বাংলা সাহিত্যে মুসলিম প্রথম ও প্রধান/৪

ড. মোহাম্মদ আমীন

প্রথম সার্থক মুসলিম ব্যঙ্গ সাহিত্যিক
আবুল মনসুর আহমদ বাংলা সাহিত্যের প্রথম সার্থক মুসলিম ব্যাঙ্গ সাহিত্যিক। কাজী দীন মুহাম্মদ বাংলা সাহিত্যের আরেক বিখ্যাত ব্যঙ্গ লেখক। ‘গোলক চন্দ্রের আত্মকথা’ তাঁর একটি জনপ্রিয় ব্যাঙ্গ রচনা।
মুসলমান রচিত প্রথম পাকপ্রণালী গ্রন্থ
সুধাকর দলের প্রবর্তনকারীদের অন্যতম মুন্সী মোহাম্মদ রেয়াজুদ্দিন আহমদ (১৮৬২-১৯৩৩ খ্রিষ্টাব্দ) লিখিত ‘মোসলেম পাকপ্রণালী’ গ্রন্থটি মুসলমান লিখিত পাকপ্রণালীর বিবরণ সম্বলিত প্রথম গ্রন্থ।
মুসলমান রচিত প্রথম পত্ররচনা শিক্ষাগ্রন্থ
ইসলাম ধর্ম প্রচারে মুন্সী মেহেরুল্লাহর সহকর্মী মুন্সি মোহাম্মদ জমিরুদ্দিন (১৮৭০-১৯৩০ খ্রিষ্টাব্দ ) রচিত ‘বিশুদ্ধ খতনাম’ গ্রন্থটিই কোনো মুসলমান লিখিত প্রথম পত্ররচনা শিক্ষা গ্রন্থ।
নওয়াব উপাধি প্রাপ্ত প্রথম মুসলিম মহিলা সাহিত্যিক
সারা বাংলাদেশে নওয়াব ফয়জুন্নেসাই (১৮৫৮-১৯০৩ খ্রিষ্টাব্দ ) একমাত্র মহিলা যিনি নওয়াব খেতাবে ভূষিত হয়েছিলেন। ১৮৭৬ খ্রিষ্টাব্দে প্রকাশিত ’রূপজালাল’ নামক আত্মজীবনী তাঁর একমাত্র গ্রন্থ।
অনগ্রসর মুসলমান সমাজের নবজাগরনের উদ্যোগ
মওলানা আকরম খাঁ (১৮৬৯-১৯৬৮ খ্রি.) অনগ্রসর মুসলমান সমাজের নবজাগরণের উদ্যোক্তা। তিনি একাধারে রাজনীতিবিদ, সাহিত্যিক ও সাংবাদিক ছিলেন।
বাংলা সাহিত্যে প্রথম মুসলিম ব্যারিস্টার সাহিত্যিক
এস ওয়াজেদ আলী বাংলা সাহিত্যের প্রথম মুসলিম ব্যারিস্টার সাহিত্যিক। প্রথমে আইনজীবী হিসেবে পেশা শুরু করলেও পরে প্রেসিডেন্সি ম্যাজিস্টেট হিসেবে নিযুক্ত হন। ‘গুলিস্তান’ নামে তিনি একটি মাসিক পত্রিকা স¤পাদনা করেন। ‘ভবিষ্যতের বাঙ্গালী’তাঁর বিখ্যাত গ্রন্থ।

error: Content is protected !!