বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস: বুজরুকি

বুজরুকি: পাণ্ডিত্যের ভান, অলৌকিক শক্তির অধিকারী হওয়ার ভান, ছলনা, প্রতারণা, চালাকি, শঠামি প্রভৃতি অর্থ প্রকাশে ‘বুজরুকি’ শব্দটা প্রয়োগ করা হয়। ফারসি বুজুর্গ্ হতে বাংলা ‘বুজরুক’ এবং বুজুর্গি শব্দ হতে ‘বুজরুকি’ শব্দের উদ্ভব। বুজুর্গরা যা

পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

করেন সেটি বুজুর্গি বা বুজরুকি। ফারসি বুজুর্গ্ শব্দের অর্থ— বিশাল, বৃহৎ, মহৎ, মহান, বৃদ্ধ, প্রবীণ প্রভৃতি। ‘বুজরুক’ শব্দের পাশাপাশি বাংলায় বুজুর্গ্ শব্দের ব্যবহারও প্রচলিত। বাংলায় প্রচলিত বুজুর্গ্ শব্দটি ফারসি বুজুর্গ্ শব্দের মহান ও মহৎ অর্থ দুটো ধারণ করছে। বাকি অর্থগুলো ঠেলে দিয়েছে ‘বুজরুক’ শব্দের শরীরে। বুজুর্গ্ তাহলে কেন বুজরুক হয়ে অর্থ ধারণ করল?  মহান বা মহৎ পরিচিত ব্যক্তিদের অনেকে পাণ্ডিত্য বা অলৌকিকত্য প্রভৃতির ভান করে সাধারণ মানুষের কাছে নিজেদের জাহির করার চেষ্টা করে। অনেকে আবার সংকীর্ণ স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করে। এটি শুধু পারস্যে নয়, পৃথিবীর প্রত্যেক দেশে ছিল এবং আছে। তবে সব মহান ব্যক্তিই যে এ রকম করে তা নয়। যারা এমনটি করে তাদের জন্য ফারসি বুজুর্গ্ বাংলায় ‘বুজরুক’ হয়ে গেলেও প্রকৃত মহান ব্যক্তিরা এখনও  বুজুর্গ্ই রয়ে গেছেন।

মানসপুত্র: ‘মানসপুত্র’ মানে মন হতে উৎপন্ন পুত্র। ব্রহ্মার সাত কিংবা দশজন ‘মন’ হতে জাত পুত্র। এ মানসপুত্র হতে পৃথিবীর মানবজাতির জন্ম। এ দশজন মানসপুত্রকে ‘প্রজাপতি’ বলা হয়। যেমন মরিচি, অত্রি, অঙ্গিরা, পুলস্ত্য, পুলহ, ক্রতু, বশিষ্ঠ, প্রচেতা, দক্ষ, ভৃগু এবং নারদ। কোনো কোনো পণ্ডিত মনে করেন সাতজন প্রজাপতি ছিলেন। তাঁদের ‘সপ্তর্ষি’ বলা হয়। এ সপ্তর্ষিদের এখন আকাশে তারারূপে দেখা যায়।
সূত্র: বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস, ড. মোহাম্মদ আমনি, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

All Link

All Links/1

বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস

বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস: সুরা, লেজেগোবরে, সাতসমুদ্র, বিরাশি সিক্কার চড়

বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস: বাটপাড়, ষোলোকলা, হাবভাব

বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস: বস্তাপচা বুলি, ফোড়ন কাটা, ফুলঝুরি

বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস: যত দোষ নন্দ ঘোষ প্রফুল্ল চালশে

মাস্ক ( mask) ও করোনাভাইরাস জীবাণু বীজাণু এবং বিবিধ

দেখুন আপনার পোস্ট/যযাতি কেন অনুমোদন হয় না।

error: Content is protected !!