বেনিন (Benin) ইতিহাস ও নামকরণ

ড. মোহাম্মদ আমীন

বেনিন (Benin)

বেনিন পশ্চিম-আফ্রিকায় অবস্থিত একটি স্বাধীন রাষ্ট্র। সরকারি নাম রিপাবলিক অব বেনিন। এর পশ্চিমে টোগো, পূর্বে নাইজেরিয়া এবং উত্তরে বুরকিনা ফাসো ও নাইজার অবস্থিত। অধিকাংশ লোক বেনিন বাঁকে গিনি উপকূলে বসাবাস করেন। সাব-সাহারান অঞ্চলে অবস্থিত এ দেশটি ব্যপকভাবে কৃষিপ্রধান। রাজধানী পোর্টেনোভো এবং মুদ্রা ফ্রাংক।

উপনিবেশিক আমল এবং স্বাধীনতাকালীন আধুনিক বেনিন এর নাম ছিল দহোমি। দেশটির জলাশয় বাইট অব বেনিন থেকে ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দের ৩০ নভেম্বর নামটি পরিবর্তন করে বেনিন রাখা হয়। জেনে রাখা ভালো যে, নাইজেরিয়ার বেনিন সিটি বা বেনিন ব্রোঞ্জের সঙ্গে ‘বেনিন’ রাষ্ট্রের কোনো নাম বা উৎপত্তিগত সম্পর্ক নেই।

বেনিন শব্দের বাংলা অর্থ পাশের দেশ বা পাশের ভূমি। ইংরেজিতে বলা যায়: Land beside । এর অন্তর্নিহিত অর্থ বেনিন বাঁকের পাশের দেশ। ইংরেজি ভাষায় ল্যান্ড বিসাইড দ্যা বাইট অব বেনিন । গিনি উপসাগরের নাইজার বদ্বীপের বিশাল অংশব্যাপি বিস্তৃত এ ভূখন্ডটির প্রাচীন নাম ছিল দাহোমি । ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দে নিরপেক্ষ নাম হিসাবে বেনিন নামটি নির্বাচন করা হয়। বেলে অব দা  বা ফন  ভাষায় দা হোমে বা দাহোমি বা দাহোমাই  এর প্রাচীন নাম। ফন ভাষায় ‘ডা’ বা ‘ডান’ অর্থ সাপ বা সর্প দেবতা ডাম্বালা । ‘এ্যাবোমে রামপার্টস’ এর প্রাচীন নাম। ফন ভাষায় এটি এ্যাগবোমে । অহোসু হুয়েগেবাদজা নামক বিখ্যাত একটি স্থান হতে নামটি গ্রহণ করা হয়েছে।

এবার বেনিন নামটির ব্যুৎপত্তি নিয়ে আলোচনা করা যায়। অনেকের মতে, আরবি শব্দ বানি  হতে বিনি  এবং বিনি হতে আলোচ্য বেনিন নামের উদ্ভব। আরবি বানি শব্দের অর্থ পুত্র বা উপজাতি। কেউ কেউ মনে করেন, ইতসেকিরি ভাষার শব্দ উবিনু  বা উরুবা ভাষার শব্দ ইলে-ইবিনু , হতে বেনিন নামের উদ্ভব। যার অর্থ হোম অব দ্যা ভেক্সাসন । দ্বাদশ শতকে ইফে, ওবা ও ওরানাইয়ান দ্বারা নামটি দেওয়া হয়।

বেনিনের মোট আয়তন ১,১৪,৭৬৩ বর্গকিলোমিটার বা ৮৩,৪৮৪ বর্গমাইল। তন্মধ্যে জলীয় ভাগের পরিমাণ ০.০২%। ২০১৩ খ্রিস্টাব্দের হিসাবমতে, জনসংখ্যা ১,০৩,২৩,০০০ এবং প্রতি বর্গকিলোমিটার লোকসংখ্যা ৭৮.১ জন । আয়তন বিবেচনায় বেনিন পৃথিবীর ১০১-তম বৃহত্তম দেশ এবং জনসংখ্যা বিবেচনায় ৮৫-তম। কিন্তু জনসংখ্যার ঘনত্ব বিবেচনায় পৃথিবীর ১২০ -তম জনবহুল দেশ। সরকারিভাবে বেনিনের অধিবাসীরা বেনিনিজ বা বেনিনয়স নামে পরিচিত।

২০১২ খ্রিস্টাব্দের হিসাবমতে, বেনিনের জিডিপি (পিপিপি) ১৫.৫৮৬ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং মাথাপিছু আয় ১,৬৬৬ ইউএস ডলার। অন্যদিকে, জিডিপি (নমিনাল) ৭.৪২৯ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং মাথাপিছু আয় ৭৯৪ ইউএস ডলার। মুদ্রার নাম ফ্রাঙ্ক। রাজধানী পোর্টোনাভো। সরকারিভাবে বেনিনের অধিবাসীদের বেনিনিজ বলা হয়।

১৯৬০ খ্রিস্টাব্দের ১ আগস্ট বেনিন ফ্রান্স হতে স্বাধীনতা লাভ করে। ১৯৫৯ খ্রিস্টাব্দের ২৩ নভেম্বর বর্তমানে ব্যবহৃত পতাকাটি আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করা হয় এবং স্বাধীনতার দিন প্রথম উত্তোলন করা হয়। জনগণের প্রায় সবাই খ্রিস্টান। সরকারি ভাষা ফ্রান্স। তবে ফন  ও উয়োরুবাসহ আর কয়েকটি ভাষা প্রচলিত আছে। জনগণের ৪২.৮% খ্রিস্টান, ২৪.৪% মুসলিম, ১৭.৩% ভোদুন, ৬% প্রচলিত ধর্ম এবং ১.৯% অন্য্যা ধর্মবিশ্বাসের অনুসারী। বেনিনের ৬.৫% লোক উদার এবং তারা কোনো প্রাতিষ্ঠানিক ধর্মে বিশ্বাসী নন।

বেনিনের মানচিত্র দেখতে অনেকটা বাহুসহ উঁচিয়ে ধরা মুষ্টিবদ্ধ হাতের মতো। বেনিন অনুন্নত দেশ। অর্থনীতি কৃষি ও তুলা এবং তুলশিল্পের উপর নির্ভরশীল। এ দেশের ৩৭.৪% লোক দরিদ্রসীমার নিচে বাস করে।

অ্যাঙ্গোলা

error: Content is protected !!