ব্যবসায় না কি ব্যাবসা

ড. মোহাম্মদ আমীন

ব্যবসায় ও ব্যবসা: কোনটি শুদ্ধ?

ব্যবসায়: সংস্কৃত ব্যবসায় (বি+অব+√সো+অ) অর্থ— (বিশেষ্যে) জীবিকা, পেশা, বাণিজ্য, তেজারতি, কারবার, অভিপ্রায়, উদ্যম, যত্ন প্রভৃতি। ব্যবসা বানানের প্রথমে আ-কার না দিলে শেষে য় দিতে হয়।
পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

ব্যাবসা: সংস্কৃত ব্যবসায় থেকে উদ্ভূত ব্যাবসা শব্দটি ব্যবসায় বানানের চলিত রূপ। ব্যাবসা বানানে প্রথমে আ-কার দিলে শেষে য় দিতে হয় না।

অর্থাৎ ব্যবসায়ব্যাবসা উভয় বানান শুদ্ধ।
উদাহরণ: সেলিম সাহেব ধানচালের ‘ব্যবসায়’ করে অনেক টাকার মালিক হয়েছেন। সেলিম সাহেব ধানচালের ‘ব্যাবসা’ করে অনেক টাকার মালিক হয়েছেন।
নিমোনিক: তৎসম ব্যবসায় বানানের শেষে আয় বানানের না-দিলে ব্যবসায় আয় হয় না। এজন্য ব্যবসায় বানানে অন্তস্থ-য় দিতে হয়। অতৎসম ব্যাবসা বানানে না-দিলে প্রথমে আ-কার দিয়ে লিখতে হয় ব্যাবসা। নইয়ে ব্যয় হয়ে যায়, আয় হয় না।

ব্যয়, ব্যবসায় ও ব্যাবসা

ব্যয়: ব্যায় নয়, ব্যয়।ব্যয়-এর কোনো আ-কার নেই। তাই ব্যয় সীমাহীন। এজন্য ব্যয় বানান আ-কার ছাড়া লিখতে হয়।
ব্যবসায়: তৎসম ব্যবসায় বানানের শেষে আয় বানানের না-দিলে ব্যবসায় আয় হয় না। এজন্য ব্যবসায় বানানে অন্তস্থ-য় দিতে হয়।
ব্যাবসা: ব্যবসায় বানানে য় না-দিলে আ-কার দিয়ে লিখতে হয় ব্যাবসাব্যাবসা বানানটি ব্যবসায় বানানের চলিত রূপ।অর্থাৎ ব্যবসায়ব্যাবসা উভয় বানান শুদ্ধ।
শুদ্ধ: ব্যয়।
শুদ্ধ: ব্যবসায় ও ব্যাবসা।
উচ্চারণ
য- ফলাযুক্ত ‘অ’-কারের বিকৃত ‘অ্যা’ উচ্চারণ—ব্যার্থো (ব্যর্থ),ব্যাবোহার্ (ব্যবহার), ব্যাবোস্থা(ব্যবস্থা), ব্যাস্তো (ব্যস্ত), ব্যাগ্রো (ব্যগ্র), ব্যায়্ (ব্যয়), ব্যাঙ্গো (ব্যঙ্গ), ব্যাঞ্জোনা (ব্যঞ্জনা), ব্যাত্ তয়্ (ব্যত্যয়), ব্যাবোসায়্ (ব্যবসায়) ইত্যাদি।
সূত্র: নিমোনিক প্রমিত বাংলা বানান অভিধান, ড. মোহাম্মদ আমীন।
———————————————-
শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com
Language
error: Content is protected !!