বাকেরগঞ্জ

ড. মোহাম্মদ আমীন

 বরিশাল, খুলনা ও বাগেরহাট অঞ্চলই ছিল প্রাচীন বাকেরগঞ্জ। দক্ষিণ-পূর্ব বাংলায় মুসলিম আধিপত্য বিস্তার কালে রাজা দনুজমর্দন ‘চন্দ্রদ্বীপ’ নামের স্বাধীন রাজ্যটি প্রতিষ্ঠা করেন। এ রাজ্য প্রতিষ্ঠার পূর্বে এ অঞ্চল ‘বাকলা’ নামে পরিচিত ছিল। ‘বাকলা’ অর্থ শস্য ব্যবসায়ী যা আরবি শব্দ থেকে আগত। অতি প্রাচীন বৈদেশিক মানচিত্রে বাকলা-চন্দ্রদ্বীপ নাম দেখা যায়। নবাব আলীবর্দী খানের আমলে বুজুর্গ উমেদপুরের জমিদার ঢাকার আগাবাকের খান এখানে ১৭৪১ খ্রিষ্টাব্দে নিজ নামে একটি গঞ্জ প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর নামানুসারে গঞ্জের আশেপাশের এলাকার নাম রাখা হয় বাকেরগঞ্জ। ১৭৯৬ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত এটি বাকলা-চন্দ্রদ্বীপ নামে পরিচিত ছিল। ১৭৯৭ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা জেলার দক্ষিণাঞ্চল নিয়ে বাকেরগঞ্জ জেলা প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮০১  খ্রিষ্টাব্দে বাকেরগঞ্জ জেলার ‘সদর দপ্তর’ বরিশালের গিরদ বন্দর স্থানান্তর করা হয়। ১৮১২ খ্রিষ্টাব্দে এ জেলায় ১৫টি থানা ছিল। বাকেরগঞ্জ জেলা নামটি ১৭৯৭ থেকে ১৯৯৩ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত ছিল। ১৯৯৩ খ্রিষ্টাব্দে বরিশাল বিভাগ সৃষ্টির ফলে বাকেরগঞ্জ নামটি জেলা থেকে বাদ দেওয়া হয়। আগাবাকের খানের স্মৃতিবিজড়িত বাকেরগঞ্জ নামটি বর্তমানে কেবল বাকেরগঞ্জ উপজেলাতেই সীমাবদ্ধ রয়েছে।

error: Content is protected !!