বাংলা সাহিত্যের প্রথম ও প্রধান/১

ড. মোহাম্মদ আমীন

মাতৃভাষা বর্ণনায় বাঙালির প্রথম প্রচেষ্টা
রাজা রামমোহন রায়ের ‘গৌড়ীয় ব্যাকরণ’ (১৮৩৩খ্রি.) মাতৃভাষা বর্ণনায় কোনো বাঙালি লেখকের প্রথম প্রচেষ্টা হিসেবে স্বীকৃত।

বাংলা মুদ্রণ যন্ত্রের ইতিহাসে প্রথম হাফটোন ব্লকের ব্যবহার
উপেন্দ্র কিশোর রায় চৌধুরী, বাংলা মুদ্রণ যন্ত্রের ইতিহাসে প্রথম হাফটোন ব্লকের ব্যবহার করেন। তিনি ছিলেন একাধারে লেখক, চিত্রকর ও মুদ্রাকর।

ভাষাতত্ত্বে বাংলাদেশের প্রথম পিএইচডি ডিগ্রিধারী
কাজী দীন মুহাম্মদ, বাংলা ভাষাতত্ত্বে বাংলাদেশের প্রথম পিএইচডি ডিগ্রি লাভের লাভের গৌরবের অধিকারী হিসেবে স্বীকৃত।

আঞ্চলিক ভাষার প্রথম অভিধান
ব্রিটিশ সরকারের উদ্যোগে জি.এ গ্রিয়ারসন-এর সম্পাদনায় প্রকাশিত ‘Linguistic Survey of India’  (১৯০৩- ১৯২৮) এবং এফ.ই পার্জিটার এর সম্পাদনায় এসিয়াটিক সোসাইটি হতে প্রকাশিত হয় ‘Vocabulary of Peculiar Vernacular Bengali Words’ (১৯২৩ খ্রিষ্টাব্দ ) বাংলা ভাষার আঞ্চলিক ভাষার প্রথম অভিধান।

বাংলাদেশে বাংলা ভাষায় পিএইচডি পর্যায়ে ডিগ্রি প্রদানের অগ্রদূত
মুহম্মদ আবদুল হাই বাংলাদেশে, বাংলা ভাষায় পি.এইচ.ডি পর্যায়ে ডিগ্রি প্রদানের অগ্রদূত হিসেবে খ্যাত। তাঁর তত্ত্বাবধানে বাংলা বিভাগ হতে চার জন গবেষক পি.এইচ.ডি ডিগ্রি লাভ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ হতে প্রকাশিত ‘সাহিত্য পত্রিকা’ আবদুল হাইয়ের শ্রেষ্ঠ কীর্তি।

বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে ছাপার অক্ষরে প্রথম বাংলা বই
‘কৃপা শাস্ত্রের অর্থভেদ’ বাংলা ছাপার অক্ষরে লেখা প্রথম বাংলা বই। ১৭৩৪ খ্রিষ্টাব্দে ম্যানুয়াল দ্যা আসসুম্পসাঁউ এর ‘Creper xaxtrer orthbed’ রচিত হয়। বঙ্গদেশে বাংলা হরফ-ছেনি ও মুদ্রণ যন্ত্র ছিল না বলে ১৭৪৩ খ্রিষ্টাব্দে পর্তুগালের রাজধানী লিসবন হতে গ্রন্থটি রোমান হরফে মুদ্রিত ও প্রকাশিত হয়। তাঁর অন্য গ্রন্থের নাম ‘Vocabularis Em Idioms Bengalla’ এটি বাংলা ভাষার প্রথম ব্যাকরণ ও অভিধান হিসেবে খ্যাত। গ্রন্থটি ১৭৪৩ খ্রিষ্টাব্দে লিসবন হতে রোমান অক্ষরে মুদ্রিত ও প্রকাশিত হয়। এটি বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে ছাপার অক্ষরে প্রকাশিত দ্বিতীয় বাংলা গ্রন্থ।

বাংলা সাহিত্যের প্রথম অভিধান বা কোষগ্রন্থ
১৮১৫ খ্রিষ্টাব্দে চারখণ্ডে প্রকাশিত ‘কেরি’স ডিকশনারি’ (Carey’s Dictionary) বাংলার প্রথম অভিধান। এটি বাংলা সাহিত্যের প্রথম কোষগ্রন্থ হিসেবেও খ্যাত।

গদ্যে প্রথম সংস্কৃত ব্যাকরণ রচয়িতা
ঋগ্‌বেদের বঙ্গানুবাদের সূত্রপাতকারী ও গদ্যে প্রথম সংস্কৃত ব্যাকরণ রচয়িতা মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর (১৮১৭-১৯০৫খ্রি.) ‘তত্ত্ববোধিনী সভা’ ও ‘তত্ত্ববোধিনী পত্রিকা’র প্রতিষ্ঠাতা এবং গদ্যে প্রথম সংস্কৃত ব্যাকরণ রচয়িতা হিসেবে বাংলা সাহিত্যে অমর হয়ে থাকবেন। ১৮৯৮ খ্রিষ্টাব্দে রচিত ও মৃত্যুর পর প্রকাশিত দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘স্বরচিত জীবনচরিত’ বাংলা সাহিত্যের একটি উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ।


শুদ্ধ বানান চর্চা (শুবাচ) গ্রুপের নীতিমালা ও যযাতি অনুমোদন

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

দৈনন্দিন বিজ্ঞান লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

কীভাবে হলো দেশের নাম

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২


বিসিএস বাংলা সাধারণ জ্ঞান/১১ (শুবাচ)

error: Content is protected !!