ভিয়েতনাম (Vietnam) : ইতিহাস ও নামকরণ

কীভাবে হলো দেশের নাম (এশিয়া)

ড. মোহাম্মদ আমীন

ভিয়েতনাম (Vietnam)

ভিয়েতনাম এর সরকারি নাম ভিয়েতনাম সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র। এটি ইন্দোচীন উপদ্বীপের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর অসাধারণ একটি রাষ্ট্র। ভিয়েতনামের উত্তরে গণচীন, পশ্চিমে লাওস ও কম্বোডিয়া, দক্ষিণ ও পূর্বে দক্ষিণ চীন সাগর অবস্থিত। হ্যানয় ভিয়েতনামের রাজধানী এবং হো চি মিন সিটি দেশটির বৃহত্তম শহর। ভিয়েতনামের আকৃতি অনেকটা ইংরেজি এস (s) অক্ষরের মতো। এটি উত্তরে চীনের সীমান্ত থেকে শুরু হয়ে দক্ষিণে থাইল্যান্ড উপসাগর পর্যন্ত উত্তর-দক্ষিণে প্রায় ১৫০০ কিলোমিটার বিস্তৃত। দেশের সবচেয়ে সরু অংশ দানাং বন্দর শহরের উত্তরে অবস্থিত। এখানে পূর্বের সাগর থেকে পশ্চিম সীমান্তের দূরত্ব মাত্র ৫০ কিলোমিটার। ভিয়েতনামে বর্তমানে প্রচলিত জাতীয় পতাকা ১০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ জানুয়ারি গৃহীত হয়।

‘ভিয়েত’ (viet) ও ‘নাম’ (nam) শব্দের সমন্বয়ে ভিয়েতনাম শব্দের উৎপত্তি। ‘নাম’ শব্দের অর্থ দক্ষিণ। সুতরাং ভিয়েতনাম শব্দের ইংরেজি প্রতিশব্দ Viet South। দ্বিতীয় শতকে দেশটির নাম ছিল ‘নামভিয়েত’। পরবর্তীকালে নামভিয়েত থেকে ভিয়েতনাম শব্দের গঠন হয়। ভিয়েত ‘Viet’ হচ্ছে Bach Viet-এর সংক্ষিপ্ত রূপ। প্রাচীন ইতিহাসবেত্তা সিমা কিয়ান (Sima Qian) খ্রিস্টপূর্ব ৩৬৮ অব্দে লিখেছেন Guangdong-এর অধিবাসী বুঝাতে ‘ব্যাচ ভিয়েত নাম’ কথাটি ব্যবহার করা হতো। চীনের এনসাইক্লোপিডিয়াতেও নামটি দেখা যায়। ৯৩৮ খ্রিষ্টাব্দে স্বাধীনতা লাভের পর এ ভূখণ্ডটি ‘নাম-ভিয়েত’ ও ‘ডায় ভিয়েত’ (Dai Viet/Great Viet) নামে পরিচিতি পায়। ষোড়শ শতকে নগুয়েন বিনহ কিয়েহম (Nguyen Binh Khiem) এর কবিতায় প্রথম লিখিতভাবে ভিয়েতনাম শব্দটি পাওয়া যায়। ১৯৪৫ খ্রিষ্টাব্দে ভিয়েতনাম নামটি সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হয়।

ভিয়েতনামের মোট আয়তন ৩,৩২,৬৯৮ বর্গকিলোমিটার বা ১,২৮,৫৬৫ বর্গমাইল। ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের হিসাবমতে মোট জনসংখ্যা ৯,০৬,৩০,০০০, প্রতি বর্গকিলোমিটার জনসংখ্যা ২৭৩.১১। আয়তন বিবেচনায় ভিয়েতনাম পৃথিবীর ৬৫-তম বৃহত্তম রাষ্ট্র। মোট জনসংখ্যা ও জনসংখ্যার ঘনত্ব বিবেচনায় এ স্থান যথাক্রমে ১৩-তম ও ৪৬-তম। ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দের হিসাবমতে ভিয়েতনামের জিডিপি (পিপিপি) ৫৪৭.৯৩৪ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং সে হিসাবে মাথাপিছু আয় ৫,৯৮৩ ইউএস ডলার। অন্যদিকে জিডিপি (নমিনাল) ২০৪.৫৩৯ বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং মাথাপিছু আয় ২,২৩৩ ইউএস ডলার। হ্যানয় ভিয়েতনামের রাজধানী। মুদ্রার নম ডং। ভিয়েতনাম একটি কৃষিপ্রধান দেশ। এখানকার অধিকাংশ লোক গ্রামে বাস করে। ২০০৩ খ্রিষ্টাব্দের হিসাব অনুযায়ী শহরে ২৬% লোক বসবাস করে। সরকারিভাবে ভিয়েতনামের অধিবাসীরা ভিয়েতনামিজ নামে পরিচিত।

ভিয়েতনামে প্রায় ৫০টির মতো ভিন্ন জাতিগত ও ভাষাগত গোষ্ঠীর লোক বাস করে। তবে ভিয়েত বা ভিয়েতনামীয় জাতির লোকেরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ। খ্রিস্টপূর্ব ২য় শতকে চীন অঞ্চলটি দখল করে নেয়। ৯৩৯ খ্রিষ্টাব্দে ভিয়েতনামীয়রা স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠা করে।

১৯শ শতকের শেষ দিকে ফ্রান্স ভিয়েতনাম আক্রমণ করে। ফরাসিরা দেশটিকে তিনটি অঞ্চলে ভাগ করে নেয় এবং অঞ্চলগুলিকে কম্বোডিয়া ও লাওসের সঙ্গে যুক্ত করে ইন্দোচীন ইউনিয়ন তথা ফরাসি ইন্দোচীন গঠন করে। ফরাসিরা নিজেদের সুবিধার জন্য ভিয়েতনামের সম্পদ আহরণ করে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর (১৯৩৯-১৯৪৫), ভিয়েতনামের উপনিবেশবিরোধীরা সাম্যবাদী দলের নেতৃত্বে ফরাসি শাসনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে। ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দে দিয়েন বিয়েন ফু-তে ভিয়েতনামি সেনাদের কাছে ফরাসি সেনারা চরমভাবে পরাজিত হয়। এরপর ভিয়েতনামকে উত্তর ও দক্ষিণ নামে দুটি অঞ্চলে ভাগ করা হয়। উত্তর ভিয়েতনামে একটি সাম্যবাদী সরকার এবং দক্ষিণ ভিয়েতনামে সাম্যবাদবিরোধীরা শাসন প্রতিষ্ঠা করে। পরবর্তী ২০ বছর ধরে উত্তর ভিয়েতনামের নেতৃত্বে ভিয়েতনাম একত্রীকরণের একটি আন্দোলন শুরু হয়। দক্ষিণ ভিয়েতনামের সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় তা ব্যর্থ কওে দেওয়ার চেষ্টা চালায়। ১৯৭৩ খ্রিষ্টাব্দে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের সেনা সরিয়ে নেয়। এর দুই বছর পরে দক্ষিণ ভিয়েতনাম সাম্যবাদীদের করায়ত্ত হয়। ১৯৭৬ খ্রিষ্টাব্দে দুই ভিয়েতনাম একত্রিত করে একটি সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা হয়। যার রাজধানী করা হয় হ্যানয়।

ভিয়েতনামের সবচেয়ে প্রাচীন তিনটি ধর্ম হল মহায়ন বৌদ্ধধর্ম, কনফুসিয়াাসবাদ এবং দাওবাদ। এগুলি ভিয়েতনামে ত্রিধর্ম বা ধস মরপ্সড় নামে পরিচিত। এছাড়াও এখানে রোমান ক্যাথলিক ধারার খ্রিস্টধর্ম, কাও দাই, হোয়াও হো ধর্মেও সংখ্যালঘু সম্প্রদায় বসবাস করে। ভিয়েততনামের বেশিরভাগ মানুষ নিজেদেরকে ধার্মিক দাবি করে না, তবে অনেকেই প্রতিবছর বেশ কয়েকবার মন্দিরে যায়। এটি তাদের কাছে একটি ফ্যাশন ও সামাজিক অভ্যাস।

ভিয়েতনামিজরা সাধারণত সৎ, নম্র, ভদ্র, অমায়িক এবং অত্যন্ত সহায়ক চরিত্রের অধিকারী। তাদের মুখে সবসময় হাসি লেগে থাকে। ভিয়েতনামের ভাষায় ছয়টা পৃথক স্বর আছে। স্বরের পরিবর্তনের সঙ্গে শব্দের অর্থও পরিবর্তন হয়ে যায়। তাই তাদের ভাষা শেখা প্রায় অসম্ভব বললে অত্যুক্তি হয় না।

প্রথম সাক্ষাতে ভিয়েতনামিরা বয়স, জাতীয়তা ও বৈবাহিক অবস্থা জানতে চায়। ভিয়েতনামিজদের কাছে কফি খুব প্রিয়। প্রত্যেকে কনডেন্সড মিল্ক ও বরফ দিয়ে তৈরী কফি পান করে। দশ জন ভিয়েতনামির ৭ জনের নামের আগে বা পড়ে ঘমুঁবহ শব্দটি দেখা যায়। ভিয়েতনামিরা নিরাপত্তার জন্য হ্যালমেট পরে না, যাতে পুলিশের জরিমানার কবলে পড়তে না হয় সেজন্য হ্যালমেট পরে। রাস্তা পারাপারে কেউ জেব্রাক্রসিং বা ট্রাফিক আইনের তোয়াক্কা করে না। ভিয়েতনামের প্রত্যেক পরিবারে দুই বা ততোধিক বাইক থাকে। এগুলো তারা নিজেদের বাসার নিচ তলায় রাখে। বাসগৃহ ও গ্যারেজ একসঙ্গে। এটাই ভিয়েতনামের রীতি।

ভিয়েতনামিরা সকালে গোসল করে না। তারা সন্ধ্যায় গোসল করে। যখন কোনো ভিয়েতনামি চা বা পানি পান করে, তখন সবসময় ৫-১০% কাপে রেখে দেয়। তারা কখনও কাপের চা কিংবা গ্লাসের পানি পুরো খায় না। পুরো খাওয়াটা অশোভনীয়। অধিকাংশ রেস্টুরেন্টে বরফ-চা ফ্রি। তবে কিছু কিছু রেস্টুরেন্টে গরম চাও ফ্রি পাওয়া যায়। আবার কিছু কিছু রেস্টুরেন্টে ঠাণ্ডা ও গরম উভয় প্রকার চা ফ্রি পাওয়া যায়।

উন্নয়নশীল দেশ হলেও ভিয়েতনামে শিক্ষার হার ৯৪%। উন্নয়নশীল দেশসমূহের মধ্যে বেকারের হার ভিয়েতনামে সবচেয়ে কম। ভিয়েতনামের মোটর বাইকের সংখ্যা দেশের মোট জনসংখ্যার দ্বিগুনের চেয়ে বেশি। তবে কার মাত্র ২ মিলিয়ন। প্রাকৃতিকভাবে অপূর্ব সুন্দরের অধিকারী ভিয়েতনামের মানুষগুলোও বেশ চমৎকার।

তুরস্ক (Turkey) : ইতিহাস ও নামরণ

তুর্কমিনিস্তান (Turkmenistan) : ইতিহাস ও নামকরণ

ইউনাইটেড আরব আমিরাত (United Arab Emirates) : ইতিহাস ও নামকরণ

উজবেকিস্তান (Uzbekistan) : ইতিহাস ও নামকরণ

সূত্র:  কীভাবে হলো দেশের নাম, ড. মোহাম্মদ আমীন, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

error: Content is protected !!