুত হলেন’।

সূত্র: ড. মোহাম্মদ আমীন, বাংলা ভাষার মজা, পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

 

ফোঁটা ফোটা, দেখতে হবে না মেয়েটি কার!
মাম লিখতে বলেছে, “এক ফোঁটা জল পেলে সজীব হয়ে ওঠত ফোটা ফুলটা।”
শামীমা লিখল, “এক ফোটা জল পেলে সজীব হয়ে ওঠত ফোঁটা ফুলটা।”
বাক্যটি বারবার দেখছিল শামীমা ।
ফোটা আর ফোঁটা নিয়ে ভারি মুশকিলে পড়ে যায় সে।
হঠাৎ শামীমার চুল থেকে তারার মতো দুই বিন্দু জল খসে পড়ল খাতায়। এক বিন্দু জল ‘ফোটা’ শব্দের ‘ফ’ বর্ণে চন্দ্রবিন্দু হয়ে বসে গেল। আর এক বিন্দু জল ‘ফোঁটা’ শব্দের চন্দ্রবিন্দুটা অমাবস্যার চাঁদের মতো বিলীন করে দিল।
হায় হায়, কী হবে, বানান ভুল হলে তো মা আস্ত রাখবে না। শামীমা হাত দিয়ে ‘ফোঁটা’ আর ‘ফোটা’ শব্দদুটোকে আগের মতো করতে যাবে এসময় তার মাম এসে গেল।
খাতা দেখে মাম বলল, এতদিন পর তুমি ফোঁটা আর ফোটা শব্দের বানান ঠিকভাবে লিখতে পারলে।মা আমার ভালো হয়ে যাচ্ছে দিন দিন।
শামীমা খুশি হলো। কিন্তু সে তো জানে এই কৃতিত্ব তার নয়, চুলবিন্দুজলের।
আসল কথা জানিয়ে দেওয়ার জন্য মামকে বলল,
শুদ্ধ কীভাবে হলো জান মাম?
মাম বলল, জানি।
কীভাবে?
মাম বলল, ‘ফোঁটা’ শব্দের অর্থ হচ্ছে তরল পদার্থের বিন্দু, টিপ, তিলক, ছোটো, বিন্দুচিহ্ন ইত্যাদি। তাই তুমি বিন্দু অর্থ প্রকাশিত ফোঁটা শব্দের মাথায় চন্দ্রবিন্দু দিয়েছ। আমরাও ছোটোবেলায় এভাবে মনে রেখেছি। ‘ফোটা’ শব্দের অর্থ প্রস্ফুটিত হওয়া, প্রকাশিত হওয়া, বিস্ফোরিত হওয়া, সেদ্ধ হওয়া, উন্মিলিত হওয়া ইত্যাদি। এখানে বিন্দুর কোনো কাজ নেই। তাই তুমি বিন্দু দাওনি। ঠিক বলেছি না?
মায়ের কথায় শামীমা বুঝে গেল ফোঁটা আর ফোটা কী। সে আর আসল কথা খুলে বলল না।
বুদ্ধিমান মেয়ের মতো বলল, মাম, তুমি বড্ড চালাক। কিন্তু – – –
কিন্তু আবার কী?
আমি তোমার চেয়েও চালাক।
শামীমার মাম বলল, দেখতে হবে না মেয়েটা কার!
সূত্র : গল্পে গল্পে বাংলা বানান, ড. মোহাম্মদ আমীন, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।
শুবাচ গ্রুপ এর লিংক: www.draminbd.com

শুদ্ধ বানান চর্চা (শুবাচ) প্রমিত বানানবিধি

বাংলা সাহিত্যের প্রথম ও প্রধান

error: Content is protected !!