বঙ্গবন্ধুর জন্ম পিতামাতা স্ত্রী ও পুত্রকন্যা

বঙ্গবন্ধুর জন্ম
বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ খ্রিষ্টাব্দের ১৭ই মার্চ রোজ মঙ্গলবার রাত ৮ ঘটিকায় ফরিদপুর জেলার তৎকালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার পাটগাতী ইউনিয়নের টুঙ্গীপাড়া গ্রমে জন্মগ্রহণ করেন। প্রসঙ্গত, গোপালগঞ্জ বর্তমানে একটি জেলা।
বঙ্গবন্ধুর পিতামাতা
বঙ্গবন্ধুর পিতার নাম শেখ লুৎফর রহমান এবং মাতার নাম সায়েরা খাতুন। পিতা শেখ লুৎফর রহমান গোপালগঞ্জ মহকুমা আদালতে সেরেস্তাদারের চাকরি করতেন। চার বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু তৃতীয়।
শেখ লুৎফর রহমানের প্রয়াণ
বঙ্গবন্ধুর পিতা গোপালগঞ্জ দায়রা আদালতের সেরেস্তাাদার শেখ লুৎফর রহমান ১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ শে মার্চ মারা যান। তাঁকে টুঙ্গিপাড়ায় সমাধিস্থ করা হয়।
বঙ্গবন্ধুর মা সায়েরা খাতুনের মৃত্যু
১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দের ৩১ শে মার্চ বঙ্গবন্ধু মা সায়েরা খাতুন মারা যান। সায়ের খাতুনের স্বামী শেখ লুৎফর রহমান তাঁর মাত্র একদিন পূর্বেই ১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ শে মার্চ মারা যান। তাঁদের দুজনকেই টুঙ্গিপাড়ায় সমাহিত করা হয়। একই বছর ১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ই অগাস্ট নিহত হন নৃশংস হত্যাকা-ে সপরিবারে নিহত হন তাদের পুত্র বাঙালি জাতির জনক স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধুকেও টুঙ্গিপাড়ায় সমাহিত করা হয় তাঁর বাবা-মায়ের কবরের পাশে। ১৯৭৫ খ্রিষ্টাব্দের অগাস্ট মাস ছিল বঙ্গবন্ধু পরিবারের জন্য মহা দুর্দিন।
বঙ্গবন্ধুর ডাক নাম
বঙ্গবন্ধুর ডাক নাম খোকা। পিতা-মাতা এবং পরিবারের সদস্যবর্গ এবং আত্মীয়স্বজন তাঁকে আদর করে ‘খোকা’ নামে ডাকতেন। গ্রামবাসীরা ডাকতেন মিঞা ভাই এবং বন্ধুদের কাছে তিনি মুজিব ভাই নামে সমধিক পরিচিত ছিলেন। গ্রামীণ মুরুব্বিরা তাঁকে ডাকতেন শেখের ব্যাটা।
মুজিব শব্দের অর্থ
মুজিব শব্দের অর্থ – উত্তর দাতা, বা সঠিক উত্তরদাতা, সাড়াদানকারী প্রভৃতি। প্রসঙ্গত, একটা শব্দের একাধিক অর্থ থাকে। বঙ্গবন্ধুর মাতামহ শেখ আবদুল মজিদ এই নাম রাখেন।
বঙ্গবন্ধুর ভাইবোন
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সহোদর ছয় ভাইবোনদের মধ্যে তৃতীয়। বঙ্গবন্ধুর বড় বোন ফাতেমা বেগম, মেজো বোন আছিয়া বেগম, সেজবোন আমেনা বেগম, ছোট ভাই শেখ আবু নাসের ও ছোট বোন খোদেজা বেগম। ছোটবেলায় বঙ্গবন্ধু টুঙ্গিপাড়ায় ভাই- বোনদের সঙ্গে একত্রে বসবাস করতেন।
বঙ্গবন্ধুর দৈহিক অবয়ব
ছোটবেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিপছিপে গড়নের ছিলেন। রোগা ছিলেন বলে মা তাঁকে মোট হওয়ার জন্য প্রায়শ মাখন খাওয়াতেন। তবে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শেখ মুজিবের দেহ বলিষ্ঠ হতে থাকে। তিনি লম্বায় ছিলেন ৫ ফুট ১১ ইঞ্চি। চেহারায় ছিল আকর্ষণীয় গাম্ভীর্য এবং বিমোহিত ব্যক্তিত্বে প্রভাবক স্ফূরণ। তাঁর হাত দুটি ছিল যেমন বলিষ্ঠ তেমনি পেশীবহুল। সবচেয়ে আকর্ষণীয় ছিল তাঁর বুক। চওড়া এবং সাহসে ভরপুর বুকের কারণেই তাঁর বুককে হিমালয়, সবুজ শ্যামল প্রকৃতি বা উন্মুক্ত আকাশের সাথে তুলনা করা হয়। তাঁর মুখাবয় ছিল সৌম্য। আচরণে ছিলেন অমায়িক, কিন্তু নীতির ক্ষেত্রে বজ্রকঠিন। প্রচ- সাহসী ছিলেন বঙ্গবন্ধু, কোনো অবস্থাতে ভীত হতেন না।
বঙ্গবন্ধুর বিবাহ
বঙ্গবন্ধু সন্তানদের নামকরণের ইতিহাস

error: Content is protected !!