বঙ্গবন্ধুর পুত্রকন্যা

বঙ্গবন্ধুর পুত্রকন্যা
বঙ্গবন্ধু দম্পতির ঘরে দুই কন্যা এবং তিন পুত্রের জন্ম হয়। কন্যারা হলেন শেখ হাসিনা এবং শেখ রেহানা। পুত্রদের নাম শেখ কামাল, শেখ জামাল এবং শেখ রাসেল। শেখ কামাল ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দে মুক্তিবাহিনীর গেরিলা যুদ্ধের সমন্বয়ক ছিলেন এবং স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর যুদ্ধকালীন কমিশন লাভ করেন। শেখ জামাল গ্রেট ব্রিটেনের রয়েল মিলিটারি একাডেমি স্যানডহার্স্টে প্রশিক্ষণ নেন এবং এরপর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমিশনড অফিসারপদে যোগ দেন। ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দের ১৭ই এপ্রিল শেখ হাসিনাসহ পরিবারের অন্যান্যদের মগবাজারের একটি ভাড়া বাড়ি থেকে পাক বাহিনীর লোকজন আটক করে ধানমন্ডি স্কুলের কাছে ১৮ নম্বর সড়কের একটিএকতলা বাড়িতে বন্দি করে রাখে। বাড়িটি সর্বদা পাকিস্তানি সৈন্যদের পাহারায় থাকত। বাড়িতে কোনো আসবাবপত্র ছিল না। ফ্লোরে চাদর বিছিয়ে সবাইকে থাকতে হতো। ড. ওয়াজেদ মিয়া আণবিক শক্তি কমিশনের চাকরিতে যোগ দিলেন। তাকে প্রতি মাসে বেতন দেয়া হতো। পাকিস্তানি সৈন্যরা ওয়াজেদ মিয়া ছাড়া ওই বাড়ি থেকে কাউকে বের হতে দিত না। ওই বন্দি অবস্থায় শেখ হাসিনার প্রথম সন্তান সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্ম হয়। ১৬ ডিসেম্বর দেশ স্বাধীন হলে ১৭ ডিসেম্বর ‘৭১ ধানমন্ডির পাক হানাদার বাহিনীর বন্দিশিবির থেকে বেগম মুজিব, শেখ হাসিনাসহ সবাই মুক্তি পান। শেখ হাসিনার ওই বন্দি শিবির ছিল জেনারেল জামসেদের অধীনে।

error: Content is protected !!