বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৯

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস

ড. মোহাম্মদ আমীন

 

পথশিশু দিবস বা সুবিধাবঞ্চিত শিশু দিবস  : ২রা অক্টোবর

পথ শিশুদের সুরক্ষা ও তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রতিবছর ২রা অক্টোবর, জাতীয় পথ শিশু দিবস পালন করা হয়।

শিক্ষক দিবস৫ই অক্টোবর

১৯৯৫ খ্রিষ্টাব্দ থেকে প্রতি বছর ৫ই অক্টোবর বিশ্বব্যাপী বিশ্ব শিক্ষক দিবস পালিত হয়ে আসছে। একই সঙ্গে এটি বাংলাদেশের জাতীয় দিবস হিসেবেও পালিত হয়। এই দিবসটি শিক্ষকদের অবদানকে স্মরণ করার জন্য পালন করা হয়। ইউনেস্কোর মতে, বিশ্ব শিক্ষক দিবস শিক্ষা ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে শিক্ষকদের অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ পালন করা হয়।

কন্যা শিশু দিবস১১ই অক্টোবর

২০০০ খ্রিষ্টাব্দ থেকে দিবসটি পালিত হচ্ছে। জাতিসংঘের প্রস্তাব অনুযায়ী সারা বিশ্বে ২৯ সেপ্টেম্বর পালিত হয় ‘শিশু অধিকার দিবস’। কন্যা শিশুর যথাযথ শিক্ষা, পুষ্টি, নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ তথা সুষ্ঠু বিকাশকে সামনে রেখেই “জাতীয় কন্যাশিশু দিবস’’ পালন শুরু হয়। ২০১১ খ্রিষ্টাব্দের ১৯ ডিসেম্বর তারিখে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবসের প্রস্তাব গৃহীত হয়। ২০১২ খ্রিষ্টাব্দের ১১ অক্টোবর প্রথম আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস পালন করা হয়। বাংলাদেশে ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দ থেকে বছরের একটি দিন জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালন করা হচ্ছে। ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ২৭ সেপ্টেম্বর মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এক পত্রে জানায়, ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ শে সেপ্টেম্বর “জাতীয় কন্যা শিশু দিবস, ২০১৮” উদ্যাপন করা হবে।

নিরাপদ সকড়ক দিবস : ২২ শে অক্টোবর

চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের নেতৃত্বে গড়ে উঠা ‘নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’ ২৩ বছর ধরে সড়ককে নিরাপদ করার লক্ষ্যে আন্দোলন করে আসছে। এই আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দের ৫ই জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ২২ অক্টোবরকে ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ ঘোষণা করা হয়। কারণ ২২ শে অক্টোবর ইলিয়াস কাঞ্চনের স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চন সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান। তার স্ত্রী ১৯৯৩ খ্রিষ্টাব্দের ২২ অক্টোবর কাঞ্চনের শুটিং দেখতে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান। স্ত্রী জাহানারার মৃত্যুর পর তিনি নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন গড়ে তুলেন। সমাজসেবায় তার এই অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দে তাকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করে।

জাতীয় যুব দিবস : ১লা নভেম্বর

প্রতিবছর ১লা নভেম্বর জাতীয় যুব দিবস পালন করা হয়। যুব ও যুব মহিলাদের আত্মকর্ম উদ্যোগে উৎসাহিত করা, সৃজনশীল কাজে উদ্দীপ্ত করার মাধ্যমে জাতীয় কল্যাণে অবদান রাখার প্রেরণা সৃষ্টিই দিবসটি পালনের উদ্দেশ্য।

 

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/১

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/২

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৩

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৪

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৫

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৬

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৭

বাংলাদেশের সকল জাতীয় দিবস/৮

অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম-এর আমলে বঙ্গভবন

ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র

স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ সমগ্র লিংক

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

শুদ্ধ বানান চর্চা /৪

error: Content is protected !!