ভ্যাটিকান সিটি (Vatican City) : ইতিহাস ও নামকরণ

কীভাবে হলো দেশের নাম (ইউরোপ)

ড. মোহাম্মদ আমীন

ভ্যাটিকান সিটি (Vatican City)

ইতালিয়ান চিটা ডেল ভ্যাটিক্যানো (Citta del Vaticano) এবং ল্যাটিন সিভিটার ভ্যাটিকানা (Civitas Vaticana) বাগ্ভঙ্গি হতে ভ্যাটিকান সিটি

প্রকাশক: পুথিনিলয়।

নামের উৎপত্তি। এর অর্থ ভ্যাটিকান পর্বতের উপর অবস্থিত শহর (City on Vatican Hill)। ল্যাটিন মোনস ভ্যাটিকানাস (Mons Vaticanus) বাগ্‌ভঙ্গি হতে বিখ্যাত পর্বত ‘ভ্যাটিকান’ নামের উৎপত্তি। ভ্যাটিকান পর্বতের চারিপাশে অবস্থিত উর্বর সমৃদ্ধ ভূমি ager vaticanus) নাম হতে ভ্যাটিকান পর্বত নামের উৎপত্তি। আবার ল্যাটিন ক্রিয়াপদ ভ্যটিসিনারি (vaticinari) বা ভবিষ্যৎ বাণী বা ভবিষ্যবক্তা বা সৌভাগ্য বাণী ব্যক্তকারী বাগভঙ্গি হতে ভ্যাটিকান শব্দের উৎপত্তি।

ভ্যাটিকান সিটির মোট আয়তন ৪৪ হেক্টর বা ১১০ একর। ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের হিসাবমতে জনসংখ্যা ৮৪২ এবং জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১৮৭৭। রাজধানী ভ্যটিকান সিটি এবং মাথাপিছু  আয় ৪,৮৫৯। ধর্ম রোমান ক্যথলিক, সরকারি ভাষা ইতাালিয়ান। ১৯২৯ খ্রিষ্টাব্দের ১১ ফেব্রুয়ারি দেশটি ইতালি হতে স্বাধীনতা লাভ করে।  ১৯২৯ খ্রিষ্টাব্দের ৭ জুন ভ্যাটিকান সিটির বর্তমান পতাকা গৃহীত হয়।

ভ্যাটিকানের নাগরিকত্ব জন্ম দিয়ে নির্ধারিত হয় না, বরং নিয়োগের মাধ্যমে নির্ধারিত হয়। নিয়োগের সমাপ্তি ঘটার সঙ্গে সঙ্গে ভ্যাটিকানি সিটির নাগরিকত্বের সমাপ্তি ঘটে। কেউ ভ্যাটিকান সিটির নাগরিক হিসাবে নিয়োগ পাওয়ার কোনো শর্ত ভঙ্গ করলে তার নাগরিকত্বের অবসান ঘটে। ভ্যাটিকান মিউজিয়ামকে পৃথিবীর বৃহত্তম ও আকর্ষণীয় মিউজিয়ামের অন্যতম বলে ধরা হয়। এটি ১৪.৫ কিলোমিটার লম্বা। এখানে রক্ষিত প্রতিটি বস্তু দেখতে এক মিনিট করে সময় ব্যয় করলেও সবগুলো বস্তু দেখা শেষ করতে ৪ বছর সময় লাগবে। এখানে ১৪০০ কক্ষ আছে। প্রতি মঙ্গলবার সকালে পোপ শ্রোতৃবৃন্দ ও পূণ্যার্থীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন। সেন্ট পিটারস ব্যাসিলিকা পৃথিবীর বৃহত্তম ক্যাথলিক চার্চ। ইতালিয়ান অধিবাসীরা তাদের করের ৮% সরকারকে না দিয়ে ভ্যাটিকান কর্তৃপক্ষকে প্রদানে সরকারের অনুমতি আছে। ভ্যাটিকান সিটি পুরোটাই ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য। এটিই পৃথিবীর একমাত্র স্বাধীন রাষ্ট্র, যার পুরো ভূখণ্ড বিশ্ব ঐতিহ্যের অন্তর্ভুক্ত।

ভ্যাটিকান সিটির নিজস্ব পাসপোর্ট আছে। পোপ, কার্ডিনাল, সুইস গার্ডের সদস্যবৃন্দ এবং পাদ্রিগণ এ পাসপোর্ট পেয়ে থাকেন। ভ্যাটিকান রেডিও স্টেশন ভ্যাটিকান গার্ডেনের ভেতর একটি টাওয়ারে অবস্থিত। প্রতিদিন এ রেডিও স্টেশন হতে ২০ ভাষায় অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হয়। ১৫০৬ খ্রিষ্টাব্দে  পোপ

প্রকাশক: পুথিনিলয়।

দ্বিতীয় জুলিয়াস পন্টিফেইসাল সুইস গার্ড নামের ভ্যাটিকান গার্ড প্রতিষ্ঠা করেন। তারা মূলত পোপের ব্যক্তিগত দেহরক্ষী হিসাবে কাজ করেন। বর্তমানে তারা ভ্যাটিকান সিটির সামরিক শক্তি হিসাবে কাজ করেন। সুইস গার্ড হতে হলে অবশ্যই ১৭৪ মিটার লম্বা, পুরুষ, ক্যাথলিক, সুইস, সুইস সামরিক বাহিনীর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এবং ১৯-৩০ বছর বয়সের হতে হয়।

পোপ হচ্ছেন নির্বাচিত কিন্তু অবংশগত (non-hereditary) রাজা। ভাটিক্যান রাজ্যের ওপর তার পূর্ণ বিচারিক, নির্বাহী এবং আইন প্রণয়নের ক্ষমতা রয়েছে। তার মানে, বর্তমান ইউরোপে তিনিই একমাত্র পরম ক্ষমতার অধিকারী রাজা। নব নির্বাচিত পোপ যে বেলকনিতে দাঁড়িয়ে Urbi et Orbi বাক্যে বিশ্বের কোটি কোটি মানুষকে আশীর্বাদ জানান তার নাম লগিয়া অব দা বেনেডিকশন (Loggia of the Benediction)। অনেক পোপ সন্তানের পিতা ছিলেন। কথিত হয়, ক্রিস্টোফার কলম্বাস ছিলেন একজন পোপের সন্তান। ভ্যাটিকান সিটি পৃথিবীর একমাত্র দেশ, যা রাতের বেলা তার গেট বন্ধ করে দেয়। এ দেশের নিজস্ব ফোন কোম্পানি, স্ট্যাম্প, টিভি স্টেশন, রেডিও স্টেশন, নিজস্ব অর্থ এবং নিজস্ব সেনাবাহিনী হিসাবে সুইস গার্ড রয়েছে।


স্পেন (Spain) : ইতিহাস ও নামকরণ

সুইডেন (Sweden) : ইতিহাস ও নামকরণ

সুইজারল্যান্ড (Switzerland) : ইতিহাস ও নামকরণ

তুরস্ক (Turkey) : ইতিহাস ও নামকরণ

ইউক্রেন (Ukraine) : ইতিহাস ও নামকরণ

যুক্তরাজ্য (United Kingdom) : ইতিহাস ও নামকরণ

 

সূত্র:  কীভাবে হলো দেশের নাম, ড. মোহাম্মদ আমীন, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

All Link

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

Knowledge Link

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

 

error: Content is protected !!