বাঙ্গি বনাম ভাঙ্গি: প্রজাপতি ও প্রজাবতী; বিস্ফোরিত ও বিস্ফুরিত; চলাফিরা ও চলাফেরা

ড. মোহাম্মদ আমীন
 
 
সংযোগ: https://draminbd.com/বাঙ্গি-বনাম-ভাঙ্গি-প্রজা/
 
বাঙ্গি: বাঙ্গি দেশি শব্দ। বাক্যে বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত বাঙ্গি  অর্থ— পাকলে ফেটে যায় এমন কাঁকুর বা শস্যজাতীয় ফলবিশেষ, ফুটি। কাঁধে ভার বহনের বাঁককেও বাঙ্গি বলা হয়। বাঙি আমার প্রিয় একটি ফল। বছরে অন্তত পাঁচটি বাঙ্গি খান। সারাবছর আপনার পাকস্থলীর কার্যক্রম আমাজানের মতো নাব্য থাকবে।
 
ভাঙি: ভাঙিও দেশি শব্দ। তবে ভাঙ্গির সঙ্গে বাঙ্গির কোনো সম্পর্ক নেই। ভাং থেকে ভাঙ্গি। যারা ভাং সেবন করে তাদের ভাঙ্গি বলে। অভিধানমতে, ভাং অর্থ— সিদ্ধি, গাঁজা। এটি একটি মাদকবিশেষ। ভাং হচ্ছে গাঁজার একটি ভোজ্যদ্রব্য। মোগল আমলে গোয়ায় বসবাসকারী পর্তুগিজ ইহুদি চিকিৎসক গার্সিয়া দে অর্টা তাঁর লেখা ‘কলিকুইস ডস সিম্পল ই ড্রোগাস দা ইন্ডিয়া (১৫৬৩)’ গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন, গুজরাটের বাহাদুর শাহ এবং বহু পর্তুগিজ আনন্দ-বিনোদন হিসেবে ভাং সেবন করতেন। হিন্দু সম্প্রদায়ের বিভিন্ন পূজা-পার্বণে এর ব্যবহার রয়েছে।  মহা শিবরাত্রি ও হোলির বসন্ত উৎসবে ভাং বিতরণ করা হয়।
 
 
প্রজাপতি ও প্রজাবতী
প্রজাপতি: প্রজা ও পতি মিলে গঠিত প্রজাপতি একটি তৎসম শব্দ। প্রজা অর্থ— রাষ্ট্রের অন্তর্গত জনগণ, সন্তান-সন্ততি, জীবসমূহ; জমিদারির রায়ত। প্রজাপতি শব্দে বর্ণিত প্রজা অর্থ— জীবসমূহ। পতি শব্দের অর্থ— পালক, প্রভু। সুতরাং, প্রজাপতি অর্থ— জীবের পালক। অভিধানমতে, তৎসম প্রজাপতি অর্থ— জীবসমূহের পালক, বিধাতা; পুরাণে বর্ণিত ব্রহ্মার দশ মানসপুত্র প্রজাপতি নামে পরিচিত। ব্রহ্মার এই দশ মানুসপুত্র হলেন— মরীচি, অত্রি অঙ্গিরা পুলস্তা পুলহ ক্রতু দক্ষ বশিষ্ঠ ভৃগু ও নারদ। তবে বাংলায়, প্রজাতি শব্দের অর্থ— বিচিত্র ডানাবিশিষ্ট পতঙ্গবিশেষ।
 
প্রজাবতী: প্রজা ও বতী মিলে প্রজাবতী। প্রজা শব্দের একটি অর্থ— সন্তানসন্ততি। অভিধানমতে, প্রজাবতী অর্থ— (বিশেষণে) সন্তানবতী। বিশেষ্যে প্রজাবতী শব্দের অর্থ— ভ্রাতৃবধূ।
 
বিস্ফোরিত ও বিস্ফুরি
 
বিস্ফোরিত: তৎসম বিস্ফোরিত অর্থ— (বিশেষণে) হঠাৎ জ্বলে উঠেছে বা সশব্দে ফেটে গেছে এমন।  বিস্ফোরক বিস্ফোরিত হলো।
বিস্ফুরিত: তৎসম বিস্ফুরিত অর্থ— (বিশেষণে) কম্পিত, স্ফীত, বর্ধিত, দীপ্ত প্রভৃতি। বিস্ফুরণে বিস্ফুরিত হলো আকস্মিক পুরো ভবন। বিস্ফোরক বিস্ফোরিত ওয়ায় ভবনটি আকস্মিক বিস্ফুরিত হলো।
 
 
চলাফিরা না কি চলাফেরা
‘চলাফেরা’‘চলাফিরা’ দুটোই শুদ্ধ ও প্রমিত। বাংলা চলাফেরা অর্থ— (বিশেষ্যে) ইতস্তত ভ্রমণ, যাতায়াত, চালচলন, গতিবিধি। ‘চলাফিরা’ হলো ‘চলাফেরা’ শব্দের সাধু রূপ।
 
গোরুর দুধ না কি গাভির দুধ?
প্রশ্নটির সহজ উত্তর— গোরুর দুধ; গাভির দুধ নয়। গাভি সর্বদা দুধ দেয় না। যখন দুগ্ধবতী থাকে কেবল তখনই দুধ দেয়। অথচ, গোরু সর্বদা দুধ দেয়। কারণ, সব দুগ্ধবতী গাভিই গোরু, কিন্তু সব গাভি ‘দুগ্ধবতী গোরু’ নয়। আমরা মনুষ্যশিশু বা মানবশিশু বলি, নারীর শিশু মানবীশিশু বলি না। আপনি যদি অতি শুদ্ধতার জন্য ‘গোরুর দুধ’ কথার সঙ্গে গাভি যুক্ত করতে চান তাহলে বলুন— দুগ্ধবতী গাভির দুধ। অন্যথায়, বলুন— গোরুর দুধ। যেমন: ছাগদুগ্ধ, হংসডিম্ব, মনুষ্যশিশু, ব্যাঘ্রশাবক, পাখির ছানা প্রভৃতি।
 
— — — — — — — — — — — — — — — — —
 
 
 
প্রয়োজনীয় কিছু সংযোগ
শুবাচ গ্রুপের সংযোগ: www.draminbd.com
শুবাচ যযাতি/পোস্ট সংযোগ: http://subachbd.com/
আমি শুবাচ থেকে বলছি
 
প্রতিদিন খসড়া
আমাদের টেপাভুল: অনবধানতায়
— — — — — — — — — — — — — — — — —
Spelling and Pronunciation
HTTPS://DRAMINBD.COM/ENGLISH-PRONUNCIATION-AND-SPELLING-RULES-ইংরেজি-উচ্চারণ-ও-বান/
 
 
 
 
error: Content is protected !!