বাংলা বানান : নাসিক্য বর্ণ ঙ, ঞ, ন, ণ, ম, এবং অনুস্বার (ং) : বানানে চন্দ্রবিন্দু

ড. মোহাম্মদ আমীন

ঙ, ঞ, ন, ণ, ম, এবং অনুস্বার (ং) এ নাসিক্যব্যঞ্জনগুলোর সাথে চন্দ্রবিন্দু যুক্ত হয় না কে?

ঙ, ঞ, ন, ণ, ম এবং ং (অনুস্বার) ব্যঞ্জনগুলোর একটি স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য ও বুৎপত্তি রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে এ বর্ণগুলো মূল সংস্কৃত শব্দ থেকে সুস্পষ্টভাবে অপভ্রষ্ট হয়ে তদ্ভব শব্দে চন্দ্রবিন্দুর রূপ ধারণ করে বাংলা ভাষায় অবস্থান করে। যেমন: অন্ত্র থেকে আঁত, অঞ্চল থেকে আঁচল, ষণ্ড থেকে ষাঁড়, গ্রাম থেকে গাঁ, শঙ্খ থেকে শাঁখ, ঝম্প থেকে ঝাঁপ, বংশ থেকে বাঁশ, সিন্দুর থেকে সিঁদুর, সামন্তপাল থেকে সাঁওতাল, চম্পা থেকে চাঁপা, কঙ্কন থেকে কাঁকন, কণ্টক থেকে কাঁটা, ভাণ্ড থেকে ভাঁড় ইত্যাদি। এ জন্য নাসিক্যব্যঞ্জনগুলোর সাথে চন্দ্রবিন্দু যুক্ত হয় না। ওরা নিজেরাই চন্দ্রবিন্দুর আশ্রয়ে অন্যের মাথায় বসে, তাই বোধ হয় তাদের মাথায় চন্দ্রবিন্দুকে বসতে বলার সাহস পায় না! 

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ সকল সাধারণ জ্ঞান

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

কীভাবে হলো দেশের নাম

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ সকল সাধারণ জ্ঞান

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি ভর্তি গাইড

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে  ভর্তি হবেন যেভাবে

error: Content is protected !!