ভূগোল সাধারণ জ্ঞান : কর্কটক্রান্তি ও মকরক্রান্তি

ড. মোহাম্মদ আমীন

কর্কটক্রান্তি
কর্কট বাংলা শব্দ। এর অর্থ কাঁকড়া। কিন্তু ভুগোলের কর্কট কাঁকড়া নয়। কর্কটক্রান্ত্রি বা কর্কটক্রান্ত্রি রেখা বা উত্তর-বিষুব পৃথিবীর মানচিত্রে অঙ্কিত প্রধান পাঁচটি অক্ষাংশের একটি। এটি বিষুবরেখা হতে উত্তরে অবস্থিত এবং ২৩ ডিগ্রি ২৬ মিনিট ২২ সেকেন্ড অক্ষাংশ বরাবর কল্পিত একটি রেখা। ৯০০ পূর্ব দ্রাঘিমা রেখাকে বলে কর্কটক্রান্তি রেখা ।

কর্কটক্রান্তির রেখার ব্যাখ্যা
পৃথিবী কক্ষতলের উপর লম্বভাবে থাকার বদলে একটু হেলে থাকে। কক্ষতলের উপর লম্বের থেকে আহ্নিক অক্ষের এই হেলে থাকা অর্থাৎ অবনতি কোণের পরিমাণ মোটামুটি ২৩ ডিগ্রি ২৬ মিনিট ২২ সেকেন্ড। তাই কর্কট সংক্রান্ত্রির (June Solstice) দিন অর্থাৎ সূর্যের উত্তরায়ণের সর্বোচ্চ দিন। এদিন উত্তর গোলার্ধে দিবালোক সবচেয়ে বেশীক্ষণ থাকে। সূর্য যে অক্ষাংশ রেখায় লম্বভাবে আলোকপাত করে সেই ২৩ ডিগ্রি ২৬ মিনিট ২২ সেকেন্ড অক্ষাংশ রেখাই হল কর্কটক্রান্তি রেখা।

কর্কটক্রান্তি রেখা ও বাংলাদেশ
কর্কটক্রান্তি রেখা বাংলাদেশের কুমিল্লা, মাগুরা ও ঝিনাইদহের উপর দিয়ে গিয়েছে ।

মকরক্রান্তি
মকরক্রান্ত্রি বা মকরক্রান্ত্রি রেখা বা দক্ষিণ বিষুব হলো দক্ষিণ গোলার্ধে অবস্থিত একটি অক্ষাংশীয় বৃত্ত, যার উপরে সূর্য দক্ষিণায়নের সময় বা ২১ শে ডিসেম্বর লম্বভাবে কিরণ দেয়। দক্ষিণ গোলার্ধের যত দূরত্ব পর্যন্ত সূর্য লম্বভাবে কিরণ দেয় তার মধ্যে মকরক্রান্তি রেখা সর্বদক্ষিণে অবস্থিত। মকরক্রান্তি রেখার সমমান বিশিষ্ট উত্তর গোলার্ধের অক্ষাংশটি হলো কর্কটক্রান্তি রেখা। মকরক্রান্তি রেখা পৃথিবীর মানচিত্রে অঙ্কিত প্রধান পাঁচটি অক্ষাংশের একটি। ২০১৮ ১০ই জুন পর্যন্ত রেখাটি ২৩ক্ক২৬′১২.৮″ (বা ২৩.৪৩৬৮৯ক্ক) অক্ষাংশে বিদ্যমান রয়েছে।

ভূগোল সাধারণ জ্ঞান লিংক

ভূগোল সাধারণ জ্ঞান : ভূগোলবিষয়ক কিছু সংজ্ঞার্থ

ভূগোল : বায়ুমণ্ডল (Atmosphere) মহাশূন্য বাতাসের সীমানা ও ভর

ভূগোল সাধারণ জ্ঞান : অক্ষরেখা মেরু-কুমেরু এবং নিরক্ষরেখা

ভূগোল সাধারণ জ্ঞান : আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা ও গ্রিনিচ মান

error: Content is protected !!