বই মানে কচুর লতি, বই মানে বোঝা

ড. মোহাম্মদ আমীন
সংযোগ: https://draminbd.com/বই-মানে-কচুর-লতি-বই-মানে-বো/
[“বই মানে কচুর লতি, বই মানে পুস্তক; বই মানে বহন করা, শিখিয়েছেন শিক্ষক।”]

টলস্টয় বলেছেন, “জীবনে মাত্র তিনটি জিনিসের প্রয়োজন— বই বই এবং বই।” টলস্টয় আসলে কোন তিনটি বইয়ের কথা বলেছেন, তা তিনিই জানেন।

ড. মোহাম্মদ আমীন

তবে কেন বলেছেন তা আমরা এক সুন্দর ব্যাখ্যায় মনের মধ্যে ধারণ করে নিয়েছি। যদিও সেই ব্যাখ্যাত ধারণা অনুসারে কাজ করি না।  টলস্টয়ের ভাণ্ডারে বইয়ের সংখ্যা তিন। আমাদের বাংলায় বইয়ের সংখ্যা চার। টলস্টয়ের চেয়ে একটা বেশি। তাই বুঝি বাঙালিরা এত হুজুগে। আধুনিক বাংলা অভিধানেও বই চার প্রকার। যথা: বই বই বই এবং বই। চার বইয়ের এক বই পড়ার জন্য, এক বই খাওয়ার জন্য, এক বই অনুভব আর অস্থা কিংবা বিশ্বাসের ধারণা প্রকাশের জন্য এবং বাকি বইটি বহন আর ক্রিয়া সম্পাদনের জন্য। জীবনে বাঁচতে হলে প্রথম  বইটি না হলেও চলে। কিন্তু পরের তিনটি বই না হলে চলে না। প্রথম বইটি পড়ার জন্য।  বই না পড়ে বেঁচে থাকা যায়, কিন্তু না খেয়ে আর না-বহন করে কিংবা আস্থা-অনাস্থায় সজাগ না থাকলে বেঁচে থাকা যায় না।

প্রয়োগ: বই আর বই বই করে  সে ক্লান্ত। বই  মানে কচুর লতি, বই মানে বোঝা; বই বয়ে  শিশুরা সব হয়ে গেছে গুঁজা।
নিচে দেখুন তিন বইয়ের অবস্থা। নিচে দেখুন তিন বইয়ের অবস্থা। প্রসঙ্গত, অর্থ-কাজ ভিন্ন হলেও তিনটি বই-এর উচ্চারণই ‘বোই্‌’।
  • বই: এটি আরবি বই। এটি পড়তে হয়। খাওয়ার জন্য নয়। তাই খাওয়া যায় না। অভিধানমতে, বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত ও আরবি ‘বহি’ থেকে উদ্ভূত ‘বই’ অর্থ— একসঙ্গে গেঁথে সেলাই করা বা আঠা দিয়ে জোড়া এবং মোড়কে আবৃত লিখিত বা মুদ্রিত পৃষ্ঠার সংকলন, পুস্তক, গ্রন্থ, খাতা (হিসাবের বই, তালিকার বই)।
প্রয়োগ: বই জ্ঞানের ভান্ডার। বইমেলায় বই কিনতে যাব।
  • বই: এটি দেশি বই। তাই এটি দেশেই বেশি পাওয়া যায়। দেশি বই পড়া যায় না। এটি খেতে হয়। তাই খেতে পাওয়া যায়। পাঠাগারে পাওয়া যায় না।  বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত দেশি বই অর্থ— কচুর লতি। কচুর লতি অর্থে বই শব্দটির প্রয়োগ বিরল। কচুর লতি লাগলে কানের লতি চুলকায়। বই কুটে কেউ হাত দিও না কানের লতিতে, এই কথাটি লেখা আছে রাঁধার বহিতে।
প্রয়োগ: বাজার হতে আনা বইগুলো কেটেকুটে আগুনে বসিয়ে দিল মেয়ে। বাবা বই পড়ে বই খেয়ে তৃপ্তি পে লেন ভারি।
  • বই: এটি খাঁটি বাংলা বই। এ বই দেখা যায় না। খাঁটি বাঙালির মতো পুরোটাই অনুভবের বিষয়। আস্থা আর অবিশ্বাসের বিষয়। তাই কথা দিয়ে প্রকাশ করতে হয়। সংস্কৃত ব্যতীত হতে উদ্ভূত এবং বাক্যে সাধারণত অব্যয় হিসেবে ব্যবহৃত খাঁটি বাংলা বই অর্থ— ছাড়া, ব্যতীত, ভিন্ন, অন্য। তুমি বই আর কে করবে এমন কাজ!
তুমি বই আমার আর, কে আছে গো সই/ তাই তোমায় বই, আমি গোপনে দি বই। রাগ করো না সই আমার, রাগ করো না সই।

 

  • বই: এটি বাংলা বই। এটি একটা বোঝা। বাংলা বই খেতেও পাওয়া যায় না, আবার পাঠাগারেও পাওয়া যায় না। অভিধানমতে, বাংলা বই অর্থ— (ক্রিয়ায়) বহন করি। বিশেষ্যে বাংলা বই শব্দটি ‘বহন’ শব্দের বর্তমান কালের উত্তম পুরুষের রূপ হিসেবেও ব্যবহৃত হয়।
প্রয়োগ: আমি বই (বহন করি)। বই (পুস্তক) একটি বই (বোঝা); এর চেয়ে খেতে গিয়ে বই (কচুর লতি) তোলা অনেক সহজ।

সাহেবের ডান হাতে বাজার ভর্তি থলে। অন্য হাতে কচুর লতি। দেখে দৌড়ে এলেন এক মুটে পথশিশু, স্যার, বাজার আর বইগুলো আমাকে

পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি. ড. মোহাম্মদ আমীন, মূল্য: ৭০০ টাকা।

দিন?

তুমি কে? স্যাহেব বলেন।
স্যার, আমি বই।
আমি তো দেখছি তুমি মানুষ।
না, স্যার আমি বই।
কী বলো?
হ, স্যার আমি বই। মানে, আমি বহন করি।
বইটা বইঠা বই বই বই
বইঠার কাছে বইটা, পড়ে নিও ওইটা।
যাব আমি বাজার, 
বই আনব বই করে, খেতে হবে সবার।
এখানে বইঠা অর্থ: নৌকোর ছোটো দাঁড়; বইটা অর্থ: পুস্তকটি; ‘বই আনব’ অর্থ: কচুর লতি আনব; ‘বই করে’ অর্থ: বহন করে।
বিস্তারিত ও বাকি অংশ:
জানা অজানা অনেক মজার বিষয়: https://draminbd.com/…
শুবাচ গ্রুপের সংযোগ: www.draminbd.com
শুবাচ যযাতি/পোস্ট সংযোগ: http://subachbd.com/
Spelling and Pronunciation
HTTPS://DRAMINBD.COM/ENGLISH-PRONUNCIATION-AND-SPELLING-RULES-ইংরেজি-উচ্চারণ-ও-বান/
বাঙালির খাবারদাবার: https://draminbd.com/বাঙালির-খাবারদাবার/
error: Content is protected !!