বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/১২

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস

ড. মোহাম্মদ আমীন

জাতীয় যুব দিবস : ইডিসেম্বর

প্রতিবছর ৮ই ডিসেম্বর দিবসটি পালিত হয়। যুবদেরকে তাদের শক্তির অপরিমেয়ে প্রচণ্ডতা এবং তা জাতি গঠনের কাজে লাগানোর বিষয়ে প্রাণিত করাই দিবসটির উদ্দেশ্য।

 রোকেয়া দিবস : ৯ই ডিসেম্বর

রোকেয়া দিবস বাংলাদেশে সরকারিভাবে পালিত একটি জাতীয় দিবস।  বেগম রোকেয়া ১৮৮০ খ্রিষ্টাব্দের ৯ই ডিসেম্বর রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার অর্ন্তগত পায়রাবন্দ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন  এবং  ১৯৩২ খ্রিষ্টাব্দের ৯ ডিসেম্বর মারা যান। তাঁর কবর উত্তর কলকাতার সোদপুরে অবস্থিত যা পরবর্তীকালে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক অমলেন্দু দে আবিষ্কার করেন ।বাঙালি লেখক, শিক্ষাবিদ, বাংলাদেশে নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার অবদানকে স্মরণ করে তাঁর জন্ম ও মৃত্যুদিন, ৯ই ডিসেম্বর,  “রোকেয়া দিবস” পালন করা হয়।

 শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস : ১৪ই ডিসেম্বর

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস বাংলাদেশে পালিত একটি বিশেষ দিবস। প্রতিবছর বাংলাদেশে ১৪ই ডিসেম্বর দিনটিকে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস হিসেবে পালন করা হয়। ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দের ১০ থেকে ১৪ই ডিসেম্বর পাকিস্তান সেনাবাহিনী বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির সকল বুদ্ধিজীবীকে হত্যা করে। এ দিনটি পালনের মাধ্যমে শহিদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করা হয়।

 বিজয় দিবস: ১৬ই ডিসেম্বর

বিজয় দিবস বাংলাদেশে বিশেষ দিন হিসেবে রাষ্ট্রীয়ভাবে দেশের সর্বত্র পালন করা হয়। প্রতিবছর ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশে দিনটি বিশেষভাবে পালিত হয়। ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দের ২২ শে জানুয়ারি প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনে এই দিনটিকে বাংলাদেশে জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করার ঘোষণা এবং সরকারীভাবে এ দিনটিতে ছুটি ঘোষণা করা হয়। ৯ মাস যুদ্ধের পর ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দের ১৬ই ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনীর প্রায় ৯১,৬৩৪ সদস্য বাংলাদেশ ও ভারতের সমন্বয়ে গঠিত যৌথবাহিনীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করে। এর ফলে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামে একটি নতুন স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রের অভ্যুদয় ঘটে। এ উপলক্ষে প্রতি বছর বাংলাদেশে দিবসটি যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য এবং বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার সাথে পালিত হয়।

 বাংলা ব্লগ দিবস: ১৯ শে ডিসেম্বর

দিবসটি প্রথমবার পালিত হয় ২০০৯ খ্রিষ্টাব্দে। ২০০৫ খ্রিস্টাব্দে ইন্টারনেটে প্রথম বাংলা ব্লগিং-এর সূচনা হয়। মূলত ব্লগিং, বিশেষ করে বাংলায় ব্লগিং-এ আগ্রহী করতেই ব্লগাররা দিবসটি পালন করে থাকেন। ইন্টারনেটে বাংলা ভাষায় ব্লগ লেখার চর্চাকে আরও ব্যাপক এবং পৃথিবীজুড়ে ছড়িয়ে দিতে ১৯ ডিসেম্বরকে বাংলা ব্লগ দিবস হিসেবে পালন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এখন ১৩৬টি দেশ থেকে বাংলায় ব্লগ চর্চা হচ্ছে।

 

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/১

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/২

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৩

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৪

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৫

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৬

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৭

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৮

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৯

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/১০

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/১১

অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম-এর আমলে বঙ্গভবন

ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র

স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ সমগ্র লিংক

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

শুদ্ধ বানান চর্চা /৪

error: Content is protected !!