ভারি ও ভারী : কোনটা কখন কোথায়

ড. মোহাম্মদ আমীন
ভারি বাংলা শব্দ। বিশেষেণ অর্থ— খুব (ভারি কষ্টে আছি), অতি (ভারি চালাক), অত্যন্ত (ভারি বুদ্ধিমান), অতিশয় (ভারি শীত পড়ছে), দারুণ (ভারি মিষ্টি মেয়ে), অত্যধিক (ভারি দুষ্ট)। তুচ্ছার্থেও ‘ভারি’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়। যেমন: ‘ভারি কয়টা টাকার উপর দিয়েই তো গেল, যদি তোমার কিছু হয়ে যেত!’ ভারি অতৎসম শব্দ। তাই বানানে ই-কার।
সংস্কৃত ভারী অর্থ বিশেষণে— অতিরিক্ত ভারযুক্ত (ভারী বোঝা), দায়িত্বপূর্ণ (ভারী কাজ), দায়িত্বভার (কার্যভার গ্রহণ), দায়িত্বপূর্ণ ( ভারী মানুষ ভারী কাজ), ভারবাহক। বিশেষ্যে ভারী শব্দের অর্থ— যে ব্যক্তি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভিস্তি ভরা জল সরবরাহ করেন। যিনি ভার বহন করেন তাঁকেও ‘ভারী’ বলা হয়। ‘ভারীর কাঁধে বোঝা ভারি, বলল ভারী, ডাকো গাড়ি।
ওপরের আলোচনায় দেখা যায়— ভারি ও ভারী দুটোই বিশেষণ। তবে ভারী যখন ভারবাহী অর্থে ব্যবহৃত হয় তখন এটি বিশেষ্য। অনেক সময় কোথায় কোন বানান হবে তা মনে থাকে না।
নিমোনিক: ঈ-কার, ই-কারের চেয়ে মোটসোটা। ওজন, শারীরিক গঠন ও মর্যাদায় ভারী। তাই ওজন, ভারী বোঝা, ভারবাহক প্রভৃতি অর্থদ্যোতক ভারী বানানেই ঈ-কার দিন।বাকিটা ই-কার।
—————————————————————————-
সূত্র: নিমোনিক বাংলা বানান অভিধান, ড. মোহাম্মদ আমীন(প্রকাশনীয়)।
error: Content is protected !!