ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র : সোহাগ চাঁদ বদনি ধনি নাচ তো দেখি

ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র

ড. মোহাম্মদ আমীন

বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত সংস্কৃত ‘ধনিকা’ শব্দ হতে জাত অতৎসম ‘ধনি’ শব্দের অর্থ সুন্দরী নারী, যুবতি, কুলবধূ প্রভৃতি। প্রয়োগ : সোহাগ চাঁদ বদনী ধনি নাচ তো দেখি। প্রসঙ্গত, বধূ শব্দের অর্থ বউ, স্ত্রী; কিন্তু  ‘বধুঁ’ শব্দের অর্থ বন্ধু।

বাক্যে বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত এবং সংস্কৃত ‘ধন্য’ হতে জাত অতসৎম ‘ধনি’ শব্দের অর্থ প্রশংসনীয়, ভাগ্যবতী প্রভৃতি। প্রয়োগ : ধনী লোকের ধনি কাজ, কীসের শরম কীসের লাজ। ধন থাকলে সব কাজই ধনি হয়ে যায়।

বাক্যে বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত সংস্কৃত ‘ধন’  (ধন+ইন্‌) শব্দের অর্থ ধনবান, বিত্তশালী, মহাজন, দক্ষ, কুশল। শব্দটির স্ত্রীলিঙ্গ ধনিনী।ধন সংস্কৃত শব্দ, তাই বানানে ঈ-কার।কিন্তু কখন ই-কার এবং কোথায় ঈ-কার তা সহজে মনে রাখা যায় না। অনেক সময় গন্ডগোল লেগে যায়। তাই একটা নিমোনিক দেওয়া হলো :

‘ধন’ যে ব্যক্তির কাছে থাকে সে ব্যক্তি ধনের স্ত্রী হয়ে যায়। ধন-রূপী স্ত্রীর মতো ধনের কথায় উঠবস করে। স্ত্রী বানানে ঈ-কার। তাই ধন-এর স্ত্রী ‘ধনী’ বানানেও ঈ-কার।  আর একটা বিষয় : ধনীর বিপরীত গরিব। ‘ধনী’ শব্দের বানানে ঈ-কার; তাই গরিব বানানে ই-কার।

ফাউ :

মেম্বারশীপ নয়, লিখুন মেম্বারশিপ।
অন্তস্থল নয়, লিখুন অন্তস্তল (অন্তর্‌+তল = অন্তস্তল)।
ধরণী নয়, লিখুন, ধরণি (ই-কার)।
নিরবিচ্ছিন্ন নয়, লিখুন নিরবচ্ছিন্ন (নির্‌+ অবচ্ছিন্ন = নিরবচ্ছিন্ন)।
নগরায়ন নয়, লিখুন নগরায়ণ (নগর+আয়ন; অন্তঃস্থ-র থাকায় ‘আয়ন’ হয়ে গেল ‘আয়ণ’)।
নাড়িভুড়ি নয়, লিখুন নাড়িভুঁড়ি
নিয়মি নয়, নিয়মী (নিয়ম পালন করে এমন, সংযমী)।
নুব্জ্য নয়, ন্যুব্জ (উচ্চারণ: নুবজো)।
ন্যুন নয়, লিখুন ন্যূন (উচ্চারণ: নুনো)।
নুন্যতম নয়, লিখুন ন্যূনতম

সূত্র : ব্যাবহারিক প্রমিত বাংলা বানান সমগ্র, ড. মোহাম্মদ আমীন, পর্যবেক্ষণ ও পরিশীলনে হায়াৎ মামুদ, পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

error: Content is protected !!