বাংলা ব্যাকরণ অভিধান: ব্যাকরণ অভিধান: একমলাটে ব্যাকরণ অভিধান

ঐ : বাংলা স্বরবর্ণ ও স্বরধ্বনি ‘ওই’-এর প্রতীক। এ স্বরধ্বনি মৌলিক নয়, যৌগিক। এর স্বরচিহ্ন ঐ-কার [দেখুন]।

ঐ-কার : যৌগিক স্বরধ্বনি ‘ঐ’ কোনো ব্যঞ্জনধ্বনি কিংবা যুক্তব্যঞ্জন ধ্বনিতে যুক্ত হলে তা লেখার জন্য যে স্বরচিহ্নটি ব্যবহৃত হয়, তার নাম ঐ-কার। চিহ্নটি হলো ‘’ৈ যা আশ্রিতব্যঞ্জনের বামে বসে। যেমন- দৈ, নৈ, ক্লৈ। এদের বিশ্লেষণ যথাক্রমে দ্ + ঐ; ন্ + ঐ; ক্ + ল্ + ঐ।
ঐতিহাসিক বর্তমান : ঐতিহাসিক ঘটনার বর্ণনায় কিংবা প্রয়োগে ক্রিয়াপদের পুরাঘটিত অতীতকালের স্থানে সাধারণ বর্তমানকাল এমনকি ঘটমান বর্তমানকালেও প্রয়োগ আছে। অতীতকালের স্থলে বর্তমানকালের এরকম প্রয়োগকে ঐতিহাসিক বর্তমান বলা হয়। যেমন- ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দে বাংলাদেশ স্বাধীন হয় (হয়েছিল অর্থে)। তিনি প্রায় ৪০ বছর রাজত্ব করেন (করেছিলেন অর্থে)। আমার পিতামহ ১৯২০ খ্রিষ্টাব্দে বি এ পাশ করেন। ১৯২১ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হয়। [দেখুন- কাল]

error: Content is protected !!